২৪ বৈশাখ  ১৪২৮  শনিবার ৮ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ফের ভারতের জমিতে অনুপ্রবেশ, প্যাংগং হ্রদের দক্ষিণে গ্রেপ্তার চিনা সৈনিক

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: January 9, 2021 3:10 pm|    Updated: January 9, 2021 3:13 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতের জমিতে অনুপ্রবেশের জন্য গ্রেপ্তার চিনা ফৌজের জওয়ান। সূত্রের খবর, পথ ভুলে প্যাংগং হ্রদের দক্ষিণে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা (LAC) পেরিয়ে ভারতের সীমানায় ঢুকে পড়ে লালফৌজের ওই জওয়ান। তাঁকে জেরা করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: ‘উন্মাদ’ ট্রাম্পের হাত থেকে আণবিক অস্ত্রের নিয়ন্ত্রণ সরানোর দাবি পেলোসির]

ভারতীয় সেনা সূত্রে খবর, শুক্রবার পূর্ব লাদাখে চুশুল সেক্টরের অন্তর্গত প্যাংগং হ্রদের দক্ষিণ পাড়ে চিনা ফৌজের ওই সৈনিককে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁকে জেরা করছে সেনার গোয়েন্দা বিভাগ। অন্তর্জাতক আইন ও দুই দেশের মধ্যে সীমান্ত সংক্রান্ত চুক্তি মেনেই এই ক্ষেত্রে পরবর্তী পদক্ষেপ করা হবে। এদিকে, সূত্রের খবর, আজ বা আগামীকাল অর্থাৎ রবিবার ওই সিপাহীকে চিনা কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দিতে পারে ভারতীয় সেনাবাহিনী। প্রসঙ্গত, গত অক্টোবর মাসেও লাদাখের ডেমচক এলাকায় ওয়াং ইয়া লং নামের এক চিনা সৈনিককে গ্রেপ্তার করা হয়। যদিও জিজ্ঞাসাবাদ শেষে তাঁকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এবারও ফের চিনা সৈনিকের অনুপ্রবেশে রীতিমতো উদ্বিগ্ন প্রতিরক্ষা মহল। বিশ্লেষকদের ধারণা, ভারতীয়ও জমি থেকে এখনই সরতে রাজি নয় চিনারা। বরং লাগাতার আগ্রাসন ও অনুপ্রবেশ চালিয়ে ভারতের প্রত্যুত্তর কেমন হতে পারে সেই বিষয়ে জানতে চাইছে বেজিং।

উল্লেখ্য, পূর্ব লাদাখে ভারত ও চিনের মধ্যে সংঘাতের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র হচ্ছে প্যাংগং হ্রদে (Pangong Tso)। দক্ষিণ পাড়ে খুব অল্প দূরত্বে মুখোমুখি দাঁড়িয়ে ভারত ও চিনের ফৌজ। গত মার্চ মাস থেকেই প্যাংগং হ্রদের উত্তর পাড়ে আগ্রাসন চালিয়ে আসছিল চিনা বাহিনী (PLA)। ১৫ জুনের সংঘর্ষের পর দুই দেশের মধ্যে সেনা প্রত্যাহার নিয়ে বেশ কয়েক দফা আলোচনা হলেও কাজের কাজ কিছু হয়নি। প্রতিবারই ভারতের সঙ্গে বেইমানি করেছে চিন। বৈঠকের টেবিলে একরকম কথা আর বাস্তবে অন্যরকম কাজ, এটাই নীতি হয়ে দাঁড়িয়েছে চিনা বাহিনীর। এর মধ্যে আবার গত ২৯ এবং ৩০ আগস্ট চিনারা ভারতীয় সীমান্তে ঢোকার চেষ্টা করেছিল। যা ভারত প্রতিহত করেছে। কিন্তু তারপর থেকেই প্যাংগংয়ের দক্ষিণ প্রান্তে ক্রমাগত প্ররোচনামূলক পদক্ষেপ করে চলেছে চিনারা। দ্বিপাক্ষিক চুক্তি না মেনে একেবারে ভারতীয় সেনার ঢিলছোঁড়া দুরত্বে সেনা মোতায়েন করেছে ড্রাগন। সুত্রের খবর, প্যাংগংয়ের দক্ষিণ উপকূলে গুরুং এবং মগর পাহাড়ের মাছে স্প্যাঙ্গুর গ্যাপে (Spanggur Gap) দুই দেশের সেনা শ্যুটিং রেঞ্জের মধ্যে চলে এসেছে। এবং চিনারা যেভাবে প্ররোচনা দিচ্ছে তাতে যে কোনও সময় সংঘর্ষের পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে।

[আরও পড়ুন: আমেরিকাই পিয়ংইয়ংয়ের সবথেকে বড় শত্রু, বিডেনের শপথের আগেই তোপ কিম জং উনের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement