২৮ ভাদ্র  ১৪২৬  রবিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লোকসভা নির্বাচন চলাকালীন বাংলায় অশান্তি হচ্ছে বলে বারবার অভিযোগের সুর চড়িয়েছে বিজেপি৷ তারই মাঝে সন্ত্রাসের ছবি ধরা পড়ল যোগীর রাজ্য উত্তরপ্রদেশে৷ পোলিং অফিসারকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল খোদ গেরুয়া শিবিরের এক কর্মীর বিরুদ্ধে৷

[ আরও পড়ুন: জল্পনা সত্যি করে বিজেপিতেই যোগ দিলেন সানি দেওল]

তৃতীয় দফায় উত্তরপ্রদেশের মোরাদাবাদের ২৩১ নম্বর বুথে মঙ্গলবার সকাল থেকেই চলছে ভোটগ্রহণ৷ ওই বুথে পোলিং অফিসার হিসাবে নিযুক্ত ছিলেন মহম্মদ জুবেইর৷ বিজেপি নেতা-কর্মীদের অভিযোগ, ওই বুথের মহিলা ভোটাররা কাকে ভোট দেবেন, তা শিখিয়ে দিচ্ছিলেন পোলিং অফিসার৷ জোর করে তিনি সাইকেল চিহ্নে সমাজবাদী পার্টির প্রার্থীকে ভোট দেওয়ার জন্য ওই ভোটারদের প্রভাবিত করছিলেন বলেও অভিযোগ৷ এই অভিযোগে জোর করে ভোটগ্রহণ কেন্দ্রের ভিতরে ঢুকে পড়েন বিজেপি নেতা,কর্মীরা৷ বুথের ভিতরে প্রথমে তর্কাতর্কি হয়৷ বচসা চলাকালীন জোর করে বুথ থেকে টেনে বাইরে নিয়ে আসা হয় ওই পোলিং অফিসারকে৷ এরপর বুথের সামনে পুলিশের উপস্থিতিতেই তাঁকে বেধড়ক মারধর করা হয়৷ চড়, থাপ্পড়ের সেই ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে নেটদুনিয়ায়৷ নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্রহৃত ওই পোলিং অফিসারকে বুথ থেকে অন্যত্র সরিয়ে দেওয়া হয়েছে৷

[ আরও পড়ুন: ‘গোমূত্র পান করে আমার স্তন ক্যানসার সেরেছে’, আজব দাবি সাধ্বী প্রজ্ঞার]

এটাতেও সমাজবাদী পার্টির প্রার্থীকে ভোট দেওয়ার জন্য ভোটারদের উপর চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে বলেই অভিযোগ৷ যদিও সপা-র তরফ থেকে ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে৷ পালটা অখিলেশ যাদব টুইটে বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন৷ তাঁর অভিযোগ, ইভিএমে যান্ত্রিক কারসাজি করেছে বিজেপি৷ তাই ভোটারকে যে চিহ্ন টিপেই ভোট দিন না কেন, তা যাচ্ছে পদ্মফুলেই৷ অভিযোগ-পালটা অভিযোগের মাঝেই উত্তরপ্রদেশে চলছে ভোটাভুটি৷ বিক্ষিপ্ত অশান্তি ছাড়া মোটের উপর শান্তিপূর্ণ ভোটচিত্র যোগীর রাজ্য৷ 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং