BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লকডাউনের ফলে কমেছে সংক্রমণ দ্বিগুণ হওয়ার হার, জানাল স্বাস্থ্যমন্ত্রক

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: April 20, 2020 9:44 pm|    Updated: April 20, 2020 9:48 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্বজুড়ে মহামারির আকার ধারণ করা করোনার জেরে মৃত ও আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। এর সংক্রমণ ঠেকাতে গত ২৫ মার্চ থেকে লকডাউন চলছে ভারতে। ১৪ এপ্রিল তা উঠে যাওয়ার কথা থাকলেও পরিস্থিতি বিচার করে আগামী ৩ মে পর্যন্ত লকডাউনের সময়সীমা বৃদ্ধি করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। তার সুফল পাওয়া গিয়েছে বলে সোমবার জানালেন স্বাস্থ্যমন্ত্রকের অতিরিক্ত সচিব লব আগরওয়াল।

সোমবার দুপুরে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে প্রকাশিত বুলেটিনেও দেশের কিছু জায়গায় সংক্রমণের হার কমেছে বলে উল্লেখ করা হয়। এর জন্য উদাহরণ হিসেবে উল্লেখ করা হয়, কেরল ও ওড়িশার নাম। এপ্রসঙ্গে লব আগরওয়াল বলেন, ‘সংক্রমণ ঠেকাতে আগেভাগে লকডাউন করার সিদ্ধান্ত অনেক কাজে দিয়েছে। লকডাউন শুরু হওয়ার আগে যেখানে ৩.৪ দিনে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণ হচ্ছিল তা এখন ৭.৫ দিনে হচ্ছে। আর এই বিষয়ে ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত পাওয়া তথ্য অনুযায়ী, ১৮ রাজ্যের মধ্যে সবথেকে এগিয়ে রয়েছে কেরল ও ওড়িশা। কেরলে যেখানে ৭২ দিনে আক্রান্তে সংখ্যা দ্বিগুণ হচ্ছে ওড়িশায় সেখানে সময় লাগছে প্রায় ৪০ দিন। যা জাতীয় সংক্রমণের হারের থেকে অনেক ভাল অবস্থায় রয়েছে।

[আরও পড়ুন: খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে মুম্বইয়ে করোনায় আক্রান্ত ৫৩ জন সাংবাদিক ]

স্বাস্থ্যমন্ত্রক থেকে আরও জানানো হয়, ১০০ জন করোনা আক্রান্তের মধ্যে ৮০ জনের শরীরে অল্প থেকে মাঝারি ধরনের উপসর্গ চোখে পড়ছে। ১৫ জনের শরীরে তাকে আরও প্রভাব বিস্তার করতে দেখা যাচ্ছে। আর পাঁচজন খুব খারাপ অবস্থায় থাকছেন। এখনও পর্যন্ত আক্রান্তের মধ্যে ১৪.৭৫ শতাংশ মানুষ সুস্থও হয়ে উঠেছেন।

[আরও পড়ুন: প্রসব বেদনায় কাতর অন্ত্বঃসত্তা, মেঝেতে পড়া রক্ত পরিস্কার করাল হাসপাতাল]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement