BREAKING NEWS

০৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  সোমবার ২৩ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

টেলিপ্রম্পটার বিভ্রাট ঘটেনি, প্রযুক্তিগত সমস্যায় থমকে ছিলেন প্রধানমন্ত্রী, দাবি বিজেপির

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: January 20, 2022 11:36 am|    Updated: January 20, 2022 11:36 am

BJP Says, Teleprompter did not break down, technical problems occurred on PM speech | Sangbad Pratidin

স্টাফ রিপোর্টার, নয়াদিল্লি : টেলিপ্রম্পটার (Teleprompter) বিকল হওয়ার জন্য নয়, দাভোস বিশ্ব অর্থনীতি সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi) ভাষণ বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছিলেন প্রযুক্তিগত সমস্যার কারণে, অনুবাদকের কণ্ঠস্বর সংগঠকদের কাছে না পৌঁছনোর জন্য। তথ্য-সহ কংগ্রেস (Congress), বলা ভাল রাহুল গান্ধীকে (Rahul Gandhi) জবাব দিল বিজেপি (BJP) ।

দাভোসে চলা বিশ্ব অর্থনীতি সম্মেলন সোমবার দ্বিতীয়দিনে বক্তব্য রাখছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। বক্তব্য রাখতে গিয়ে এক সময় থমকে যান প্রধানমন্ত্রী। লাইভ ভিডিওতে তাঁকে চোখের ইশারায় কাউকে কিছু ইঙ্গিত করতে দেখা যায়। এরপর ইয়ারফোন গুঁজে নেন প্রধানমন্ত্রী। ভার্চুয়াল কনফারেন্সে থাকা অন্যদের কাছে জানতে চান তাঁর কথা ঠিকঠাক শোনা যাচ্ছে কিনা। ওপার থেকে জানানো হয় আপাতত অন্য কোনও অনুষ্ঠান চালিয়ে কিছুক্ষণ বাদে ফেরত আসা হবে প্রধানমন্ত্রীর কাছে। অনুরোধ করা হয়, তখন যেন তিনি আবার প্রথম থেকে শুরু করেন।

[আরও পড়ুন: পাকিস্তানের নির্যাতন থেকে আমাদের বাঁচান, মোদিকে কাতর আরজি PoK কাশ্মীরের বাসিন্দার]

এই ঘটনার পরই প্রধানমন্ত্রীকে আক্রমণ শুরু করেন বিরোধী নেতারা। কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধী টুইটারে লেখেন, ‘এত মিথ্যে কথা টেলিপ্রম্পটারও সহ্য করতে পারেনি।’ কটাক্ষ করেন কংগ্রেসের প্রধান মুখপাত্র রণদীপ সিং সুরজেওয়ালা, তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ নুসরত জাহান-সহ অনেকে। এদিন যার পাল্টা দেওয়া শুরু করে বিজেপি। হাতিয়ার করা হয় সেদিনের লাইভ ফুটেজ। যেখানে প্রধানমন্ত্রীর থমকে যাওয়ার আগে শুধু তাঁর গলাই শোনা যাচ্ছিল, তবে তাঁর ‘নতুন করে’ শুরু হওয়া ভাষণের সময় শোনা যায় অনুবাদকের গলাও।

[আরও পড়ুন: বাড়ছে সংক্রমণ, পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী-স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গে জরুরি বৈঠক মোদির]

বিজেপির বেশ কয়েকজন নেতা রাহুলকে কটাক্ষ করে উৎসাহিত না হওয়ার কথা বলে দাবি করেন, টেলিপ্রম্পটার বিকল হওয়ার কারণে নয়। প্রধানমন্ত্রীকে থামতে হয়েছিল প্রযুক্তিগত সমস্যার কারণে। যেহেতু তাঁর অনুবাদকের গলা শুনতে পাচ্ছিলেন না সংগঠকরা, তাই প্রধানমন্ত্রী হিন্দিতে কী বলছেন, তা তাঁরা বুঝতে পারছিলেন না। এর পাল্টা কংগ্রেসের বক্তব্য, এত কিছুর পরও বিজেপি এটা বলতে পারছে না, যে প্রধানমন্ত্রী টেলিপ্রম্পটার ব্যবহার করছিলেন না।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে