BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শনিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘কীসের জন্য ক্ষমা চাইব?’, পুলওয়ামা ইস্যুতে বিজেপিকে পালটা শশী থারুরের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 31, 2020 3:39 pm|    Updated: October 31, 2020 3:39 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুলওয়ামা হামলার (Pulwama Attack) পর গোটা দেশ যখন শোকার্ত ছিল, তখনও ওরা রাজনীতি করেছে। আজই গুজরাটের জনসভা থেকে একথা বলছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর আবার বলছিলেন, পাকিস্তান যখন স্বীকার করে নিয়েছে পুলওয়ামা হামলার পিছনে তাঁদের হাত ছিল, তখন কংগ্রেসকে ক্ষমা চাইতে হবে। কারণ, ওই হামলার পর কংগ্রেস নানা রকম ষড়যন্ত্রের তত্ত্ব খাঁড়া করছিল। বিজেপি নেতাদের এই আক্রমণের মুখে এবার পালটা দিলেন কংগ্রেসের শশী থারুর (Shashi Tharoor)। বিজেপির উদ্দেশে তাঁর প্রশ্ন, কীসের জন্য ক্ষমা চাইতে বলছেন আপনারা?

শনিবার এক টুইটে কংগ্রেস নেতা বলছেন,”আমি এখনও বুঝে উঠতে পারছি না, ওঁরা আমাদের কীসের জন্য ক্ষমা চাইতে বলছে। সরকারের কাছে আমরা প্রত্যাশা করেছিলাম যে, সরকার আমাদের সেনা জওয়ানদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে। আমরা জাতীয় পতাকার জন্য আওয়াজ তুলেছিলাম। এই ঘটনা নিয়ে রাজনৈতিক ফায়দা তোলার চেষ্টা করিনি। আমরা প্রত্যেক শহিদ জওয়ানের পরিবারের পাশে থাকতে চেয়েছিলাম। ওরা কী সেজন্যই আমাদের ক্ষমা চাইতে বলছে?”

[আরও পড়ুন: ‘পুলওয়ামা হামলায় যখন সবাই শোকার্ত, তখনও রাজনীতি করেছিল’, বিরোধীদের কটাক্ষ প্রধানমন্ত্রীর]

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার ইমরান খানের মন্ত্রিসভার সদস্য পাকিস্তানের যুক্তরাষ্ট্রীয় মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী ‘সদর্পে’ ঘোষণা করেন, “পুলওয়ামা আমাদের সাফল্য। ঘরে ঢুকে ভারতকে মেরেছি।” পাক মন্ত্রীর এই মন্তব্যে সীমান্তের দু’পারেই সরগরম হয়ে ওঠে রাজনীতি। পাক মন্ত্রীর মন্তব্যকে হাতিয়ার করে বিজেপির প্রায় সব স্তরের নেতাই বিরোধী শিবিরকে নাস্তানাবুদ করার চেষ্টা করে চলেছেন। বিজেপির দাবি, পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পর বিরোধীদের অনেকেই অন্তর্ঘাতের অভিযোগ তুলে রাজনৈতিকভাবে জলঘোলা করার চেষ্টা করেছিল। এখন পাক মন্ত্রীর এই ‘স্বীকারোক্তি’ বিরোধীদের মুখে ঝামা ঘসে দিয়েছে। কংগ্রেস, তৃণমূলের মতো দলগুলিকে দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চাইতে হবে বলেও দাবি জানান অনেকে। গেরুয়া শিবিরের এই আক্রমণে এতদিন নীরব ছিলেন কংগ্রেস নেতারা। এবার শশী থারুর হাঁটলেন পালটা আক্রমণের পথে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement