BREAKING NEWS

২৩ চৈত্র  ১৪২৬  সোমবার ৬ এপ্রিল ২০২০ 

Advertisement

‘দাঙ্গা তো জীবনের অঙ্গ, মাঝেমধ্যেই হয়’, বিতর্কিত মন্তব্য হরিয়ানার মন্ত্রীর

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: February 27, 2020 5:35 pm|    Updated: February 27, 2020 5:35 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সাম্প্রদায়িক অশান্তির জেরে দিল্লির পরিস্থিতি ক্রমশই ভয়াবহ হয়ে উঠেছে। বিভিন্ন জায়গায় হওয়া সংঘর্ষের জেরে এখনও পর্যন্ত মোট ৩৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। জখম হয়েছেন আরও ২০০ জনের বেশি। পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য বৃহস্পতিবার দুপুরে জরুরি বৈঠকও করেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল থেকে শুরু করে দিল্লির পুলিশ কমিশনার অমূল্য পট্টনায়েক সবাই শান্তি ফেরানোর জন্য প্রশাসন সর্বতোরকম চেষ্টা করছে বলেও দাবি করে। আজ দুপুরেই রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গে দেখা করে এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার দাবি জানায় কংগ্রেস। কেন্দ্র ও দিল্লি সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগে অমিত শাহকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর পদ সরানোর দাবি জানায়। অন্যদিকে কেন্দ্রীয় সরকারকে অবিলম্বে হিংসা আটকানোর নির্দেশ দেওয়া হয় রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের তরফেও। এর মাঝেই সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার ঘটনাকে জীবনের অংশ বলে মন্তব্য করে বিতর্কে জড়ালেন হরিয়ানার বিদ্যুৎমন্ত্রী ও রানিয়ার নির্দল বিধায়ক রঞ্জিত সিং চৌটালা।

গত শনিবার থেকে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন(CAA)’র বিরোধিতায় জাফরাবাদ মেট্রো স্টেশনের সামনে অবস্থান করছিলেন মুসলিম মহিলা। সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আস্তে আস্তে উত্তেজনা ছড়ায় উত্তর-পূর্ব দিল্লিতে। বিষয়টিকে কেন্দ্র করে রবিবার থেকেই বিভিন্ন জায়গায় গন্ডগোলে জড়িয়ে পড়ে এই আইনের সমর্থক ও বিরোধীরা। তারপর থেকে বৃহস্পতিবার দুপুর পর্যন্ত মোট ৩৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য গন্ডগোলকারীদের দেখামাত্রই গুলি করার অনুমতি দিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। অন্যদিকে সাধারণ মানুষের কাছে শান্তি বজায় রাখার অনুরোধও জানানো হয়েছে প্রশাসনের তরফে। সবাই যখন দিল্লির শান্তি ফেরানোর চেষ্টা করছে ঠিক তখনই দাঙ্গাকে জীবনের অঙ্গ বলে মন্তব্য করলেন রঞ্জিত সিং চৌটালা। এপ্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে ইন্দিরা গান্ধীর মৃত্যুর পর দিল্লিতে হওয়া দাঙ্গার প্রসঙ্গও উত্থাপন করেন।

[আরও পড়ুন: ‘সরকারের উচিত দ্রুত শান্তি ফেরানো’, দিল্লির হিংসা নিয়ে এবার সরব আরএসএসও ]

 

তিনি বলেন, ‘দাঙ্গা তো হয়েই থাকে। এমন নয় যে এই প্রথম হচ্ছে। ১৯৮৪ সালে যখন ইন্দিরা গান্ধীকে হত্যা করা হয়েছিল তখনও পুরো দিল্লি জ্বলছিল। এটা তো জীবনের অঙ্গ। মাঝেমধ্যেই হয়ে থাকে। তবে দিল্লির ঘটনা সম্পর্কে আর বেশি কিছু বলব না। কারণ এটা আদালতের বিচারাধীন বিষয়।’

[আরও পড়ুন: বয়সের ভারে পালাতে পারেননি আকবরি, দিল্লির হিংসার আগুনে খাক ৮৫-এর বৃদ্ধা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement