BREAKING NEWS

১৩  আষাঢ়  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বিজ্ঞাপনে ভুল তথ্য দেখানো বন্ধ করুন, ক্রেতা সুরক্ষার রোষানলে নামী টুথপেস্ট সংস্থা

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: March 22, 2022 6:41 pm|    Updated: March 22, 2022 9:31 pm

CCPA Imposes 10 Lakh rupees Penalty On Sensodyne's Misleading Advertisements | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গোটা বিশ্বের চিকিৎসকরা এই দাঁতের মাজনকেই ব্যবহার করতে বলেন, বিশ্বের এক নম্বর ‘সেনসিটিভিটি টুথপেস্ট’। দীর্ঘদিন যাবৎ এই ভাষাতেই বিজ্ঞাপন করে আসছে বিখ্যাত দাঁতের মাজন সেনসোডাইন (Sensodyne)। এবার কেন্দ্রীয় ক্রেতা সুরক্ষার (Central Consumer Protection Authority) রোষানলে পড়ল এই নামী টুথপেস্ট কোম্পানি। নির্দিষ্ট বিজ্ঞাপনটিকে তুলে নিতে বলা হল। বিভ্রান্তিকর বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে ভুল বার্তা ছড়ানোর দায়ে কোম্পানিটিকে ১০ লক্ষ টাকা জরিমানাও করা হয়েছে।

যুগ বদলের হাওয়ায় বিজ্ঞাপনই সব। পণ্যটি ভাল বা মন্দ যাই হোক, বিজ্ঞাপন লাগসই না হলে বাজারে কাটে না। ফলে সংবাদপত্র হোক বা টেলিভিশন কিংবা ইউটিউব বিজ্ঞাপন, সবখানে বড়বড় দাবি করাই ট্রেন্ড। ক্রেতারা এখন আয়ুর্বেদ খাচ্ছে, ফলে মোটের উপর সব টুথপেস্টই দাবি করে তাদের টুথপেস্ট প্রকৃতিক উপাদানে তৈরি। কোনওরকম ক্যামিক্যাল নেই। এক্ষেত্রে সামান্য ভিন্ন দাবি করতে দেখা যায় সেনসোডাইনকে। সেই দাবির কারণেই অস্বস্তিতে পড়ল কোম্পানিটি।   

[আরও পড়ুন: কংগ্রেসকে বাদ দিয়েই বিরোধী জোটের নিদর্শন রাজ্যসভায়! নেতৃত্বে তৃণমূল]

মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় উপভোক্তা সুরক্ষা কর্তৃপক্ষ একটি বিবৃতিতে জানিয়েছে, সেনসোডাইন তাদের বিজ্ঞাপনে দাবি করে, গোটা বিশ্বের চিকিৎসকরা তাদের দাঁতের মাজনটিকেই ব্যবহার করতে বলেন, সেটিই বিশ্বের এক নম্বর দাঁতের মাজন। বিজ্ঞাপনের এই তথ্য বিভ্রান্তিকর। ফলে আগামী সাতদিনের মধ্যে ওই বিজ্ঞাপন বন্ধ করতে বলা হয়েছে কোম্পানিটিকে। এই সঙ্গে ভুল তথ্য ছড়ানোর দায়ে ১০ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

উল্লেখ্যে, আগে একবার সিসিপিএ (CCPA) কোম্পানিটিকে বিদেশি চিকিৎসকদের মন্তব্য করা বিজ্ঞাপনটি বন্ধ করতে বলেছিল। চলতি বছরে ৯ ফেব্রুয়ারিতে ওই নির্দেশ জারি করা হয়। যদিও তারপরেও তা তুলে নেওয়া হয়নি। মঙ্গলবার সিসিপিএ প্রধান নিধি খেরে (Nidhi Khare) বলেন, সেনসোডাইনের বিরুদ্ধে নির্দেশ জারি করা হয়েছে। তাদের বিভ্রান্তিকর বিজ্ঞাপন তুলে নিতে বলা হয়েছে। ১০ লক্ষ টাকা জরিমান করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: রামপুরহাট কাণ্ডে রিপোর্ট তলব স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের, রাজ্যে আসছে কেন্দ্রীয় দলও]

কেন্দ্রীয় উপভোক্তা সুরক্ষা কর্তৃপক্ষ নির্দেশে বলা হয়েছে টিভি, ইউটিউব, ফেসবুক এবং টুইটার থেকে আগামী সাতদিনের মধ্য বিজ্ঞাপন তুলে নিতে হবে কোম্পানিকে। সিসিপিএ-র বক্তব্য, কোম্পানিটি তাদের বিজ্ঞাপনে যে দাবি করেছে, তার স্বপক্ষে কোনও প্রমাণ নেই। সেই কারণেই তাদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। যদিও দীর্ঘদিন বিজ্ঞাপনটি চলার পর এখন কেন সেনসোডাইনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে, তার ব্যাখ্যা মেলেনি।  

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে