১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘মহারাজ’ গোয়ালিয়রে ফিরতেই শিকেয় দূরত্ববিধি! কংগ্রেস-বিজেপি হাতাহাতি সিন্ধিয়ার সামনেই

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 23, 2020 6:35 pm|    Updated: August 23, 2020 6:35 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজনৈতিক শক্তি দেখাতে গিয়ে সামাজিক বিধিনিষেধের (Social Distancing) দফারফা। দলবদলের পর জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া (Jyotiraditya Scindia) মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) গোয়ালিওরে ফিরতেই বিপত্তি। একদিকে তাঁর  বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করতে শহরের তিন জায়গায় বিক্ষোভ দেখালেন কংগ্রেস কর্মী সমর্থকরা। অন্যদিকে বিজেপি নিজের শক্তি বাড়াতে রোড-শো করলেন। আর এই শক্তির লড়াইয়ে শহর জুড়ে সামাজিক বিধিনিষেধ খড়কুটোর মতো উডে় গেল। চলল পুলিশি ধরপাকড়ও। 

মার্চ মাসে কংগ্রেসের বিরুদ্ধে একগুচ্ছ অভিযোগ করে দল ছেড়েছিলেন মহারাজ জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া। তাঁর সঙ্গে দল ছেড়েছিলেন অনুগামীরাও। ফলে মধ্যপ্রদেশের রাজনৈতিক পট পরিবর্তন হয়েছিল। কংগ্রেসকে সরিয়ে নিজের গড় পুনরুদ্ধার করেছিল বিজেপি। শনিবার সেই শক্তিবৃদ্ধিরই প্রদর্শন করলা হল গোয়ালিওরে।

[আরও পড়ুন : কংগ্রেসের অন্তর্বর্তীকালীন সভানেত্রীর পদ থেকে ইস্তফা দিচ্ছেন সোনিয়া গান্ধী! তুঙ্গে জল্পনা]

জানা গিয়েছে, সিন্ধিয়া গোয়ালিওরে ফিরছে শুনেই শহরের তিন জায়গায় বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন কংগ্রেস বিধায়ক-নেতা-কর্মীরা। সিন্ধিয়ার বিরুদ্ধে ‘গদ্দর’ বলে স্লোগান দেওয়া হয়। এমনকী, করোনা আবহের মধ্যেও মঞ্চ বেঁধে চলে প্রতিবাদ। অভিযোগ, সেই বিক্ষোভ চলাকালীন বিজেপি (BJP) কর্মীদের সঙ্গে হাতাহাতিও বেঁধে গিয়েছিল। অন্যদিকে, শহরজুড়ে সদস্য সংগ্রহ করার কর্মসূচি ছিল বিজেপির। পাশাপাশি ব্যবস্থা করা হয়েছিল রোড শোয়ের। দুই দলের কর্মসূচিতেই ধাক্কাধাক্কি বাঁধেষ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে আসে পুলিশ। চলে ধরপাকড়। কয়েকজনকে গ্রেপ্তারও করা হয়। ওয়াকিবহাল মহলের অভিযোগ, এই পরিস্থিতিতে সামাজিক দূরত্ববিধি ভাঙা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর বারবার নির্দেশ দেওয়া সত্ত্বেও বিজেপি নেতা-কর্মীরা সে কথা মানেনি বলেও অভিযোগ উঠেছে। 

[আরও পড়ুন : বিহারে একসঙ্গে লড়বে বিজেপি-জেডিইউ-এলজেপি, শরিকি অশান্তির জল্পনা ওড়ালেন নাড্ডা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement