BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

আচমকাই শত্রুঘ্ন সিনহার বাড়ির সামনে চলল গুলি, ছড়াল আতঙ্ক

Published by: Saroj Darbar |    Posted: July 29, 2018 5:08 pm|    Updated: July 29, 2018 5:12 pm

constable deployed at Shatrughan Sinha's residence accidentally opens fire

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: খামোশ-এই একটা শব্দেই তিনি রিল লাইফে সবকিছু থামিয়ে দেন। বাস্তবেও অবশ্য চোখা কথায় সব সমালোচনায় জল ঢেলে দেন। কিন্তু নিজের বাড়ির সামনে গুলির আওয়াজ অবশ্য এক কথায় থামাতে পারলেন না। তাঁর বাড়ির সামনে আচমকাই চলল গুলি।

[  আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে মোদিকেই ফের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে চান কঙ্গনা ]

জানা যাচ্ছে, ‘রামায়ণ’ নামে বিল্ডিংয়ের নয় তলায় থাকেন অভিনেতা। জুহুর এই বিল্ডিংটির সামনে প্রহরার দায়িত্বে থাকা এক কনস্টেবলই এই কাজ করেন। শনিবার সন্ধেয় অস্ত্র নিয়ে নাড়াচাড়ার সময় আচমকাই তিনি ফায়ার করে ফেলেন। তবে অসাবধানতাবশতই এ কাজ হয়ে গিয়েছে বলে জানা যায়। তাতে কেউ আহত হননি। কারও কোনও ক্ষতিও হয়নি। অভিনেতা সম্পূর্ণ সুস্থ আছেন। তাঁর বিরুদ্ধে কোনও আক্রমণের ঘটনাও এটি নয়। নেহাতই দুর্ঘটনার কারণেই এই গুলি চলেছে বলেই জানা যাচ্ছে। তবে অভিনেতা তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বাড়ির সামনে আচমকা গুলি চলায় সামযিক চাঞ্চল্য ছড়ায়। যদিও এ নিয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া দেননি শত্রুঘ্ন।

‘গোরক্ষার নামে মুসলিম নিধন বন্ধ হোক, নাহলে দেশভাগ আসন্ন’ ]

বিজেপির সদস্য। তবে শত্রুঘ্ন বরাবরই অন্য চরিত্রের। বিজেপিতে থেকেও বিজেপির সমালোচনা করতে কসুর করেন না তিনি। একাধিক ইস্যুতে সরকারকে তুলোধোনা করতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। সম্প্রতি সংসদে বাদল অধিবেশন চলাকালীন ত্রিদেশীয় বিদেশ সফরে রওনা দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তা নিয়ে বিরোধীরা আপত্তি জানিয়েছিল। একইরকমভাবে সমালোচনা করেন শত্রুঘ্ন সিনহাও। টুইট করে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তোপ দাগেন তিনি। তবে আস্থা ভোটের সময় তিনি বিজেপির পাশেই ছিলেন। তাঁর মতে, সরকারের কাজের সমালোচনা তিনি করতেই পারেন। দলের সদস্য হলেই যে কোনওরকম মতভেদ থাকবে না, তা হতে পারে না। সংসদীয় গণতন্ত্রের এই অভ্যাসটি এই সময়ে ক্রমাগত অনুশীলন করেছেন শত্রুঘ্ন সিনহা। তাঁর বাড়ির সামনেই গুলি চলার ঘটনার খবর ছড়ানোয় অনেকেই আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। তবে সেরকম কোনও ভয়ের কারণ নেই বলেই জানা গিয়েছে।  

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে