১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

করোনা পরিস্থিতি: ২৯ মে পর্যন্ত লকডাউন তেলেঙ্গানায়, ঘোষণা কেসিআরের

Published by: Sulaya Singha |    Posted: May 5, 2020 9:12 am|    Updated: May 5, 2020 10:46 pm

An Images

করোনায় ত্রস্ত গোটা বিশ্ব। সময় যতই এগোচ্ছে ততই দাপট বাড়াচ্ছে মারণ ভাইরাস। বিশ্বে ৩৫ লক্ষেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত। মৃতের সংখ্যা ২ লক্ষ ৫০ হাজার ছাড়িয়েছে। ভারতের সংখ্যাও বাড়াচ্ছে উদ্বেগ। আক্রান্ত  ৪৬,৭১১। মৃত্যু হয়েছে ১৫৮৩ জনের। এই পরিস্থিতিতে করোনা সংক্রমণকে জব্দ করতে ১৭ মে পর্যন্ত লকডাউনের সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে। বাংলার করোনা পরিস্থিতিও সন্তোষজনক নয়। ৬৮ জনের মৃ্ত্যু হয়েছে এ রাজ্যে।  এখনও পর্যন্ত  আক্রান্ত হয়েছেন ১৩৪৪। সুস্থ হয়েছেন ২৬৮ জন। এই পরিস্থিতিতে ফের রাজ্যে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। করোনা সংক্রান্ত সমস্ত আপডেট:

রাত ১০.৩০:  লকডাউনের মেয়াদ বাড়িয়ে দিল তেলেঙ্গানা সরকার। ২৯ মে পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা কেসিআরের। রাতে জারি থাকবে কারফিউ।

রাত ৯.৩৭: কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের এসকর্ট কারের চালকের সংস্পর্শে এসে আরও ৫ বিএসএফ জওয়ান করোনা আক্রান্ত। তাঁদের ভরতি করা হয়েছে এমআর বাঙুর হাসপাতালে। এই পাঁচজনও গাড়ি চালক বলে জানা গিয়েছে।

রাত ৯.২০: করোনা আবহে পুরভোট স্থগিত। ফিরহাদ হাকিমই কলকাতা পুরসভায় মুখ্য প্রশাসক, সঙ্গে পারিষদরা। বাকি ৯৩ টি পুরসভাতেও একইভাবে প্রশাসক নিয়োগ হবে। 

রাত ৮.৪৬: করোনা আক্রান্ত জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ডের অফিসার, কর্মী। সংক্রামক এলাকা থেকে স্থানান্তরিত অফিস। কার্যালয় সরল গিরিশ পার্ক আউটপোস্টে।

সন্ধে ৭.৫০: বিদেশ থেকে ভারতীয়দের ফেরাতে তৎপরতা তুঙ্গে। প্রথম সপ্তাহে ৬৪ টি বিমান ছাড়া হবে।  সৌদি আরব, কুয়েত, মালদ্বীপ, সিঙ্গাপুর, আমেরিকা-সহ ১২ দেশে পাঠানো হবে বিমান। 

সন্ধে ৭.৪৪: মুম্বইয়ের ধারাভিতে নতুন করে ৩৩ জনের শরীরে মিলল করোনার জীবাণু। মোট আক্রান্ত এখানে ৬৬৫ জন। বৃহন্মুম্বই মিউনিসিপ্য়াল কর্পোরেশনের টুইটে ফের বাড়ল আশঙ্কা। 

সন্ধে ৭: লকডাউনের জেরে ভারতে আটকে পড়া বিদেশিদের ভিসার মেয়াদ এক মাস বাড়ানো হল। টুইটারে বড় ঘোষণা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের মুখপাত্রের। 

সন্ধে ৬.৪৫: বিদেশে আটকে থাকা ভারতীয়দের কীভাবে ফেরানো হবে? বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানাল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। 

MHA-notice-for-stranded

সন্ধে ৫.৫০:  দেশে উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে করোনা আক্রান্ত, মৃ্ত্যু। আক্রান্তের সংখ্যা ৪৬,৭১১।  সুস্থ হয়েছেন ১৩,১৬০ জন। মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৫৮৩। টুইটারে বিস্তারিত পরিসংখ্যান দিল স্বাস্থ্যমন্ত্রক।


বিকেল ৫.১৩:
৭ মে থেকে বিদেশে আটকে পড়া ২২৫০ জনকে রাজ্যে ফেরানো হবে। মোট ৮৮ হাজার মানুষ ধীরে ধীরে রাজ্যে ফিরবেন। জানালেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী বিজয়ন।


বিকেল ৪.৫৭:
পার্ক সার্কাসের শিশু হাসপাতালে আক্রান্ত ১২ জন নার্স। কীভাবে তাঁদের শরীরে ভাইরাসের হদিশ মিলল, তা এখনও স্পষ্ট নয়। 
বিকেল ৪.৩৫:
সাগর দত্ত হাসপাতালে আবার করোনার থাবা। আক্রান্ত একজন ল্যাব টেকনিশিয়ান। সোদপুরের বাসিন্দা ওই যুবকের সম্প্রতি করোনার প্রাথমিক উপসর্গ দেখা যায়। চিকিৎসকদের সন্দেহ হওয়ায় তাঁর নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করতে পাঠানো হয়। মঙ্গলবার জানা যায় তিনি করোনা পজিটিভ। এদিন ওই যুবককে রাজারহাটের কোভিড হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। তাঁর পরিবারের লোকেদেরও কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।
বিকেল ৪.২৫:
বাংলায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার বলি ৭ জন। মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬৮। নতুন করে ৮৫ জনের শরীরে মিলল ভাইরাস। রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৩৪৪। জানালেন স্বরাষ্ট্রসচিব। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪৬ জন। মোট ২৬৮ জন বর্তমানে করোনামুক্ত।


বিকেল ৪.১৫:
রেশনে কারচুপির অভিযোগে ৩৫৯ জন ডিলারকে শোকজ করা হয়েছে। বিনামূল্যে রেশনের অগ্রাধিকার সাধারণ মানুষের। জানালেন বাংলার স্বরাষ্ট্রসচিব। 
বিকেল ৪.০০:
করোনায় আক্রান্ত ইন্দো-তিব্বত বর্ডার পুলিশের ৪৫ আধিকারিক। যাঁর মধ্যে ৪৩ জন আভ্যন্তরীণ সুরক্ষার দায়িত্বে রয়েছেন। এদিকে, ভারতীয় সেনার রিসার্চ অ্যান্ড রেফারেল হাসপাতালে ২৪ জনের শরীরে মিলল জীবাণু।


বেলা ৩.২৫:
কামারহাটির ২৯ নম্বর ওয়ার্ডে ত্রাণ বিলি নিয়ে স্থানীয় যুবকদের সঙ্গে কাউন্সিলরের বাকবিতণ্ডা। বচসা গড়াল হাতাহাতিতে। গুরুতর আহত যুবক আপাতত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। এখনও উত্তপ্ত গোটা এলাকা।
বেলা ৩.০৫:
ভিড় এড়াতে অভিনব উদ্যোগ। ছত্তিশগড়ে চালু মদের হোম ডেলিভারি। অনলাইনেই অর্ডার করতে পারবেন ক্রেতারা। একসময় পাঁচ হাজার এমএল পর্যন্ত অর্ডার করা যাবে। ডেলিভারি চার্জ হিসেবে দিতে হবে ১২০ টাকা।  

দুপুর ২.৪০:  অবশেষে টনক নড়ল তামিলনাডু প্রশাসনের।  ভেলোরে চিকিৎসা করাতে গিয়ে আটকে পড়া এ রাজ্যের বাসিন্দাদের ফেরানোর উদ্যোগ। শুরু হল রেজিস্ট্রেশনের কাজ।

Vellor-Registration

দুপুর ১.৩০: ঘোষিত NEET পরীক্ষার নতুন দিনক্ষণ। আগামী ২৬ জুলাই হবে NEET পরীক্ষা। জানালেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল। সেই সঙ্গে IIT-JEE মূল পরীক্ষা হবে ১৮,২০,২১,২২ ও ২৩ জুলাই। IIT-JEE অ্যাডভান্স পরীক্ষা হবে আগস্টে। যদিও সেই দিনক্ষণ এখনও ঘোষণা করা হয়নি। 


দুপুর ১.২২:
১,১৩৩ জন পরিযায়ী শ্রমিক বাড়ি ফেরাতে কেরলের এরনাকুলাম থেকে ছেড়েছে বিশেষ ট্রেন। তাঁরা বুধবার বিকেল ৩টে নাগাদ রাজ্যে পৌঁছবে তাঁরা।
দুপুর ১.১০:
করোনায় আক্রান্ত জোড়াবাগানের ট্রাফিস সার্জেন্ট। ফলে কনটেনমেন্ট জোনের আওতায় পড়ল জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ড। এই প্রথম কোনও ট্রাফিক গার্ড সংক্রমক এলাকার মধ্যে পড়ল। 
দুপুর ১.০০:
করোনায় আক্রান্ত বর্ধমানের সুভাষপল্লি এলাকার এক নার্স। কলকাতার পাভলভ হাসপাতালের নার্স তিনি। সোমবার বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পরীক্ষার পর রিপোর্টে টেস্ট পজিটিভ আসে। শাশুড়ি, স্বামী ও দুই ছেলেকে শহরের কোভিড হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে।
বেলা ১২.৪৫:
এবার আইন মন্ত্রকের অন্দরে করোনার হানা। আক্রান্ত এক সিনিয়র ডিরেক্টর। শেষবার তিনি অফিসে এসেছিলেন গত ২৩ এপ্রিল। গত ১ মে তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ আসে। সুরক্ষার কথা চিন্তা করে। আইন দপ্তরের শাস্ত্রী ভবন সিল করে দেওয়া হয়েছে।


বেলা ১২.৩০:
৭মে থেকে সবচেয়ে বড় উদ্ধার কার্যের সাক্ষী থাকতে চলেছে দেশ। এক সপ্তাহে ১৩টি দেশ থেকে মোট ৬৪টি বিমানের মাধ্যমে ১৪ হাজারেরও বেশি আটকে পড়া ভারতীয়কে ফেরানোর ব্যবস্থা করল প্রশাসন।
বেলা ১২.১০:
কর্ণাটকে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত আটজন। সে রাজ্যে বর্তমানে আক্রান্তের সংখ্যা ৬৫৯। যাঁর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ২৮ জনের।
সকাল ১১.৩০:
গত তিনদিনে ভিনরাজ্যে আটকে থাকা ৫০ হাজার পরিযায়ী শ্রমিককে রাজ্যে ফেরানো হয়েছে। জানালেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।


সকাল ১১.০০:
আজমের থেকে শ্রমিকদের নিয়ে রাজ্যে প্রথম ট্রেন এল ডানকুনিতে। প্রায় ১২০০ পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে ট্রেনটি ডানকুনি আসে। 
সকাল ১০.১০:
টিকিয়াপাড়ায় রেড জোনে শান্তি মিছিল কেন? কীভাবে লকডাউনে এত মানুষ রাস্তায় নামলেন? উদ্যোক্তাদের বিরুদ্ধে মহামারি আইনে হল মামলা। 
সকাল ৯.২০:
দেশের মধ্যে সবচেয়ে করুণ পরিস্থিতি মহারাষ্ট্রের। সেখানে করোনা পজিটিভ সাড়ে ১৪ হাজার ছাড়িয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ৫৮৩ জনের।
সকাল ৯.০০:
লকডাউনের তৃতীয় পর্বের প্রথম দিন দেশে মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা পুরনো সমস্ত রেকর্ড ভাঙল। তৃতীয় পর্বে দেশজুড়ে তুলনামূলক অনেকটাই শিথিল লকডাউন। তাতেই কি এই ফলাফল? গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা যথাক্রমে ৩,৯০০ ও ১৯৫। দেশে মোট করোনার কবলে ৪৬,৪৩৩ জন। অ্যাকটিভ কেস ৩২,১৩৪। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১২,৭২৭। মারণ ভাইরাসের বলি ১৫৬৮ জন।

[আরও পড়ুন: লকডাউনের পরে কী? দু’মাসের জন্য ‘অ্যাকশন প্ল্যান’ তৈরি করছে কেন্দ্র]

সকাল ৮.২০: রাজ্যে আরও বাড়ল কনটেনমেন্ট জোন। শুধু কলকাতায় ৩১৮টি জায়গাকে সংক্রমক এলাকা হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। গোটা বাংলায় এর সংখ্যা ৫১৬।
সকাল ৮.০০:
মালদ্বীপ ও ইউনাইটেড আরব আমিরশাহীতে আটকে পড়া ভারতীয় ফেরাতে রওনা দিল নৌবাহিনীর তিনটি জাহাজ। তিনটি জাহাজই ফিরবে কোচি।


সকাল ৭.৩০:
১৭ মে পর্যন্ত মুম্বইয়ে জারি ১৪৪ ধারা। রাত ৮টা থেকে সকাল ৭টা পর্যন্ত অনাবশ্যক জিনিস কেনার জন্য ভিড় জমানো যাবে না। এক্ষেত্রে শুধুমাত্র ছাড় রয়েছে ওষুধ কেনার ক্ষেত্রে।
সকাল ৭.২০: চূড়ান্ত উদ্বেগেও ক্ষীণ আশার আলো। ২৪ ঘণ্টায় মার্কিন মুলুকে মৃত্যু ১০১৫। গত এক মাসে মৃত্যুর সংখ্যা এদিনই সবচেয়ে কম।

সকাল ৭.০০: লকডাউনের তৃতীয় পর্বের প্রথম দিন মদের দোকান খুলতেই উপচে পড়ে ক্রেতাদের ভিড়। পরিস্থিতি সামাল দিলে মদের উপর ৭০ শতাংশ ট্যাক্স নেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে কেরজিওয়াল সরকার। এদিন দেশের প্রায় প্রতিটি রাজ্যেই মদের দোকানের বাইরে লম্বা লাইন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement