১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শুক্রবার ৩ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

অনেক হয়েছে আর সহ্য করব না, জঙ্গিদের কড়া হুঁশিয়ারি মোদির

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: March 10, 2019 5:04 pm|    Updated: March 10, 2019 5:04 pm

PM slams Pakistan at CISF Raising Day.

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: “অনেক হয়েছে, অনন্তকাল ধরে আমরা সহ্য করতে পারব না।” সিআইএসএফ-এর ৫০তম প্রতিষ্ঠা দিবসে বক্তব্য রাখতে গিয়ে জঙ্গিদের সর্তক করে একথাই বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পাকিস্তানকে উদ্দেশ্য করে তিনি আরও বলেন, “যুদ্ধ করতে অক্ষম প্রতিবেশী যখন শত্রু হয়, ষড়যন্ত্র করে দেশকে ভিতর থেকে ভাঙার চেষ্টা করে। জঙ্গিদের আশ্রয় ও মদত দিয়ে বিভিন্ন সন্ত্রাসবাদী কাজকর্ম চালায় তখন দেশরক্ষার কাজে সিআইএসএফ-এর মতো নিরাপত্তা বাহিনীর ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে।”

পাকিস্তান ও তাদের মদতপুষ্ট জঙ্গিদের পাশাপাশি দেশের নিরাপত্তা বাহিনীর কাছে ভিআইপি কালচারও বড় চ্যালেঞ্জ বলে মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রী। অনেক সময় ভিআইপিদের আচরণের জন্য নিরাপত্তা কর্মীদের সমস্যায় পড়তে হয় বলেও উল্লেখ করেন। বলেন, “একজনকে সুরক্ষা দেওয়া কোনও সমস্যার বিষয় নয়। কিন্তু, একটি প্রতিষ্ঠান যেখানে প্রচুর মানুষ আসেন যাদের প্রত্যেকের মুখমণ্ডল আলাদা, আচরণ আলাদা। সেই প্রতিষ্ঠানকে নিরাপত্তা দেওয়া অনেক বড় কাজ। আর আপনাদের সবথেকে বড় সমস্যা হল আমাকে বা আমাদের মতো ক্ষমতার অলিন্দে থাকা মানুষরা। যারা নিজেদের ভিআইপি ভাবে তাঁদের সুরক্ষা দেওয়া। এই মানুষগুলোকে যখন আপনারা কোনও কারণে বিমানবন্দরে আটকান তখন তাঁরা হতাশ হয়ে পড়েন। এই সংস্কৃতি অনেক সময়ই খুব বড় সমস্যা তৈরি করে।”

[জঙ্গিসুলভ আচরণ মোদির, রাহুলের সামনেই বিতর্কিত মন্তব্য কংগ্রেস নেত্রীর]

সিআইএসএফের প্রতিষ্ঠা দিবসে এসে কর্তব্যরত অবস্থায় মৃত পুলিশ কর্মীদের প্রতিও শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন নরেন্দ্র মোদি। বলেন, “আমি আন্তরিক ভাবে মনে করি যে যারা খাকি পোশাক পড়েন তাঁদের অক্লান্ত পরিশ্রম ও আত্মত্যাগ এদেশে প্রশংসিত ও পুরস্কৃত হয়নি। সিআইএসএফ, সিআরপিএফ-সহ সমস্ত নিরাপত্তা বাহিনীর জওয়ানদের দৃঢ় প্রত্যয় ও আত্মত্যাগের ফলেই আজ নতুন ভারত গড়ার স্বপ্ন দেখতে পারছি আমরা।”

[‘বড়মাকে খুন করেছেন জ্যোতিপ্রিয়’, বিস্ফোরক অভিযোগ শান্তনু ঠাকুরের]

বিভিন্ন বিমানবন্দর ও মেট্রো স্টেশনগুলিতে সিআইএসএফ-এর ইতিহাস সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করতে ডিজিটাল মিউজিয়াম তৈরি করারও পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী। উপস্থিত অতিথিদের আশ্বস্ত করে বলেন, “বিমানবন্দর ও মেট্রো স্টেশনগুলোতে আমরা সিআইএসএফ সম্পর্কিত ডিজিটাল মিউজিয়াম তৈরি করতে চাই। যেখানে সিআইএসএফ কীভাবে তৈরি হল? মানুষের থেকে তারা কী চায়? দেশের নিরাপত্তার জন্য দিনরাত কীভাবে তারা পরিশ্রম করে? তা মানুষ জানতে পারবেন। সিআইএসএফ জওয়ানদের আত্মত্যাগকে শ্রদ্ধা জানাবেন। এই মিউজিয়াম তৈরির জন্য সম্পূর্ণ সহযোগিতা করব আমি।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে