BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বাংলার পরিযায়ী শ্রমিকদের রেলে কর্মসংস্থান? রেলমন্ত্রীর টুইট করা ভিডিও ঘিরে ধন্দ

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: July 17, 2020 9:25 pm|    Updated: July 17, 2020 9:47 pm

An Images

সুব্রত বিশ্বাস: পরিযায়ী শ্রমিকদের নিজের রাজ্যে কাজের জন্য কেন্দ্র গরিব রোজগার যোজনায় ৫৫ হাজার কোটি টাকা ধার্য করেছে। পশ্চিমবঙ্গের জন্য বরাদ্দ অর্থ ঘোষণা করা হয়নি। এনিয়ে মুখ্যমন্ত্রী চরম ক্ষোভ প্রকাশ করে ছিলেন। বাংলার প্রতি বঞ্চনার অভিযোগ তুলেছিলেন। কিন্তু সেই অভিযোগ এক নিমেষে যেন নস্যাৎ করে দিল রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের (Piyush Goyal) দপ্তরের টুইট করা একটি ভিডিও। যাতে দেখা যাচ্ছে, মুর্শিদাবাদের এক শ্রমিক জানাচ্ছেন যে রেলের উদ্যোগে তিনি কাজ পেয়েছেন। এই ভিডিও ঘিরেই তৈরি হয়েছে ধন্দ।

বিভিন্ন রাজ্যের জন্য ঘোষিত অর্থে রেল প্রকল্পের কাজে নিযুক্ত হন শ্রমিকরা। কিছুদিন আগে বিভিন্ন রেল জোনে এই খাতে কত বরাদ্দ হয়েছে, রেল বোর্ডের চেয়ারম্যান তা জানালেও পূর্ব রেলের জন্য বরাদ্দ ঘোষণা করেন নি বলে জানা গিয়েছে। কিন্তু বৃহস্পতিবার রেলমন্ত্রীর দপ্তর থেকে একটি ভিডিও ক্লিপিং প্রকাশ করা হয়। যাতে জালালুদ্দিন মণ্ডল নামে মুর্শিদাবাদের এক শ্রমিক কাজ পাওয়ায় খুশি বলে জানাচ্ছেন। কেরল থেকে ফেরা পরিযায়ী শ্রমিকদের (Migrant Labourers) পূর্ব রেলে কোন প্রকল্পে কাজে লাগানো হয়েছে, তা ঘোষণা করা হয়নি। তার মধ্যেই জালালুদ্দিনের এই ভিডিও যথেষ্ট সন্দেহের বলে মনে করছেন অনেকে।

[আরও পড়ুন: ‘স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর উন্নতিতেই করোনায় দেশে মৃত্যু অনেক কম’, রাষ্ট্রসংঘে বার্তা মোদির]

শিয়ালদহ ডিভিশনের এক কর্তার কথায়, ”একবার পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে কথা উঠেছিল। কিন্তু তাঁদের কাজ দেওয়া হয়েছে বলে জানি না।” পূর্ব রেলের জনসংযোগ দপ্তরের তরফে প্রতিক্রিয়া, রেলে বিহারের গোড্ডাতে শ্রমিকদের কাজ দেওয়া হয়েছে। তবে বাংলায় নয়। তাহলে মুর্শিদাবাদের বাসিন্দা জালালুদ্দিন কীভাবে কাজ পেলেন? নাকি ব্যাপারটা পুরোটাই সাজানো? এনিয়ে বেশ ধন্দ তৈরি হয়েছে। বিশেষত যেখানে বাংলা নিয়ে কেন্দ্রের এত উদাসীনতার অভিযোগ ওঠে বারবার, সেখানে বাংলার পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে কি সত্যিই দাঁড়াল রেল? এই প্রশ্নের উত্তর মিলছে না আপাতত।

[আরও পড়ুন: বাড়ছে করোনার প্রকোপ, চলতি মাসে দেশের এই ৬টি শহর থেকে কলকাতায় নামবে না বিমান]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement