BREAKING NEWS

১৯ শ্রাবণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ৫ আগস্ট ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

চিরাগ পাসওয়ানের বিরুদ্ধে ‘বিদ্রোহ’ ৫ LJP সাংসদের, কলকাঠি নেড়েছেন নীতীশ?

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: June 14, 2021 3:50 pm|    Updated: June 14, 2021 5:20 pm

Chirag Paswan in bog as party members revolt | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাতারাতি বিদ্রোহে কোণঠাসা চিরাগ পাসওয়ান (Chirag Paswan)। একাধিক কারণ দেখিয়ে তাঁর সঙ্গ ত্যাগ করার কথা ঘোষণা করেছেন ‘লোক জনশক্তি পার্টি’র (LJP) পাঁচ সাংসদ। বিক্ষুব্ধদের বক্তব্য, চিরাগকে দলনেতা হিসেবে মানবেন না তাঁরা। সেই জায়গায় নতুন কাউকে দায়িত্ব দিতে হবে। দলকে বাঁচাতেই তাঁদের এই পদক্ষেপ।

[আরও পড়ুন: ফের যোগীরাজ্যে আক্রান্ত মুসলিম প্রৌঢ়, বেধড়ক মারের পর কেটে নেওয়া হল দাড়িও]

চিরাগ পাসওয়ান-সহ লোকসভায় এলজেপি’র ৬ জন সাংসদ রয়েছেন। জানা গিয়েছে, তার মধ্যে পাঁচজনই ‘বিদ্রোহ’ ঘোষণা করেছেন। ফলে দলের রাশ এখন আর চিরাগের হাতে নেই বললেই চলে। জানা গিয়েছে, বিদ্রোহীদের মধ্যে রয়েছেন চিরাগের তুতো ভাই প্রিন্স রাজ, চন্দন সিং, বীণা দেবী, মেহবুব আলি কাইজার এবং চিরাগের কাকা পশুপতি কুমার পরশ। সূত্রের খবর, যেভাবে দল পরিচালনা করছেন চিরাগ, তাতে খুশি নন ওই পাঁচজন। পরিস্থিতি এতটাই সঙ্গীন যে গত বছর রামবিলাস পাসওয়ানের মৃত্যুর পর থেকে এলজেপির শীর্ষপদে কার্যত একঘরে হয়ে গিয়েছেন চিরাগ। তারইমধ্যে নরেন্দ্র মোদীর বর্ধিত মন্ত্রিসভায় কে ঠাঁই পাবেন, তা নিয়ে চাপানউতোর চলছে। সেই পরিস্থিতিতে ওই পাঁচ সাংসদ লোকসভার স্পিকার ওম বিড়লার কাছে চিঠি দিয়ে আরজি জানিয়েছেন, তাঁদের এলজেপির ‘প্রকৃত’ নেতা হিসেবে বিবেচনা করা হোক।

বিশ্লেষকদের একাংশের মতে, এই ঘটনাবলির নেপথ্যে রয়েছে বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমারের হাত। চিরাগ পাসওয়ানকে কোণঠাসা করতেই এই ছক তৈরি করেছেন তিনি। কারণ, ২০২০ সালের বিহার বিধানসভা নির্বাচনে নীতীশ কুমারের পার্টি ‘জনতা দল (ইউনাইটেড)-এর বিপর্যয়ে হাত ছিল চিরাগের। ভোটের আগেই এনডিএ জোট ছেড়ে আলাদা নির্বাচন লড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন চিরাগ। ফলে ভোট কাটাকুটির অঙ্কে বিহারে বিজেপি, আরজেডি’র পর জায়গা পায় নীতীশের দল। এবার সেই হারের বদলা নিয়েছেন তিনি। তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে, এদিন সকালে নীতীশকে ‘বিকাশ পুরুষ’ বলে উল্লেখ করেন এলজেপি’র বিদ্রোহী সাংসদ পশুপতি কুমার পরশ। একইসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন যে তাঁরা এনডিএ’র সঙ্গেই আছেন। সূত্রের খবর, আগামিদিনে জেডিইউকে সমর্থন করতে পারেন ‘বিদ্রোহী’ সাংসদরা। সেক্ষেত্রে মোদীর মন্ত্রিসভায় চিরাগের কাকার অন্তর্ভুক্তির ক্ষেত্রে নীতিশের দল বিরোধিতা নাও করতে পারে বলে সূত্রের খবর।

[আরও পড়ুন: ‘মেরে ফেলবে মাফিয়ারা,’ পুলিশে অভিযোগ জানানোর পরেই উত্তরপ্রদেশে ‘দুর্ঘটনা’য় মৃত সাংবাদিক]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement