২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বুধবার ৭ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

গুজরাটে এবার ট্রিপল ইঞ্জিন সরকার, ভোট প্রচারে নয়া তত্ত্ব পদ্মবাহিনীর

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: November 23, 2022 9:05 am|    Updated: November 23, 2022 9:05 am

BJP Will form 'Triple engine government' in Gujarat | Sangbad Pratidin

বুদ্ধদেব সেনগুপ্ত, নয়াদিল্লি: কোনও রাজ্যে ভোট এলেই ডাবল ইঞ্জিনের সরকারের স্বপ্ন ফেরি করেন নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi) ও অমিত শাহরা (Amit Shah)। যদিও বাংলার মতো বেশ কয়েকটি রাজ্যে সেই স্বপ্ন বাস্তবায়িত করতে ব্যর্থ হয়েছে গেরুয়া শিবির। গুজরাট (Gujarat) ভোটেও সেই স্বপ্ন নিয়ে হাজির বিজেপির (BJP) জোড়া ফলা। তবে নিজের রাজ্যে স্লোগানে বদল আনলেন নমো। ডাবল ইঞ্জিনের পরিবর্তে ট্রিপল ইঞ্জিনের সরকার চলবে। গুজরাট জুড়ে ট্রিপল ইঞ্জিনের সরকার হবে বলে প্রচার চালাচ্ছে ভক্তকুল। কেবল কেন্দ্রীয় বা রাজ্য সরকার নয়। আমেদাবাদ ও গান্ধীনগর-সহ অধিকাংশ পুরসভা এখন বিজেপির দখলে। তাই গুজরাটে ট্রিপল ইঞ্জিনের তত্ত্ব খাড়া করেছে পদ্মবাহিনী।

২০১৪ সালে প্রধানমন্ত্রীর কুর্সিতে বসার পর থেকেই একের পর এক রাজ্য দখলে অশ্বমেধের ঘোড়া ছোটান নরেন্দ্র মোদি। কেন্দ্র-রাজ্যে একই দলের সরকার, অর্থাৎ ডাবল ইঞ্জিনের সরকার গড়তে হবে বলে প্রচার করতেন। বঙ্গের ভোটের প্রচারে একই কৌশল নেয় গেরুয়া শিবির। ডাবল ইঞ্জিনের সরকার হলে রাজ্যের উন্নয়ন হিমালয়ের শিখরে পৌঁছবে বলে চিল চিৎকার জোরে দলের কেন্দ্রীয় ও রাজ্য নেতৃত্ব। দুই হাতে দুই লাড্ডুর তত্ত্বও শোনা যায় প্রধানমন্ত্রীর মুখে। কিন্তু বাংলার মাটি যে অন্য অনেক রাজ্যের তুলনায় শক্ত, তা হাড়ে হাড়ে টের পান মোদি, শাহ, নাড্ডারা। মোদির অশ্বমেধের ঘোড়া আটকে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। ডাবল ইঞ্জিন সরকারের প্রচারে আমল দেয়নি দক্ষিণের দুই রাজ্য কেরল (Keral) ও তামিলনাড়ুও (Tamilnadu)। পাঞ্জাবেও (Punjab)  লাইনচ্যুত হয় মোদির ডাবল ইঞ্জিন।

[আরও পড়ুন: হিন্দু মেয়ে বলেই শ্রদ্ধাকে খুন! লাভ জিহাদ রুখতে দেশে কঠিন আইন দরকার, মন্তব্য হিমন্তের]

পাহাড়ি রাজ্য হিমাচল প্রদেশে (Himachal Pradesh) ভোটগ্রহণ হয়ে গিয়েছে। সেখানে পাঁচ বছর ডাবল ইঞ্জিনের সরকার চলেছে। তারপরেও রাজ্য জয় নিয়ে যথেষ্ট চাপে গেরুয়া শিবির। এবার ভোট মোদির নিজের রাজ্যে। সেখানে রাজ্যের ক্ষমতায় থাকা পুরসভার গেরুয়া জনপ্রতিনিধিদের ট্রিপল ইঞ্জিনের সরকার হবে বলে প্রচার চালানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘চার তরুণী আমায় অপহরণ করে ধর্ষণ করেছে!’, শ্রমিকের বিস্ফোরক অভিযোগে শোরগোল]

পদ্ম নেতাদের যুক্তি, কেন্দ্রে ক্ষমতায় রয়েছে দল। রাজ্যে ক্ষমতায় আসা এখন সময়ের অপেক্ষা। কিন্তু নিচুতলায় উন্নয়নের কাজ করে স্থানীয় পুরসভা ও পঞ্চায়েত। রাজ্যের অধিকাংশ পুরসভা ও পঞ্চায়েতে পদ্মরাজ চলছে। তাঁরাও সরকারের অংশ। তাই গুজরাটের ক্ষেত্রে ট্রিপল ইঞ্জিনের সরকার বলাই যুক্তিযুক্ত। রাজ্যজুড়ে লিফলেট ছড়িয়ে ট্রিপল ইঞ্জিন সরকারের প্রচার করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আমেদাবাদ কর্পোরেশনের মেয়র কীর্তিকুমার পারমার। প্রচারে সরকারের কাজ এগিয়ে নিয়ে যেতে পুরসভার ভূমিকার উল্লেখ থাকছে বলে জানান তিনি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে