২৬ আষাঢ়  ১৪২৭  শনিবার ১১ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

এবার করোনায় আক্রান্ত ICMR-এর বিজ্ঞানী, স্যানিটাইজ করা হচ্ছে গোটা হেড কোয়ার্টার

Published by: Sulaya Singha |    Posted: June 1, 2020 1:11 pm|    Updated: June 1, 2020 10:25 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যারা সর্বদা দেশবাসীকে করোনা মোকাবিলার পথ বাতলে দিচ্ছে, গোটা দেশে মারণ ভাইরাসের (Coronavirus) গতি প্রকৃতির দিকে প্রতিনিয়ত খেয়াল রাখছে, এবার সেখানেই ছড়াল সংক্রমণ। দিল্লির ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চে (ICMR) এক বিজ্ঞানীর শরীরে থাবা বসিয়েছে কোভিড-১৯।

জানা গিয়েছে, সপ্তাহ দুয়েক আগেই মুম্বই থেকে দিল্লি ফিরেছিলেন ওই বিজ্ঞানী। তাঁর কোভিড পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। শোনা যাচ্ছে, গত সপ্তাহেই তিনি একটি বৈঠকে শামিল হয়েছিলেন। যেখানে উপস্থিত ছিলেন নীতি আয়োগের (NITI Aayog) সদস্য ডা. বিনোদ পাল, ICMR-এর ডিরেক্টর জেনারেল ডা. বলরাম ভার্গব ও ডা. আর আর গঙ্গাখেড়কর এবং ICMR-এর এপিডেমিওলজি ডিভিশনের প্রধান। ফলে স্বাভাবিকভাবেই ছড়িয়েছে আতঙ্ক।

[আরও পড়ুন: হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনের ‘হাই ডোজ’ কমায় করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা’, দাবি ICMR-এর সমীক্ষায়]

এদিকে, অন্যান্য কর্মী-আধিকারিকদের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে দু’দিন ধরে গোটা ICMR বিল্ডিং স্যানিটাইজ ও ফিউমিগেট করা হবে বলে খবর। যাঁরা করোনা মহামারী সংক্রান্ত কাজে যুক্ত, শুধুমাত্র তাঁদেরই সোমবার বিল্ডিংয়ে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এক কর্মীর তরফে জানা গিয়েছে, রবিবারই তাঁদের জানানো হয়, সোমবার থেকে যেন কেউ অফিস না আসে। দু’দিন হেড কোয়ার্টার ফিউমিগেট করা হবে। সেই কারণে এই দু’দিন কর্মীদের বাড়ি থেকে কাজ করার নির্দেশ নেওয়া হয়েছে। শুধুমাত্র কোভিড-১৯ নিয়ে যে দল কাজ করছে, খুব প্রয়োজন হলে তাঁদেরই আসতে বলা হয়েছে। তবে উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা অফিস যাচ্ছেন বলেই খবর।

উল্লেখ্য, লকডাউন শিথিল হতেই দেশে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৮,৩৯২ জনের শরীরে ছড়িয়েছে সংক্রমণ। বর্তমানে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১,৯০,৫৩৫। মৃত ৫,৩৯৪ জন। করোনা থেকে দেশকে রক্ষা করতে নিরলস পরিশ্রম করে চলেছে ICMR। ভাইরাস মুক্তির উপায় খুঁজতে নানা গবেষণা করা হচ্ছে। অথচ এবার সেখানেই করোনার হানা। উদ্বিগ্ন বিজ্ঞানীরাও।

[আরও পড়ুন: ‘অদৃশ্য শত্রুর বিরুদ্ধে লড়ছেন দেশের অপরাজেয় সৈনিকরা’, স্বাস্থ্যকর্মীদের লড়াইকে কুর্নিশ প্রধানমন্ত্রীর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement