BREAKING NEWS

৬ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

উত্তাল বঙ্গোপসাগর, হ্যাভলকে ব্যাহত উপকূলরক্ষী বাহিনীর উদ্ধারকাজ

Published by: Tanujit Das |    Posted: December 16, 2018 10:01 am|    Updated: December 16, 2018 1:06 pm

 Coastal Force's rescue operation disrupted in Havlok Island

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: খবর আসার পর প্রায় ২৪ ঘণ্টা অতিক্রান্ত৷ কিন্তু খারাপ আবহাওয়া ও সমুদ্র উত্তাল থাকায় এখনও উদ্ধার করা গেল না হ্যাভলক দ্বীপে আটকে পড়া অধিকাংশ পর্যটককে৷ সূত্রের খবর, শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত মাত্র ৩০৮ জনকেই উদ্ধার করতে পেরেছে উপকূলরক্ষী বাহিনীর উদ্ধারকারী দল৷ বাকিরা এখনও আটকে রয়েছেন হ্যাভলক দ্বীপেই৷ উদ্ধারকার্যে গতি আনতে রবিবারও আরও তিনটি ভ্যাসেল রওনা দিচ্ছে হ্যাভলকের উদ্দেশে৷ দ্রুততার সঙ্গে বেশি সংখ্যক মানুষকে ওই দ্বীপ থেকে বের করে আনাই এখন সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ উদ্ধারকারীদের কাছে৷

[পুরসভার নির্দেশে অযোধ্যায় ভাঙা পড়বে শতাধিক মন্দির!]

বঙ্গোপসাগরে খারাপ আবহাওয়ার জেরে ঘুরতে গিয়ে আন্দামানের হ্যাভলক দ্বীপে আটকে পড়েছেন অন্তত ১২০০ জন বাঙালি পর্যটক৷ আটকে রয়েছেন আরও বেশ কয়েকজন অন্য রাজ্যের পর্যটকও৷ অনেক চেষ্টায় শুক্রবার প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করতে সফল হন তাঁরা৷ খবর পাওয়া মাত্রই উদ্ধারকার্যে তৎপর হয় প্রশাসন৷ ঘটনাস্থলে যায় উপকূলরক্ষী বাহিনী৷ শনিবারই হ্যাভলকের উদ্দেশ্যে রওনা দেয় দু’টি বড় ভ্যাসেল৷ বঙ্গোপসাগরে খারাপ আবহাওয়ার জন্য যেহেতু বিমান চলাচল বন্ধ, তাই ভ্যাসেলে করে পর্যটকদের পোর্ট ব্লেয়ারে নিয়ে আসার পরিকল্পনা ছিল উদ্ধারকারীদের৷ সূত্রের খবর, সমুদ্র উত্তাল থাকায় পর্যটকদের পোর্ট ব্লেয়ার পর্যন্ত নিয়ে আসাও কষ্টকর হয়ে দাঁড়ায়৷ এমনকী, বেশি সংখ্যক পর্যটককে ভ্যালেসে তুলতেও ভয় পান তাঁরা৷ ফলে শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত হাতে গোনা কয়েকজন পর্যটককেই উদ্ধার করা গিয়েছে৷ তাঁদের নিয়ে আসা হয়েছে পোর্ট ব্লেয়ারে৷ রবিবার সকালে আবহাওয়ার একটু উন্নতি হলে আবারও উদ্ধার কাজ শুরু হলে বলে জানা গিয়েছে৷

[‘টাইপিং এরর’ সংশোধন, ফের রাফালে নিয়ে সুপ্রিম কোর্টে কেন্দ্র]

গত কয়েকদিন ধরেই বঙ্গোপসাগরে একটি নিম্নচাপ অক্ষরেখা তৈরি হয়েছে৷ ধীরে ধীরে তা শক্তি বাড়িয়ে অতি গভীর নিম্নচাপের রূপ নিচ্ছে৷ যার ফলে সোমবারের মধ্যেই একটি ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়ার কথা রয়েছে অন্ধ্র উপকূলে৷ এই নিম্নচাপের ফলেই আকাশ মূলত মেঘলা রয়েছে৷ উত্তাল রয়েছে সমুদ্র৷ এমন পরিবেশে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ভারত-আন্দামান বিমান পরিষেবা৷ কলকাতা-সহ অন্যান্য রাজ্য থেকে আন্দামানের উদ্দেশে কোনও বিমান চলাচল করছে না৷ ফলে যে সমস্ত পর্যটকদের ফেরার কথা ছিল, তাঁরা এখনও ফিরে আসতে পারেননি৷ এমন প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যে বিমান চলাচল করলে বড় কোনও দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারে৷ এই আশঙ্কা থেকেই আন্দামানগামী এবং আন্দামান থেকে আগত সকল বিমান বাতিল করে দেওয়া হয়েছে৷ ফলে বিপদে পড়েছেন পর্যটকরা৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে