Advertisement
Advertisement
Congress

‘প্রথম প্রধানমন্ত্রীর কৃতিত্বে ভীত মোদি’, নেহরু মেমোরিয়ালের নামবদল নিয়ে তোপ কংগ্রেসের

নেহেরুর লিগ্যাসিকে এভাবে অস্বীকার করা যাবে না, দাবি কংগ্রেসের।

Congress slams PM over Nehru museum renaming | Sangbad Pratidin
Published by: Subhajit Mandal
  • Posted:August 16, 2023 2:56 pm
  • Updated:August 16, 2023 2:56 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নেহরু মেমোরিয়াল এবং মিউজিয়ামের নামবদল নিয়ে এবার কংগ্রেসের প্রবল তোপের মুখে নরেন্দ্র মোদি তথা বিজেপি। কংগ্রেসের প্রধান মুখপাত্র জয়রাম রমেশের দাবি, দেশের প্রথম ও সবথেকে দীর্ঘসময়ের প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ভীতি এবং নিরাপত্তাহীনতায় ভোগেন মোদি। সেকারণেই তাঁর সব কৃতিত্ব মুছে ফেলতে চান তিনি।

রাজধানী দিল্লিতে দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী পণ্ডিত জওহরলাল নেহরুর (Jawaharlal Nehru) বাসভবন তিন মূর্তি ভবনে তৈরি মিউজিয়ামটির নাম বদলে প্রাইম মিনিস্টার’স মিউজিয়াম অ্যান্ড লাইব্রেরি সোস্যাইটি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মোদি সরকার। মঙ্গলবার স্বাধীনতা দিবসেই সেই নতুন নাম কার্যকর করার ঘোষণা করা হহেছে। এবার সেখানে নেহরু থেকে শুরু করে মনমোহন সিং (Manmohon Singh) ও মোদি পর্যন্ত সকল প্রধানমন্ত্রীর জীবন, কাজ এবং অবদানকে তুলে ধরা হবে। স্বাধীনতার পর থেকে দেশের ১৪ জন প্রধানমন্ত্রীর জীবন ও কার্যকালের উপর নির্মিত মিউজিয়ামে নেহরু এবং মোদি রয়েছেন মুখোমুখিই।

Advertisement

[আরও পড়ুন: আরও অস্বস্তিতে ইমরান, ৬টি মামলায় জামিন খারিজ প্রাক্তন পাক প্রধানমন্ত্রীর]

এই নেহরু মিউজিয়ামের নাম বদল নিয়েই ক্ষোভ কংগ্রেসের। জয়রাম রমেশ বলছেন,”বিশ্বখ্যাত নেহরু মেমোরিয়াল মিউজিয়াম অ্যান্ড লাইব্রেরির নাম বদলে প্রাইম মিনিস্টারস মোমোরিয়াল মিউজিয়াম অ্যান্ড লাইব্রেরি করা হল। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অনেক ভয়, নিরাপত্তাহীনতা। আমাদের প্রথম ও সবথেকে দীর্ঘ সময় ধরে থাকা প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ওঁর অনেক সমস্যা। নেহরু ও তাঁর উত্তরাধিকারীদের অপমান করার কোনও সুযোগ ছাড়েন না। এন সরিয়ে পি বসিয়ে দিয়েছেন। এই পি-এর অর্থ হল সংকীর্ণ মানসিকতা ও অবজ্ঞা (Pettiness এবং Peeve)।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: হাওয়াই জ্বলছে, অথচ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ছুটি কাটাচ্ছেন সৈকতে! বিতর্কের মধ্যেই মুখ খুললেন বাইডেন]

জয়রাম রমেশ বলছেন,”নেহরুর বিরুদ্ধে মোদির একটাই এজেন্ডা। অস্বীকার করা, নষ্ট করা, দুর্নাম করা, ধংস করা। নেহেরুর কৃতিত্ব আর ঐতিহ্যকে ধংস করে দিতে একের পর এক পদক্ষেপ করে চলেছেন তিনি।” কিন্তু এত কিছু সত্ত্বেও নেহেরুকে ধংস করা যাবে না বলে দাবি রমেশের। কংগ্রেস নেতা বলছেন, নেহেরুর লিগ্যাসি বছরের পর বছর থেকে যাবে। গোটা বিশ্বে থাকবে।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ