৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘দেশের এক ইঞ্চি জমিও কেউ কেড়ে নিতে পারবে না’, লাদাখে হুঙ্কার রাজনাথের

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 17, 2020 1:53 pm|    Updated: July 17, 2020 2:17 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দুদিনের সফরে শুক্রবার লাদাখে গিয়েছেন দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রী  রাজনাথ সিং (Rajnath Singh)। সীমান্তের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার পাশাপাশি জওয়ানদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। তাঁর সামনেই চলে সামরিক মহড়া। একইসঙ্গে লেহ-র (Leh) ফরোয়ার্ড বেস থেকে প্রতিরক্ষামন্ত্রীর (Defence Minister) হুঙ্কার, “দেশের এক ইঞ্চি জমিও কেউ কেড়ে নিতে পারবে না।” একইসঙ্গে তাঁর মন্তব্য, “সমস্যা মেটাতে দুদেশের মধ্যে আলোচনা চলছে। কিন্তু কতদূর সমস্যা মিটবে, তা  নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।” প্রসঙ্গত. ভারত-চিনের সীমান্ত সমস্যা মেটাতে একের পর এক বৈঠক চলছে। পূর্ব লাদাখ সীমান্তের উত্তেজনা প্রশমনও হয়েছে। সেনা সরিয়েছে লালফৌজ। কিন্তু প্যাংগংয়ের চার থেকে আট নম্বর ফিঙ্গার পয়েন্ট পর্যন্ত ভারতীয় সেনার নো এন্ট্রি করে রেখেছে। তা নিয়ে ভারত যে বেশ ক্ষুব্ধ, তা এদিন প্রতিরক্ষামন্ত্রীর মন্তব্যেই প্রকাশ পেল বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। 

rajnatah-1

গত দেড় মাস ধরে পূর্ব লাদাখের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা (LAC) বরাবর অঞ্চলের অধিকার নিয়ে চিনের (China) সঙ্গে টানাপোড়েন চলছে। অভিযোগ, চিনের লালফৌজ (PLA) ভারতের জমিতে ঘাঁটি গেড়েছে। এর মাঝেই দুপক্ষের মুখোমুখি সংঘর্ষে শহিদ হন ২০ ভারতীয় জওয়ান। এর পরই আরও উত্তাল হয় দুদেশের সম্পর্ক।  সেই পরিস্থিতিতে লাদাখে যাওয়ার কথা ছিল প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর। কিন্তু আচমকাই সেই সফর বাতিল হয়। দেশ ও বিশ্ববাসীকে চমকে দিয়ে লেহ-র ফরোয়ার্ড বেসে হাজির হন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এরপর এদিন চিফ ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত ও সেনা প্রধান জেনারেল এম এম নারাভানের সঙ্গে দুদিনের সফরে লাদাখে গিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। সেখানকার বিভিন্ন সেনাঘাঁটিতে যাবেন তিনি। একইসঙ্গে কাশ্মীরেও যাবেন রাজনাথ। 

[আরও পড়ুন: অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে একদিনে দেশে করোনা সংক্রমিত প্রায় ৩৫ হাজার, বাড়ল মৃত্যুও]

এদিন রাজনাথ সিংয়ের সামনেই সেনা মহড়া চলে। মহড়া হয় অ্যাপাচে কপ্টারেরও। এরপরই তিনি জওয়ানদের সঙ্গে সীমান্তের পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলেন। ফরোয়ার্ড বেস থেকে তিনি জানান, “সীমান্ত সমস্যা নিয়ে দুপক্ষের (ভারত-চিন) মধ্যে আলোচনা চলছে। তবে তাতে কতদূর সমস্যা মিটবে জানি না। তবে আলোচনার মাধ্যমে সমাধান পাওয়া গেলে, এর চেয়ে ভাল কিছু হতে পারে না।” এর পরই রাজনাথ সিংয়ের হুঙ্কার, “বিশ্বের কোনও শক্তি দেশের এক ইঞ্চিও জমি কেড়ে নিতে পারবে না।”  সেনা জওয়ানদের মনোবল বাড়ানোর পাশাপাশি শহিদ জওয়ানদের উদ্দেশে শোকজ্ঞাপন করে রাজনাথের মন্তব্য, “দিন কয়েক আগে চিনা সেনার সঙ্গে সংঘর্ষে আমাদের জওয়ানরা শহিদ হয়েছেন, তাঁদের প্রতি আমি শ্রদ্ধা জানাচ্ছি। এই ঘটনায় আমি ভীষণই মর্মাহত। ” 

[আরও পড়ুন: করোনার মারে বেকায়দায় অর্থনীতি, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে ‘স্পেশ্যাল ৫০’]

সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রে খবর, দু’দিনের সফরে জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখে ভারতীয় সেনার ফরওয়ার্ড পোস্টগুলিতে যান প্রতিরক্ষা মন্ত্রী। এদিন, লেহর স্তাকনা ফরওয়ার্ড বেসে জওয়ানদের বিমান থেকে প্যারাশুট বেঁধে নামার মহড়া দেখেন রাজনাথ। পাশাপাশি, সীমান্তে সৈনিকদের অস্ত্রশস্ত্রগুলিও হাতে নিয়ে পরখ করেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী।  

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement