BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ভারতে কতদিনে তৈরি হবে করোনার প্রতিষেধক? জানিয়ে দিলেন গবেষণা বিভাগের কর্তা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: April 21, 2020 11:24 am|    Updated: April 21, 2020 11:58 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার প্রতিষেধক তৈরির কাজে গোটা বিশ্বের সঙ্গেই এগোচ্ছে ভারত। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের তাবড় বিজ্ঞানীরা লেগে পড়েছেন মারক এই ভাইরাসের ওষুধ বা প্রতিষেধক তৈরিতে। কিন্তু কেউই এখনও আশার বাণী শোনাতে পারেননি। অন্তত এক থেকে দেড় বছরের আগে এই ওষুধ আবিস্কার হওয়ার কোনও নিশ্চয়তা দিতে পারেনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও। কিন্তু ভারতে করোনা গবেষণার কী অবস্থা? আমরা কতদিনে এর প্রতিষেধক তৈরি করব? সরকারের গবেষণা বিভাগের কর্তারা আশার কথা শোনাতে পারছেন না। তাঁরা বলছেন, ভারতে গবেষণা যে গতিতে এগোচ্ছে, তাতে আমাদেরও করোনার ওষুধ তৈরিতে ১২ থেকে ১৮ মাসই সময় লাগবে।

corona-test

ডিপার্টমেন্ট অফ বায়োটেকনোলজির (Department of Biotechnology) সেক্রেটারি রেণু স্বরূপ বলছেন, “আপাতত সবেচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজ হল করোনার প্রতিষেধক তৈরি করা। ভারতের বহু সংস্থা বিদেশি সংস্থার সাহায্য নিয়ে কাজ করছে। এখন প্রাথমিক পর্যায়ের গবেষণা চলছে। পশুদের উপর পরীক্ষা-নিরিক্ষা চালানো হচ্ছে। আশা করি, এবছরের শেষের দিকে করোনার টিকা সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা ভারতীয় সংস্থাগুলির তৈরি হয়ে যাবে। আমাদের ধারণা এই প্রতিষেধক বানাতে ১২ থেকে ১৮ মাস সময় লাগবে।” গবেষণা বিভাগের ওই কর্তা জানান, করোনার প্রতিষেধক তৈরিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (World Health Organization) এবং একাধিক বিদেশি সংস্থা ভারতকে সাহায্য করছে। পরস্পরের মধ্যে তথ্যের আদানপ্রদানও হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে মুম্বইয়ে করোনায় আক্রান্ত ৫৩ জন সাংবাদিক]

রেণু স্বরূপের (Renu Swarup) সংস্থা অর্থাৎ ডিপার্টমেন্ট অফ বায়োটেকনোলজিই করোনার ওষুধ নিয়ে যারা গবেষণা করছে, তাঁদের অর্থ সাহায্যের দায়িত্বে আছে। ইতিমধ্যেই তাঁরা বেশ কয়েকটি গবেষণা সংস্থাকে আর্থিক সাহায্য করেছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ সায়েন্স (Indian Institute of Science), ইনস্টিটিউট অফ ইমিউনোলজি, ক্যাডিলা হেলথকেয়ার লিমিটেড। এই সংস্থাগুলি একযোগে করোনার ওষুধ নিয়ে গবেষণা করছে। উল্লেখ্য, দিন কয়েক আগেই WHO সরকারিভাবে জানিয়েছিল করোনার টিকা তৈরি হতে আরও অন্তত ১২ মাস সময় লাগবে। এখনও মারক ভাইরাসের ওষুধ তৈরিতে আশানুরূপ অগ্রগতি হয়নি। করোনার প্রতিষেধক হিসেবে ৪২টি ওষুধ নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা চলছে। এদের মধ্যে অন্তত ২টি ওষুধের অনেকটা অগ্রগতি হয়েছে এবং এই দু’টি ওষুধ আশা জাগাচ্ছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement