BREAKING NEWS

২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

পিপিই কিট পরে সোজা কোভিড কেয়ার সেন্টারে বিজেপি বিধায়ক! নিয়মভঙ্গের অভিযোগ দায়ের

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: August 4, 2020 2:20 pm|    Updated: August 4, 2020 4:13 pm

Case filed Against Tripura BJP MLA Sudip Roy Barman After he Visit To Covid Centre In PPE Suit

‌সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ বিপাকে ত্রিপুরার (Tripura) বিজেপি বিধায়ক এবং প্রাক্তন স্বাস্থ্যমন্ত্রী সুদীপ রায় বর্মণ (Sudip Roy Barman)। বিনা অনুমতিতে কোভিড কেয়ার সেন্টারে প্রবেশ এবং মহামারী নিয়ম ভাঙার জন্য তাঁর বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রনোদিত হয়ে মামলা রুজু করা হয়েছে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে। রবিবার সন্ধ্যায় পিপিই (PPE) কিট পরে কোভিড কেয়ার সেন্টার ঢুকে পড়েন তিনি। কারণ ওই কোভিড কেয়ার সেন্টারের এক রোগী সম্প্রতি সেখানকার ব্যবস্থাপনা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিযোগ করেছিলেন। তা খতিয়ে দেখতেই সেখানে গিয়ে সরাসরি ভিতরে ঢুকে যান বিধায়ক। আর এরপরই তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয়। পাশাপাশি তাঁকে সাত দিনের ইনস্টিটিউশনাল কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশও দিয়েছে পশ্চিম ত্রিপুরা জেলা প্রশাসন।

[আরও পড়ুন: চিত্তরঞ্জন রেল কারখানা থেকে চুরি যন্ত্রাংশ, গ্রেপ্তার ৭ আরপিএফ কর্মী]

জানা গিয়েছে, রবিবার সকালে ভগৎ সিং যুব আবাস কোভিড কেয়ার সেন্টারের (COVID Care Centre) এক রোগী সেখানকার ব্যবস্থাপনা নিয়ে সোশ্যা‌ল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। রাজ্য সরকারের সাহায্যও চান। এরপরই গোটা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে সেখানে যান সুদীপ রায়বর্মণ। তবে তিনি একা নন, সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিরাও সেখানে উপস্থিত ছিলেন। এরপর পিপিই কিট পরে সোজা ভিতরে ঢুকে যান। কোনওপ্রকার অনুমতির তোয়াক্কা না করে। কথা বলেন সেখানকার রোগীদের সঙ্গে। তাঁদের হাতে ফল তুলে দেন।

[আরও পড়ুন: জাতীয় ঐক্যের উৎসব হয়ে উঠুক রাম মন্দিরের ভূমিপুজো, বিরোধিতা ভুললেন প্রিয়াঙ্কা গান্ধী]

এরপরই তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হয় জেলা প্রশাসনের তরফে। পাশাপাশি তাঁকে ৭ দিনের জন্য কোয়ারেন্টাইনে যাওয়ারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। যদিও বিজেপি বিধায়ক জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি কোয়ারেন্টাইনে যাবেন না। তাঁর কথায়, এটা পুরোটাই চক্রান্ত। কারণ তা না হলে কী করে জেলা প্রশাসনের নির্দেশ তাঁর কাছে আসার আগে সংবাদমাধ্যমের কাছে চলে গেল?

যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন জেলাশাসক সন্দীপ এন মাহাত্ম্যে। তার অভিযোগ প্রশাসনের অনুমতি না নিয়েই স্বাস্থ্য বিধি না মেনেই বিধায়ক সুদীপ রায় বর্মণ কোভিড সেন্টারে ঢুকে পড়েছেন। এর জন্যই তাঁকে সাত দিনের কোয়ারেন্টাইনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু এই নির্দেশ মানতে অস্বীকার করেছেন শ্রীবর্মণ। এনিয়ে দেখা দিয়েছে রাজ্যজুড়ে ব্যাপক বিতর্ক। ইতিমধ্যে বিজেপির মুখপাত্র নবেন্দু ভট্টাচার্যের পক্ষ থেকে সুদীপ রায় বর্মণকে বিধায়ক পদ ছাড়তে আর্জি জানানো হয়েছে। তার কেন্দ্রে উপনির্বাচনের জন্য বিজেপি প্রস্তুত বলেও তিনি জানিয়েছেন। যদিও বিধায়ক শ্রীরায় বর্মণ পদ ছাড়বেন না বলে জানিয়েছেন। সব মিলিয়ে করোনা পরিস্থিতিতে বিধায়ক শ্রী রায় বর্মণের একের পর এক দল বিরোধী কার্যকলাপে ক্ষুব্ধ বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব।‌

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে