৩ শ্রাবণ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

৩ শ্রাবণ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘ইট কা জবাব পত্থর সে।’ ইঙ্গিত ছিলই। এবার ২৯টি মার্কিন পণ্যে শুল্ক বসাতে চলেছে নরেন্দ্র মোদি ২.০ সরকার। রবিবার থেকে কার্যকর হচ্ছে এই সিদ্ধান্ত। আখরোট, বাদাম-সহ ভারতে রপ্তানি করা ২৯টি আমেরিকান পণ্য এদেশে ঢুকতে গেলে এবার থেকে দিতে হবে অতিরিক্ত কর।

[আরও পড়ুন: NRS কাণ্ডের প্রতিবাদ, ডাক্তারদের সঙ্গে পথে নামলেন রূপম-অনুপম]

গত বছরের মার্চে ভারত থেকে রপ্তানি হওয়া স্টিল ও অ্যালুমিনিয়ামে শুল্ক ১০ থেকে বাড়িয়ে ২৫ শতাংশ করে আমেরিকা। তার পালটা হিসাবেই ভারতও গত জুনে মার্কিন পণ্যে অতিরিক্ত কর বসানোর সিদ্ধান্ত নেয়। এরপরই ট্রাম্প সরকার তাদের কর ব্যবস্থা পুনর্বিবেচনা করার সিদ্ধান্ত নেয়। ফলে ভারতও নতুন কর বসানোর কাজ স্থগিত রাখে। তবে এখনও মার্কিন সরকার সিদ্ধান্ত বদল না করায় অর্থমন্ত্রক থেকে মার্কিন পণ্যে অতিরিক্ত করের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়িত হতে চলেছে। নতুন এই সিদ্ধান্তে প্রতি বছরে অতিরিক্ত ২১৭ মিলিয়ন মার্কিন ডলার (দেড় হাজার কোটি টাকা) অতিরিক্ত রাজস্ব আদায় হবে ভারতের। মোটের উপর প্রয়োজনে ভারত পালটা দিতে প্রস্তুত, তা এই সিদ্ধান্তে বুঝিয়ে দিল নয়াদিল্লি।

উল্লেখ্য, চিনের পর ভারতের সঙ্গেও পণ্যের শুল্ক নিয়ে বেশ চাপানউতোর চলছে ভারতের। আগেই ভারতের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের নানা বিষয় নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন স্বয়ং মার্কিন প্রেসিডেন্টের। আমেরিকা থেকে আমদানি করা মোটর সাইকেলের ওপর শুল্ক কমিয়ে অর্ধেক করেছে ভারত। আগে একশো শতাংশ শুল্ক নেওয়া হত। এখন নেওয়া হচ্ছে ৫০ শতাংশ। কিন্তু তাতেও খুশি নন ট্রাম্প। কয়েকদিন আগেই পরিবেশ সচেতনতা নিয়েও ভারতের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন। এদিকে, চিনের ভয়ে যেমন নয়াদিল্লিকে চটানো যাচ্ছে না, তেমনই মার্কিন স্বার্থ ক্ষুণ্ণ করতেও চাইছে না ট্রাম্প প্রশাসন। ফলে নরমে গরমে পরিস্থিতি সামাল দিতে মাঝে মাঝেই অসঙ্গতিপূর্ণ বয়ান দিয়ে ফেলছেন মার্কিন শীর্ষ আধিকারিকরা। ট্রাম্পের বিপরীতে গিয়ে আমেরিকার স্বরাষ্ট্র সচিব মাইক পম্পেও মোদির প্রশংসায় বুধবার বলেন, ‘মোদি হ্যায় তো মুমকিন হ্যায়।’ সব মিলিয়ে এই মুহূর্তে বেশ কিছুটা ঘোরালো হয়ে পড়েছে দিল্লি-ওয়াশিংটন সম্পর্ক।

[আরও পড়ুন: আকাশসীমা বন্ধের সময়সীমা আরও বাড়াল পাকিস্তান]  

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং