৩১ ভাদ্র  ১৪২৬  বুধবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

তপন বকসি: ফের বাড়ি ভেঙে মৃত্যু হল মহারাষ্ট্রে। মুম্বইয়ের কাছে ভিওয়ান্ডির শান্তি নগর এলাকায় শনিবার ভোরে একটি বহুতল ভেঙে পড়ে। তাতে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে এখনও পর্যন্ত খবর। তাঁদের নাম সিরাজ আহম্মদ আনসারি (২৬), আখিব আনসারি (২২)। ৪ জনকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। যদিও ভাঙা বহুতলের নিচে আরও অনেকে চাপা পড়ে রয়েছেন বলে অনুমান।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার ভোররাতে মুম্বইয়ের কাছে শান্তিনগর এলাকায় চার তলা একটি বাড়ি ভেঙে পড়ে। সেটির বয়স হয়েছিল আট বছর। ঘটনার খবর পাওয়া মাত্রই সেখানে পৌঁছয় জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরের একটি দল। উদ্ধার কাজ শুরু করে তারা। এখনও পর্যন্ত ২ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গিয়েছে। ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে ৪ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। এখনও পর্যন্ত ধ্বংসস্তূপের নিচে প্রায় ১৫ জন চাপা পড়ে রয়েছেন বলে খবর। উদ্ধারকাজ এখনও চলছে। জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরের সঙ্গে উদ্ধার কাজে হাত লাগিয়েছেন দমকল কর্মীরাও। আহতদের ভিওয়ান্ডির ইন্দিরা গান্ধী স্মৃতি হসপিটালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

[ আরও পড়ুন: রাজ্যে বিধানসভা উপনির্বাচনে জোট বেঁধে লড়বে বাম-কংগ্রেস, প্রস্তাবে সিলমোহর সোনিয়ার ]

ভিওয়ান্ডি-নিজামপুর মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের কমিশনার অশোক রাংকহাম্ব জানিয়েছেন, শান্তিনগরে বহুতল ভেঙে পড়ার খবর পেয়েছেন তাঁরা। জরুরি ভিত্তিতে উদ্ধার কাজ শুরু করা হয়েছে। প্রশাসনের তরফেও ঘটনাস্থলে একটি দল পাঠানো হয়েছে। বহুতলের যে অংশগুলি এখনও ভেঙে পড়েনি সেখান থেকে লোকজনকে বের করে আনা হচ্ছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। তবে কেন বহুতল ভেঙে পড়েছে, এই নিয়ে স্পষ্টভাবে পুলিশ বা প্রশাসন এখনও কিছু জানাতে পারেনি।

কিছুদিন আগে মহারাষ্ট্রের ডোংরির বহুতল ভেঙে মৃত্যু হয় ১৪ জনের৷ গত মাসের গোড়ার দিকে ঘটনাটি ঘটে। হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে টান্ডেল স্ট্রিটের কেশরীবাই বিল্ডিংয়ের একটি অংশ৷ এরপরই এলাকার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়৷ বাড়িটির ভিতরে প্রচুর মানুষের বসবাস৷ তাঁদের মধ্যে বেশিরভাগই ধ্বংসস্তূপের তলায় আটকে পড়েন। যদিও উদ্ধারকারী দল তাঁদের অনেককেই উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

[ আরও পড়ুন: তিরুপতির বাসের টিকিটে হজ যাত্রার বিজ্ঞাপন, হায়দরাবাদ জুড়ে বিতর্ক তুঙ্গে ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং