BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

প্রতিরক্ষার দায়িত্ব নিয়েই প্রথম সফরে সিয়াচেন যাচ্ছেন রাজনাথ সিং

Published by: Tanujit Das |    Posted: June 2, 2019 4:56 pm|    Updated: June 2, 2019 4:56 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ২০১৪-য় দিল্লির ক্ষমতায় আসার পর থেকে একাধিকবার সিয়াচেনে গিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ বিশ্বের সর্বোচ্চ যুদ্ধক্ষেত্রে সেনা জওয়ানদের সঙ্গে দীপাবলি উদযাপন করেছেন তিনি৷ দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পরও একই ভাবে সিয়াচেনকে বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছে মোদি সরকার ২.০৷ প্রতিরক্ষা মন্ত্রী হিসাবে সোমবার প্রথমবারের জন্য সিয়াচেন সফরে যাচ্ছেন রাজনাথ সিং৷

[ আরও পড়ুন: মহিলাদের জন্য বিনামূল্যে মেট্রো-বাস পরিষেবা, নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত কেজরি সরকারের ]

জানা গিয়েছে, সফরকালে ভারত-পাক সীমান্তের নিরাপত্তা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখবেন রাজনাথ সিং। খোঁজ নেবেন বিশ্বের সর্বোচ্চ যুদ্ধক্ষেত্রে কর্মরত সেনা জেওয়ানদের৷ নয়া প্রতিরক্ষা মন্ত্রীকে নিরাপত্তা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখাবেন সেনা আধিকারিকরা। সূত্রের খবর, রাজনাথ সিং ছাড়াও সোমবার সেখানে যাবেন সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত৷ এছাড়া সঙ্গে থাকতে পারেন ভারতীয় সেনার নর্দান কমান্ডের প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল রণবীর সিং, কার্গিল যুদ্ধের নায়ক লেফটেন্যান্ট জেনারেল ওআইকে জোশী এবং ১৪ জন সেনা কমান্ডার৷

২০১৪-তে ক্ষমতায় আসার পর, সেবছরই সিয়াচেনে সেনা জওয়ানদের সঙ্গে দীপাবলি পালন করেন নরেন্দ্র মোদি৷ ২০১৫-তে মোদর পাঞ্জাবে ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে নিয়ন্ত্রণরেখায় কর্তব্যরত বিএসএফ জওয়ানদের সঙ্গে দীপাবলি পালন করেন প্রধানমন্ত্রী। ২০১৬-র দীপাবলিতে হিমাচল প্রদেশের আইটিবিপি জওয়ানদের সঙ্গে দীপাবলি কাটান মোদি। ২০১৭-র দিওয়ালিতে জম্মু-কাশ্মীরের গুরেজে সেনাদের সঙ্গে সময় কাটান প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া সিয়াচেনে শহিদ জওয়ানদের স্মরণে এবছরই সিয়াচেন ওয়ার মেমরিয়াল তৈরি করেছে সরকার। এছাড়া বিশ্বের ভয়ঙ্করতম যুদ্ধক্ষেত্রে ভারতীয় সেনাকে সাহায্য করতে এগিয়ে এসেছে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো৷ সিয়াচেনে ভারতীয় সেনার চিকিৎসাজনিত সাহায্যার্থে অভাবনীয় প্রযুক্তি নিয়ে এসেছে সংস্থাটি৷ প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে এবার এই প্রযুক্তিতেই ভারতীয় সেনার তিন বাহিনীকে চিকিৎসা পরিষেবা প্রদান করতে চলেছে ইসরো৷

[ আরও পড়ুন: বিজেপি বিধায়কের স্কুলে বন্দুক চালানোর প্রশিক্ষণ বজরং দলের, পুলিশের দ্বারস্থ স্থানীয়রা ]

জানা গিয়েছে, এক্ষেত্রে ভারতীয় সেনার তিন বাহিনী ও সিয়াচেনে ভারতীয় সেনার জওয়ানদের জন্য ব্যবস্থা করা হয়েছে স্যাটেলাইট টেলি যোগাযোগ ব্যবস্থার৷ যার মাধ্যমে দুর্গম স্থানে ভারতীয় সেনার বেস ক্যাম্পেও অতিসহজে পৌঁছে যেতে পারবেন অভিজ্ঞ চিকিৎসকরা৷ তৎক্ষণাৎ জওয়ানদের যেকোনও ধরনের চিকিৎসার প্রয়োজন হলে দূর থেকে বসেই তাঁদের পরামর্শ দিতে পারবেন চিকিৎসকরা৷ ফলে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার আগেই প্রাথমিক বা কোনও কোনও ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ চিকিৎসা করাই সম্ভবপর হবে৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement