১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  সোমবার ৩ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

নাবালিকাকে গণধর্ষণের পর খুন, ২৮ দিনের মধ্যে ফাঁসির সাজা তিন ধর্ষকের

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: March 3, 2020 6:48 pm|    Updated: March 3, 2020 6:50 pm

Death penalty to three for rape & murder of 6-year-old girl

ছবিটি প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ৬ বছরের এক নাবালিকাকে গণধর্ষণের পর খুন করেছিল। সেই অপরাধে তিন দোষী সাব্যস্তকে ফাঁসিতে ঝোলানোর নির্দেশ দিল ঝাড়খণ্ডের একটি আদালত। ধর্ষণ ও খুনের ঘটনার মাত্র ২৮ দিনের মধ্যে অভিযুক্তদের সাজা শোনার এই ঘটনায় তৈরি হয়েছে নতুন এক নজির। সাজাপ্রাপ্তরা হল মিঠু রাই, পঙ্কজ ও অশোক রাই।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সরস্বতী পুজোর মেলা দেখতে গত ৫ ফেব্রুয়ারি দুমকা (Dumka) জেলার একটি গ্রামে ঠাকুমার বাড়িতে গিয়েছিল ৬ বছরের ওই নাবালিকা। সেইদিন সন্ধেয় ওই নাবালিকার এক কাকাকে ডেকে মেয়েটিকে মেলায় পাঠাতে বলে মিঠু রাই। পরে মেয়েটি যখন মেলা থেকে ফিরছিল তখন তাঁকে নির্জন জায়গায় তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে তিন সাজাপ্রাপ্ত। তারপর শ্বাসরোধ করে ওই নাবালিকাকে খুন করে ঘাসের জঙ্গলে ফেলে পালায়। পরে মেয়েটির বাড়ির লোক খোঁজাখুঁজি শুরু করলে তাঁদের সঙ্গে মিঠুও যোগ দিয়েছিল। দুদিন ধরে খোঁজার পর সাত তারিখ ওই নাবালিকার মৃতদেহ উদ্ধার হয়।

[আরও পড়ুন: পুলওয়ামার আত্মঘাতী জঙ্গিকে আশ্রয় দেওয়ার অভিযোগ, ধৃত বাবা ও মেয়ে]

 

এরপরই ভয় পেয়ে যায় মিঠু। ধরা পড়তে পারে এই আশঙ্কায় মুম্বই পালিয়ে যায়। কিন্তু, শেষরক্ষা হয়নি পরেরদিনই মুম্বই থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে দুমকা নিয়ে আসে পুলিশ। তারপর তাকে জেরা করে পঙ্কজ ও অশোক রাইয়ের নাম জানতে পারে পুলিশ। গ্রেপ্তার করা হয় তাদেরও। দুমকা আদালতে মামলাটি চালু হওয়ার পর মাত্র চারটি শুনানি হয়। এরপরই অভিযুক্তদের দোষী সাব্যস্ত করেন দুমকা জেলা আদালতের বিচারক তৌফিকুল হাসান।
আজ এই মামলার রায় দেওয়ার সময় মৃতার বাড়ির লোকদের কাছে তাঁরা কী শাস্তি চাইছেন তা জানতে চান তিনি। ওই নাবালিকার পরিবারের তরফে ফাঁসির দাবি করা হয়। তা মেনে নিয়ে তিনজনকে ফাঁসিতে ঝোলানোর নির্দেশ দেন বিচারক।

[আরও পড়ুন: হোলির পরই দিল্লির হিংসা নিয়ে আলোচনা, সংসদে বিক্ষোভের মুখে জানালেন স্পিকার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে