BREAKING NEWS

১৭ জ্যৈষ্ঠ  ১৪৩০  বৃহস্পতিবার ১ জুন ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

বন্ধ হচ্ছে না কোনও রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক, জল্পনা ওড়াল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 23, 2017 3:57 am|    Updated: December 23, 2017 3:57 am

Centre, RBI rubbishes rumours about closure of PS banks

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কয়েকটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। ক্ষতির বহর কমাতেই নাকি এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। গত কয়েকদিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে বার্তা। কিন্তু খবরটি পুরোপুরি ভিত্তিহীন বলে জানিয়ে দিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া। একই কথা জানিয়েছে কেন্দ্র সরকারও। কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক সাফ জানিয়েছে, তারা ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থা সংস্কারে কয়েকটি পদক্ষেপ করেছে ঠিকই। কিন্তু ব্যাঙ্কগুলির দৈনন্দিন ও স্বাভাবিক কাজে ব্যাঘাত ঘটবে না। তা আগের মতোই চলবে।

[বর্ষবরণের টানে চোরাপথে এ রাজ্যে ঢুকছে বাংলাদেশি বারবনিতারা]

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারিত বার্তার ভিত্তিতে সাধারণ গ্রাহকদের মধ্যে বিভ্রান্তি ছড়িয়েছিল। তা দেখেই তড়িঘড়ি আসরে নামে আরবিআই। কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক সম্প্রতি প্রম্পট কারেকটিভ অ্যাকশন (পিসিএ) ব্যবস্থার মধ্যে আনা হয়েছে ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া, ইউনাইটেড ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার মতো রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ককে। আগে একই নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল আইডিবিআই ব্যাঙ্ক, ইন্ডিয়ান ওভারসিজ ব্যাঙ্ক ও ইউকো ব্যাঙ্কের ক্ষেত্রেও। অর্থাৎ সেগুলির আর্থিক স্বাস্থ্য ফেরাতে কয়েকটি নজরদারি ব্যবস্থা চালু হয়েছে। তারা আরবিআই-এর অনুমোদন না নিয়ে নির্দিষ্ট কয়েকটি পদক্ষেপ করতে পারবে না। কিন্তু তাতে সাধারণ গ্রাহক কোনও অসুবিধায় পড়বেন না। ব্যাহত হবে না ব্যাঙ্কের দৈনন্দিন কাজকর্মও।

আরবিআই-এর মতো কেন্দ্রও প্রচারিত বার্তাকে গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছে। কেন্দ্রের দাবি, তারা রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলিকে আরও মজবুত করতে চায়। আর্থিক পরিষেবা বিষয়ক সচিব রাজীব কুমার টুইট করে জানান, ‘কোনও ব্যাঙ্ক বন্ধ করার প্রশ্নই নেই। সরকার ২.১১ লক্ষ কোটি টাকা দিয়েছে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলির হাল ফেরাতে। গুজবে কান দেবেন না।’ তবে আর্থিক স্বাস্থ্য ভালো এমন ব্যাঙ্কের সঙ্গে বেহাল ব্যাঙ্কগুলিকে মিশিয়ে দেওয়ার পথ খুঁজতে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলির নেতৃত্বে গত মাসে তিন সদস্যের মন্ত্রিগোষ্ঠী গঠিত হয়েছে। পাশাপাশি কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী জানিয়ে দেন ২০০০ টাকার নোট তুলে নেওয়ার কোনও পরিকল্পনাই নেই। গোটাটাই অপপ্রচার।

[বারবার মৃত্যুর স্বপ্ন দেখছেন? কেন হচ্ছে এমনটা?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে