BREAKING NEWS

১১ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ২৫ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

করোনা হামলা রুখতে চূড়ান্ত সতর্ক কেন্দ্র, ৭ বিমানবন্দরে বাধ্যতামূলক থার্মাল স্ক্রিনিং

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: January 25, 2020 5:30 pm|    Updated: January 25, 2020 6:00 pm

Coronavirus fear: India makes thermal screening at airports mandatory

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চিন থেকে এদেশেও করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে ছড়াচ্ছে আতঙ্ক। তার জেরে সতর্ক হল কেন্দ্র। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তরফে করোনার হামল রুখতে নতুন করে নির্দেশিকা তৈরি করে তা পাঠিয়ে দেওয়া হল রাজ্যগুলির কাছে। কলকাতা-সহ দেশের সাতটি বিমানবন্দরে চিন থেকে আগত যাত্রীদের জন্য থার্মাল স্ক্রিনিং বাধ্যতামূলক করে দেওয়া হল। পাশাপাশি, বিমানবন্দর সংলগ্ন হাসপাতালগুলিকে রোগ মোকাবিলায় সমস্ত পরিকাঠামো নিয়ে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিল স্বাস্থ্য মন্ত্রক।

বছরের শুরুতে মূর্তিমান আতঙ্ক হয়ে নিজের স্বরূপ প্রকাশ করেছে করোনা ভাইরাস। চিনের ইউহান প্রদেশ থেকে মারণ জীবাণু ছড়িয়ে পড়েছে নানা দেশে। ভারতে আপাতত তার সংক্রমণ ঘটেনি বলে চিকিৎসকরা এখনও পর্যন্ত আশ্বস্ত করলেও, তার মোকাবিলায় একচুলও ফাঁক রাখতে চায় না স্বাস্থ্য মন্ত্রক। ইতিমধ্যেই মুম্বই এবং কেরলে মোট ৭ জনকে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধনও জানিয়েছেন যে এখনও পর্যন্ত দেশে করোনা আক্রান্ত কেউ চিহ্নিত হয়নি। যাতে সংক্রমণের আগেই তা রোখা যায়, তার জন্য কেন্দ্র এনির্দেশিকা তৈরি করে দেশের সমস্ত রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে পাঠানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: স্কুলে প্রার্থনার পর পড়তে হবে সংবিধানের প্রস্তাবনা! নয়া নিয়ম কংগ্রেস শাসিত রাজ্যগুলিতে]

গত ২১ তারিখ করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচতে সতর্কতা জারি হয়েছিল কলকাতা বিমানবন্দরে। চিন থেকে আসা পর্যটকদের আপাদমস্তক পরীক্ষানিরীক্ষার পরই কলকাতা বিমানবন্দর থেকে ছাড়া হচ্ছিল। থার্মাল স্ক্যানারে চলছিল স্ক্যানিং পদ্ধতি। সেই পরীক্ষায় পাশ করলে তবেই শহরে ঢোকার ছাড়পত্র পাচ্ছিলেন যাত্রীরা। স্বাস্থ্য মন্ত্রক তখনই কলকাতার পাশাপাশি দেশের আরও ৭টি বিমানবন্দরে জারি করেছিল সতর্কতা। এবার সেখানে থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 

বিমানবন্দর সংলগ্ন হাসপাতালগুলিকে প্রস্তুত থাকতে বলা হয়েছে। যদিও ইতিমধ্যেই বেলেঘাটা আইডি হাসপাতাল করোনার চিকিৎসায় নিজেদের পরিকাঠামো নিয়ে প্রস্তুত হয়েছিল। খোলা হয়েছিল আইসোলেশন ওয়ার্ড। সূত্রের খবর, স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে একটি উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধি দল শিগগিরই কলকাতায় আসবেন এই সংক্রান্ত প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে।বিভিন্ন রাজ্যেই পরিদর্শন করবে এই দলটি, এমনই জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী। ইতিমধ্যেই নেপালে করোনা ভাইরাস আক্রান্তের খবর পাওয়ায় ভারত-নেপাল সীমান্তে জারি হয়েছে সতর্কতা।

[আরও পড়ুন: দিল্লির নির্বাচনকে ভারত-পাক যুদ্ধের সঙ্গে তুলনা, বিজেপি নেতার প্রচারে নিষেধাজ্ঞা কমিশনের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে