BREAKING NEWS

২৮ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৪ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

ভারতে আরও বাড়ছে করোনা আতঙ্ক, একলাফে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২১

Published by: Paramita Paul |    Posted: March 4, 2020 10:38 am|    Updated: March 4, 2020 4:28 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। মঙ্গলবার সকালে যেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল মাত্র ৬জন। বুধবার সেই সংখ্যা একলাফে বেড়ে দাঁড়াল ২১ জন। এর মধ্যে ১৫ জন ইতালিয় নাগরিক। এদিন এমনটাই জানাল অল ইন্ডিয়া মেডিক্যাল সায়েন্স ইন্সটিটিউট ( All India Institute Of Medical Sciences, New Delhi)। জানা গিয়েছে, জয়পুরে ইতালির পর্যটকদের একটি দল বেড়াতে এসেছেন। সেই দলের এক দম্পতির দেহে মঙ্গলবারই করোনা ভাইরাসের নমুনা মিলেছিল। এরপর ওই পর্যটক দলের বাকিদের পরীক্ষা করে ১৫ জনের রক্তে কোভিড-১৯ ভাইরাসের উপস্থিতি মিলেছে। করোনা আতঙ্কে বাতিল হয়েছে বিশাখাপত্তনমে ভারতীয় নৌসেনার মহড়াও।

দিল্লি, নয়ড়া, আগ্রার পর এবার জয়পুরেও করোনা আতঙ্ক। কোভাড-১৯ আক্রান্ত সন্দেহে ৪ বিদেশী নাগরিক-সহ মোট ১১ জনকে জয়পুরের হাসপাতালে করেন্টাইন করে রাখা হয়েছে। তাঁদের রক্তের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। বুধবারই সেই পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়া যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। জানা গিয়েছে, চারজন বিদেশীর মধ্যে দু’জন ইতালি, একজন জাপান ও একজন হংকংয়ের নাগরিক। বাকি সাতজন ভারতীয়। এ প্রসঙ্গে রাজস্থানের SMS হাসপাতালের সুপারিন্টেন্ডেট ড. ডিএস মীনা বলেন, “রাজস্থান ইউনিভার্সিটি অব হেলথ সায়েন্স হাসপাতালে ওই ১১ জনকে করেন্টাইন করে রাখা হয়েছে। বুধবার তাদের রিপোর্ট মিলবে।”

[আরও পড়ুন : এবার টার্গেট মধ্যপ্রদেশ! সরকার ফেলতে কংগ্রেসের ৮ বিধায়ককে ‘আটকে’ রাখল বিজেপি]

জানা গিয়েছে, চার বিদেশী আদপে পর্যটক। করোনা আতঙ্ক ছড়ানোর পর তাঁরা জাপান ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলিতে গিয়েছিলেন। তবে তাঁদের দেহে এখনও করোনা সংক্রমণের উপসর্গ মেলেনি। করোনা উপদ্রুত দেশ থেকে তাঁরা ভারতে এসেছেন বলে ওই চারজনকে করেন্টাইন করে রাখা হয়েছে। যদিও সাত ভারতীয় নাগরিক বিদেশে গিয়েছিলেন কিনা সে সম্পর্কে সরকারের তরফে কিছু জানানো হয়নি। ইতিপূর্বে কেরলে তিন ইতালিয়র দেহে করোনার উপসর্গ মিলেছিল। তারা চিকিৎসায় সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে সৌদি আরব পাড়ি দিয়েছেন।

[আরও পড়ুন : ​ করোনা থেকে বাঁচাতে পারে ভারতের আবহাওয়া! প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর তথ্য]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement