BREAKING NEWS

৭ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

শীঘ্রই অপ্রয়োজনীয় হবে এটিএম-ডেবিট কার্ড, বলছে নীতি আয়োগ

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: November 12, 2017 3:14 am|    Updated: September 24, 2019 5:55 pm

Debit Cards, ATMs To Be Redundant In 4 Years, Says Niti Aayog

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশবাসীকে ক্যাশলেসের দিকে নিয়ে যেতে চায় মোদি সরকার। সেই লক্ষ্যে আর তিন-চার বছরের মধ্যে এটিএম, ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ডের প্রয়োজন পড়বে না। আপনার মোবাইল থেকে হবে যাবতীয় লেনদেন। দেশ যে পথে এগোচ্ছে তাতে এভাবেই স্মার্ট হবেন নাগরিকরা। এমনই পরিকল্পনার কথা জানালেন নীতি আয়োগের সিইও অমিতাভ কান্ত।

[ব্যায়াম নয়, ‘ফিট’ থাকতে মহিলাদের গেরস্থালি কাজের দাওয়াই]

নয়ডায় এক বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষ্ঠানে গিয়ে নীতি আয়োগের সিইও বলেন, ভারত এগোচ্ছে। আগামী তিন থেকে চার বছরের মধ্যে ক্রেডিট, ডেবিট এবং এটিএম কার্ড কার্যত অকেজো হয়ে পড়বে। এর যুক্তি হিসাবে তিনি বলেন, দেশের জনসংখ্যার ৭২ শতাংশ ৩২ বছরের নিচে। এরা মোবাইলে অনেক বেশি স্বচ্ছন্দ্য। তাই মোবাইলই হয়ে উঠবে আর্থিক লেনদেনের প্রধান মাধ্যম। অমিতাভ কান্তের সংযোজন, বিশ্বের মধ্যে ভারতই একমাত্র দেশ যেখানে মোবাইল সংযোগ এবং ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট সবথেকে বেশি। এই ক্ষেত্রে ভারত ইউরোপ এবং আমেরিকার থেকে অনেকটা এগিয়ে। মুঠোয় থাকা ফোনেই যাতে সমস্ত রকমের লেনদেন হয় সেই ব্যবস্থাই করা হচ্ছে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ২০২০-২১ এর মধ্যে মোবাইল হয়ে উঠবে লেনদেনের গুরুত্বপূর্ণ গ্যাজেট। এই প্রসঙ্গে কান্ত মনে করেন বিমুদ্রাকরণের জন্য দেশবাসীর একাংশ ডিজিটাল লেনদেনে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছেন। তার সুফল আগামী কয়েক বছরের মধ্যে মিলবে।

[পড়ুয়াদের মিড-ডে মিলের থালা দিয়েই শৌচাগার পরিস্কার, বিতর্কে মধ্যপ্রদেশের স্কুল]

প্রসঙ্গত, যোজনা বা পরিকল্পনা কমিশনের অবলুপ্তি ঘটিয়ে নরেন্দ্র মোদি নীতি আয়োগ তৈরি করেছিলেন। যার চেয়ারম্যান স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু এই সংস্থার কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল বিরোধীরা। দেশের উন্নয়নে নীতি আয়োগের আদৌ কোনও ভূমিকা আছে কিনা তা নিয়ে শুরু হয়েছিল সমালোচনা। সেই অভিযোগ উড়িয়ে সংস্থার সিইও কান্ত মনে করেন ঠিক পথেই এগোচ্ছে নীতি আয়োগ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে