BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

শীঘ্রই আস্থা ভোট রাজস্থানে? শচীনকে চাপে ফেলতে তৈরি গেহলটের ‘প্ল্যান বি’

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 19, 2020 5:16 pm|    Updated: July 19, 2020 5:16 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শচীন পাইলটকে চাপে ফেলতে নতুন পরিকল্পনা ফেঁদে ফেলল কংগ্রেস। বিধায়ক পদ খারিজের মামলায় আদালত যদি পাইলটকে (Sachin Pilot ) স্বস্তি দিয়ে তাঁর এবং অনুগামীদের বিধায়কপদ বজায় রাখে, তাহলে ঘুরপথে তা বাতিল করার ছক কষছে কংগ্রেস। যা বাস্তবায়িত হলে পাইলট শিবিরের বিধায়কদের বিধায়কপদ বাতিল হওয়া একপ্রকার নিশ্চিত।

সূত্রের খবর, চলতি সপ্তাহেই রাজস্থান বিধানসভায় ছোট্ট একটা অধিবেশন ডাকতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি নিজের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণ করবেন। কংগ্রেসের দাবি, সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের মতো বিধায়ক এখন তাঁদের হাতে আছে। আস্থাভোটের দিন দলের সব বিধায়ককে বিধানসভায় হাজির থেকে সরকারের পক্ষে ভোট দেওয়ার হুইপ জারি করবে কংগ্রেস। পাইলট অনুগামীরা যদি সেদিন বিধানসভায় (Rajasthan Legislative Assembly) হাজির থেকে গেহলট সরকারকে ভোট না দেন, তাহলে সংবিধানের দশম তপশিলের সেকশন ২(১)(বি) অনুযায়ী, তাঁরা দলত্যাগ বিরোধী আইনে পড়বেন। সেক্ষেত্রে স্পিকার সহজেই তাঁদের বিধায়কপদ খারিজ করে দিতে পারবেন। যদিও স্পিকারের সেই সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে আদালতে যেতে পারেন বিধায়করা। কিন্তু তখন স্পিকারের হাতে তাঁদের বিধায়কপদ বাতিলের জোরাল যুক্তি থাকবে।

[আরও পড়ুন: ‘করোনা থেকে চিন, সব ইস্যুতেই মিথ্যা বলছে কেন্দ্র’, তীব্র আক্রমণ রাহুলের]

উল্লেখ্য, এখনও পাইলট-সহ মোট ১৯ জন কংগ্রেস বিধায়ককে সংবিধানের দশম তপশিলের সেকশন ২(১)(বি) অনুযায়ীই বিধায়ক পদ বাতিলের নোটিস দেওয়া হয়েছে। কংগ্রেসের (Congress) যুক্তি, মুখ্যমন্ত্রীর ডাকা বৈঠকে না গিয়ে দলবিরোধী কাজ করেছেন বিদ্রোহীরা। কিন্তু দলেরই একাংশের মত, এই যুক্তি ততটা জোরাল নয়। পাইলটরা এবারে আদালতে স্বস্তি পেয়ে যেতে পারে। তাই আগেভাগে প্ল্যান বি রেডি রাখছে দল। শোনা যাচ্ছে, আগামী বুধ- বৃহস্পতিবারের মধ্যে এই অধিবেশন ডাকা হতে পারে। উল্লেখ্য, শনিবারই মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট (Ashok Gehlot) রাজ্যপাল কলরাজ মিশ্রর সঙ্গে দেখা করেছেন। ভারতীয় ট্রাইবাল পার্টির দুই বিধায়ক পুনরায় সরকারকে সমর্থনের কথা ঘোষণা করার পরই রাজ্যপালের কাছে যান তিনি। প্রায় ৪৫ মিনিট বৈঠক হয় দু’জনের। সূত্রের খবর, গেহলট রাজ্যপালের কাছে দাবি করে এসেছেন সরকার বাঁচানোর উপযুক্ত সংখ্যা তাঁর কাছে আছে। কংগ্রেসের দাবি, তাঁদের হাতে এখনও ১০২ জনের বেশি বিধায়ক আছেন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement