BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মিলবে না মুক্তি, আগামী বছরও দাপট দেখাতে পারে করোনা! আশঙ্কা এইমসের ডিরেক্টরের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: September 5, 2020 11:13 am|    Updated: September 5, 2020 11:15 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যত দিন যাচ্ছে তত হাতের বাইরে চলে যাচ্ছে দেশের করোনা পরিস্থিতি। প্রতিদিন হাজার মানুষের সংক্রমণ, শয়ে শয়ে মৃত্যু আর নিত্যনতুন রেকর্ড। দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যাটা প্রায় ৭০ হাজারের কাছাকাছি। কিন্তু এটাই নাকি শেষ নয়। আরও কঠিন সময় ভারতের জন্য অপেক্ষা করে আছে। আর কেউ নয়, এই আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন খোদ এইমসের (AIIMS) ডিরেক্টর ডা. রণদীপ গুলেরিয়া। তাঁর আশঙ্কা ভারতের যা জনসংখ্যা, তাতে আগামী দিনে আরও দ্রুতহারে বাড়বে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। এবং ২০২১ সালের শুরুর কয়েক মাসেও এই মহামারীর কবল থেকে মুক্তি পাবে না দেশ।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ডা. রণদীপ গুলেরিয়া ( (Dr Randeep Guleria)) বলছিলেন,”এটা বলে দেওয়া যাচ্ছে না যে আগামী বছরও আমাদের এই মহামারীর (CoronaVirus) কবলে থাকতে হবে না। তবে, এটা বলা যায় যে, কয়েকমাস পর এই গ্রাফটা আর ঊর্ধ্বমুখী হবে না। সেটা নিয়ন্ত্রণের মধ্যেই থাকবে। যাতে আমরা বলতে পারব, আগামী বছরের শুরুর দিকেই এই মহামারীকে রুখে দেওয়া যাবে।”

[আরও পড়ুন: ক্রমবর্ধমান করোনা সংক্রমণের মধ্যেই রবিবার খুলছে দিল্লির নিজামুদ্দিন আউলিয়ার দরগা]

এইমসের ডিরেক্টর বলছেন,”আসলে করোনার সংক্রমণ এখন গোটা ভারতে ছড়িয়ে গিয়েছে। ছোট শহর বা গ্রামেও মানুষ সংক্রমিত হচ্ছেন। এবং সেজন্যই প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যাটা এই হারে বাড়ছে। আমাদের যা জনসংখ্যা তাতে আগামী কয়েকমাসও এভাবেই বাড়তে থাকবে আক্রান্তের সংখ্যা। তারপর সেটা নিয়ন্ত্রণে আসবে। আর যদি প্রতি ১০ লক্ষ জনসংখ্যায় আক্রান্তের সংখ্যাটা হিসেব করা যায়, তাহলে আমরা নিচের দিকেই থাকব।”

[আরও পড়ুন: দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যায় ফের রেকর্ড বৃদ্ধি, মোট আক্রান্ত পেরল ৪০ লক্ষ]

রণদীপ গুলেরিয়ার আশঙ্কা দেশের কোনও কোনও জায়গায় ইতিমধ্যেই করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের আগমন হয়েছে। বেশ কিছু এলাকায় দ্বিতীয়বার ধাক্কা দিচ্ছে করোনা ভাইরাস (COVID-19)। এর জন্য অবশ্য সাধারণ মানুষের দায়িত্বজ্ঞানহীনতাকেই দায়ী করছেন এইমস ডিরেক্টর। তাঁর ধারণা, দীর্ঘদিন ধরে করোনা বিধি পালন করে এখন অনেকেই হাল ছেড়েছেন। যা হবে দেখা যাবে, এই মানসিকতা নিয়ে এখন আর অনেকেই করোনা বিধি মানছেন না। সেজন্যই বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement