BREAKING NEWS

২  ভাদ্র  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ১৮ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

চলতি শিক্ষাবর্ষেই কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে অভিন্ন প্রবেশিকা, গ্রাহ্য হবে না দ্বাদশে প্রাপ্ত নম্বর

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: March 22, 2022 12:38 pm|    Updated: March 22, 2022 1:50 pm

Common Entrance Test for all Central University | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (UGC) গত ডিসেম্বরেই বার্তা দিয়েছিল, এবার থেকে দেশের সব কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে (Central Universities) ছাত্রছাত্রী ভরতির ক্ষেত্রে অভিন্ন প্রবেশিকা পরীক্ষা (Common University Entrance Test) হবে। জাতীয় শিক্ষানীতি ২০২০-তে দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়েই স্নাতক ও স্নাতকোত্তরে পড়ুয়া ভরতির জন্য কমন এন্ট্রান্স টেস্টের (CUET) ব্যবস্থা করা হবে। এদিন সেই মতোই নির্দেশ দিল ইউজিসি। এইসঙ্গে জানানো হয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে ভরতির ক্ষেত্রে দ্বাদশ শ্রেণির প্রাপ্ত নম্বর গ্রাহ্য হবে না।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান এম জগদীশ কুমার (M Jagadesh Kumar) এই নির্দেশিকা জারি করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে আগামী জুলাই মাসের প্রথম সপ্তাহে অভিন্ন প্রবেশিকা পরীক্ষা হবে। ইউজিসি-র প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশিকার জন্য পড়ুয়াদের আবেদনের প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যাবে এপ্রিল মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে। এই প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান এম জগদীশ কুমার বলেন, “২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর স্তরে ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সি (NTA) অভিন্ন প্রবেশিকা পরীক্ষার ব্যবস্থা করবে। সেই মতোই কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে ভরতির প্রক্রিয়া শুরু হবে।”

[আরও পড়ুন: তালিবানের বিরুদ্ধে মামলা করতে চলেছে আফগানিস্তানে নিহত ভারতীয় সাংবাদিকের পরিবার]

উল্লেখ্য, সারা দেশে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের নিয়ন্ত্রণাধীন কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্য ৪৫। সবক’টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই চলতি শিক্ষাবর্ষ থেকে নয়া নির্দেশিকা অনুযায়ী স্নাতকোত্তর স্তরে পড়ুয়াদের ভরতি নেওয়া হবে। ইউজিসি সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রবেশিকার প্রশ্নপত্র হবে পড়ুয়াদের দ্বাদশ শ্রেণির সিলেবাসের উপর ভিত্তি করেই।

[আরও পড়ুন: ওমিক্রনের নতুন স্ট্রেনের দাপট ভারতেও? দেশে সামান্য বাড়ল করোনা সংক্রমণ, মৃত্যুর হার]

জানা গিয়েছে, ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সি পাঠ্য বইয়ের ভিত্তিতে অভিন্ন প্রবেশিকা পরীক্ষায় মাল্টিপল চয়েস প্রশ্ন রাখবে। ভুল উত্তরের জন্য নেগেটিভ মার্কিং থাকবে অর্থাৎ নম্বর কাটা যাবে। ১৩টি ভাষায় পরীক্ষা নেওয়া হবে। সেগুলি হল হিন্দি, মারাঠি, গুজরাতি, তামিল, তেলুগু, মালয়ালম, কন্নড়, উর্দু, অসমিয়া, বাংলা, পাঞ্জাবি, ওড়িয়া ও ইংরেজি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে