BREAKING NEWS

১২  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ২৭ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

নাবালক সন্তান মা-বাবার সঙ্গে নাও থাকতে চাইতে পারে: দিল্লি হাই কোর্ট

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: April 29, 2017 7:56 am|    Updated: April 29, 2017 7:56 am

Children have the liberty to choose not to live with their parents: Delhi HC

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রত্যেক মানুষের মৌলিক অধিকার রয়েছে৷ তা সে সাবালক হোক বা নাবালক৷ সকলের ইচ্ছে-অনিচ্ছের মূল্য রয়েছে৷ সন্তান নাবালক তার মানে এই নয় যে বাবা-মা’র সিদ্ধান্ত তাকে মেনে নিতে হবে৷ নাবালক সন্তান চাইলে বাবা-মা দু’জনের সঙ্গেই না থাকার সিদ্ধান্ত নিজে থেকে নিতে পারে৷ সম্প্রতি এই কথা জানিয়ে দিল দিল্লি হাই কোর্ট৷

[শহিদ জওয়ানদের পরিবারকে দত্তক নেবেন আইএএস আধিকারিকরা]

১৫ বছরের এক নাবালিকার মামলার পরিপ্রেক্ষিতে এই কথা জানায় বিচারপতি বিপিন সাংঘি ও দীপা শর্মার ডিভিশন বেঞ্চ৷ ঘটনার সূত্রপাত হয়েছিল গত বছরের জুলাই মাসে৷ তখনই ৩২ বছরের এক ব্যক্তিকে ভালবেসে ঘর ছেড়েছিল ওই নাবালিকা৷ প্রেমিকের আসল বাড়ি মথুরায়৷ সেখানেই আলাদা ঘর ভাড়া করে থাকছিল সে৷ প্রতি সপ্তাহে প্রেমিক এসে তাকে বাজারের সামগ্রী দিয়ে যেত৷ এমনকী বিয়ে করার কথাও ছিল তাদের৷ কিন্তু ইতিমধ্যেই পুলিশ নাবালিকার খোঁজ পেয়ে যায়৷ তাকে আটক করে রাখা হয় হোমে৷

[ফের ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করে চিনকে অসম্মান করেছে উত্তর কোরিয়া: ট্রাম্প]

মামলাটি এপ্রিল মাসে ওঠে দিল্লি হাই কোর্টে৷ মেয়ের দায়িত্ব চান নাবালিকার বাবা৷ কিন্তু মেয়েটি কিছুতেই বাবা-মা’র কাছে যেতে রাজি হয় না৷ বাড়িতে গেলে তার প্রাণসংশয় হতে পারে মনে করছে সে৷ এই মর্মে গোপন জবানবন্দিও পুলিশের কাছে দিয়েছে নাবালিকা৷ এই পরিপ্রেক্ষিতেই আদালত এই কথা বলে৷  হাই কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ জানায়, নাবালিকার সম্পূর্ণ অধিকার রয়েছে কোথায় সে থাকবে সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার৷ বাবা-মা’র কাছে সে নাই থাকতে পারে৷ এই বিষয়ে যদি নাবালিকার বাবার আবার আবেদন জানানোর থাকে৷ তিনি জেলা দায়রা আদালতে তা করতে পারেন৷ তবে শেষ সিদ্ধান্ত কন্যাই নেবে৷ আপাতত সরকারি হোমেই থাকবে সে৷ হ্যাঁ, বাবা-মা চাইলে তার সঙ্গে সপ্তাহে একদিন দেখা করে আসতে পারেন৷ কিন্তু সর্বশেষ সিদ্ধান্ত নাবালিকারই হবে৷

[অন্ডালে পথ দুর্ঘটনায় একই পরিবারের ৪ জনের মৃত্যু, আহত ১]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে