Advertisement
Advertisement
Arundhati Roy

বিচ্ছিন্নতাবাদে উসকানি! এবার সন্ত্রাসদমন আইনে মামলা অরুন্ধতী রায়ের বিরুদ্ধে

ইউএপিএ আইনে মামলা করার অনুমতি দিলেন দিল্লির উপরাজ্যপাল ভি কে সাক্সেনা। 

Delhi LG approves prosecution of Arundhati Roy under UAPA
Published by: Monishankar Choudhury
  • Posted:June 14, 2024 7:33 pm
  • Updated:June 14, 2024 9:34 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার সন্ত্রাসদমন আইনে মামলা অরুন্ধতী রায়ের বিরুদ্ধে। লেখিকার বিরুদ্ধে অত্যন্ত কড়া ইউএপিএ বা সন্ত্রাসদমন আইনে মামলা করার অনুমতি দিলেন দিল্লির উপরাজ্যপাল ভি কে সাক্সেনা। 

১৪ বছর আগের সেই ঘটনায় ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৫৩এ, ১৫৩বি ও ৫০৫ ধারায় মামলা রুজু হয়েছে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে। এছাড়াও ইউএপিএ’র (UAPA) ১৩ নম্বর ধারাতেও তাঁদের অভিযুক্ত করার আবেদন করেছিল দিল্লি পুলিশ। আইপিসির তিনটে ধারাতেই মামলা শুরুর অনুমতি আগেই দিয়েছিলেন দিল্লির উপরাজ্যপাল ভি কে সাক্সেনা। এবার ইউএপিএ ধারাতেও অরুন্ধতীর বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের অনুমতি দিলেন উপরাজ্যপাল। ফলে বলার অপেক্ষা রাখে না, বিপদ আরও বাড়ল বুকার পুরস্কার জয়ী লেখিকার।

Advertisement

[আরও পড়ুন: গুজরাটে ৫০ ফুট গভীর বোরওয়েলে পড়ল দেড় বছরের শিশু, শুরু উদ্ধারকাজ]

উল্লেখ্য, ‘গড অফ দ্য স্মল থিংস’ উপন্যাস লিখে ১৯৯৭ সালে বুকার পুরস্কার পেয়েছিলেন অরুন্ধতী রায় (Arundhati Roy)। ২০১০ সালের ২১ অক্টোবর ‘আজাদি: দ্য অনলি ওয়ে’ নামের এক অনুষ্ঠানে ভাষণ দেওয়ার সময় তিনি কাশ্মীরকে ভারতের থেকে বিচ্ছিন্ন করার দাবি জানিয়েছিলেন বলেই অভিযোগ। ওই সভায় অরুন্ধতীর পাশাপাশি আরও একাধিক জনের বিরুদ্ধে উস্কানিমূলক ভাষণের অভিযোগ উঠেছিল। সেই তালিকায় ছিলেন, সৈয়দ আলি শাহ গিলানি, এসএআর গিলানি (সম্মেলনের উপস্থাপক এবং সংসদ হামলা মামলার প্রধান অভিযুক্ত), অরুন্ধতী রায়, ডক্টর শেখ শওকত হুসেন (কাশ্মীর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক) এবং ভারা ভারা রাও।

Advertisement

[আরও পড়ুন: দড়ির ফাঁসে রেহাই খুঁজছেন অন্নদাতারা! মহারাষ্ট্রে ৫ মাসে আত্মহত্যা ৪৬১ জন কৃষকের]

অভিযোগ ছিল, ওই অনুষ্ঠান থেকে অরুন্ধতী রায় প্রচার করেন কাশ্মীর কখনই ভারতের অংশ ছিল না এবং ভারতীয় সেনা বাহিনীর দ্বারা জোরপূর্বক দখল করা হয়েছিল। তিনি আরও দাবি করেন, জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যকে ভারতের কাছ থেকে স্বাধীনতা দেওয়ার সব রকম চেষ্টা করা উচিৎ। অরুন্ধতীর সেই উস্কানিমূলক ভাষণের অভিযোগে সুশীল পণ্ডিত নামে এক ব্যক্তি অভিযোগ জানান। এর পরই এফআইআর দায়ের করে দিল্লি পুলিশ। সেই মামলাতেই এবার UAPA ধারা যোগ করার অনুমতি দিলেন উপরাজ্যপাল।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ