Advertisement
Advertisement
রাজীব ত্যাগী সম্বিত পাত্র

কংগ্রেসের মুখপাত্র রাজীব ত্যাগীর মৃত্যুতে মামলা বিজেপি নেতা সম্বিত পাত্রর বিরুদ্ধে

সম্বিত পাত্রর ব্যক্তিগত আক্রমণের জেরেই হার্ট অ্যাটাক হয় রাজীব ত্যাগীর, দাবি কংগ্রেস নেতার।

Complaint against Sambit Patra regarding the death of Rajiv Tyagi
Published by: Subhajit Mandal
  • Posted:August 14, 2020 9:33 am
  • Updated:August 14, 2020 9:33 am

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কংগ্রেস মুখপাত্র রাজীব ত্যাগীর (Rajiv Tyagi) মৃত্যুতে বিপাকে বিজেপি নেতা সম্বিত পাত্র। তার বিরুদ্ধে রাজীবকে খুনের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করলেন উত্তরপ্রদেশের এক কংগ্রেস নেতা। অংশু অবস্তি নামের ওই কংগ্রেস (Congress) নেতার দাবি, টেলিভিশন বিতর্ক চলাকালীন রাজীবকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করেছেন সম্বিত। আর সেকারণেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন রাজীব।

উল্লেখ্য, গত বুধবার একটি টেলিভিশন বিতর্কতে অংশ নেওয়ার কিছুক্ষণ পরই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান রাজীব ত্যাগী। ওই টেলিভিশন বিতর্কে কংগ্রেস নেতার প্রতিপক্ষ হিসেবে ছিলেনে বিজেপির সম্বিত পাত্র (Sambit Patra)। কংগ্রেসের অভিযোগ, ওই টেলিভিশন বিতর্কে সম্বিত রাজীব ত্যাগীকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করেছেন। তাঁকে ‘ভুয়ো হিন্দু’, ‘বেইমান’-সহ বেশ কিছু অপমানজনক বিশেষণে সম্বোধন করা হয়েছে। আর তাতেই মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন রাজীববাবু। এবং টেলিভিশন বিতর্কের কিছুক্ষণ বাদেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় তাঁর। উত্তরপ্রদেশ কংগ্রেসের মুখপাত্র অংশু অবস্তি রাজীবের মৃত্যুর জন্য সরাসরি বিজেপি নেতা সম্বিত পাত্রর এই ‘ব্যক্তিগত আক্রমণ’কে দায়ী করেছেন। এবং তাঁর শাস্তি দাবি করে উত্তরপ্রদেশের হজরতগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। ওই টেলিভিশন বিতর্কের সঞ্চালকের বিরুদ্ধেও মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, সম্বিত যখন রাজীবকে ‘বাজে কথা’ বলছিলেন, তখন তিনি বাধা না দিয়ে উৎসাহ দিয়েছেন।

Advertisement

[আরও পড়ুন: জাতীয় পতাকার অবমাননা! তেরঙ্গা ফেস মাস্কে নিষেধাজ্ঞা জারির আরজি মুসলিম মহিলা বোর্ডের]

বস্তুত বৃহস্পতিবার সারাদিনই কংগ্রেসের মুখপাত্ররা রাজীবের মৃত্যুর জন্য বিজেপি (BJP) মুখপাত্রদের ঘৃণা ছড়ানোর প্রবণতাকেই দায়ী করেছেন। তাঁদের অভিযোগ, বিজেপি মুখপাত্ররা সবসময় কংগ্রেস নেতাদের ব্যক্তিগত স্তরে আক্রমণ করেন। টেলিভিশন বিতর্কের এই ধরন পরিবর্তন করা উচিত। তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রীর কাছে এ বিষয়ে অভিযোগও জানিয়ে এসেছেন কংগ্রেস নেতারা। বিজেপি আবার পালটা কংগ্রেসকে আক্রমণ শানিয়ে বলছে, কোনও কিছুই এক পক্ষ থেকে হয় না। কংগ্রেস নেতারাও ব্যক্তিগত আক্রমণ করার সুযোগ ছাড়েন না।

Advertisement

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ