BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৬ মে ২০২০ 

Advertisement

দেশের সর্বোচ্চ আদালতকে সম্মান, দিল্লির প্রগতি ময়দান মেট্রো স্টেশনের নাম হল ‘সুপ্রিম কোর্ট’

Published by: Bishakha Pal |    Posted: January 1, 2020 4:47 pm|    Updated: January 1, 2020 4:47 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশের শীর্ষ আদালতকে সম্মাননা জ্ঞাপন। দিল্লির প্রগতি ময়দান মেট্রো স্টেশনের নাম বদলে হল ‘সুপ্রিম কোর্ট’। মঙ্গলবার দিল্লির উপমুখ্যমন্ত্রী এই নাম বদলের কথা সাংবাদিক সম্মেলন করে ঘোষণা করেছেন। এর পাশাপাশি দিল্লির মকবরা চকেরও নামবদল করা হয়েছে এদিন। কারগিল যুদ্ধে শহিদ ক্যাপ্টেন বিক্রম বাত্রার নামে নামকরণ হয়েছে এই জায়গার ও সংলগ্ন ফ্লাইওভারের।

কলকাতায় বছর কয়েক আগে মেট্রো স্টেশনের নামবদলের ঘটনা ঘটেছিল। টালিগঞ্জ থেকে গড়িয়া পর্যন্ত মেট্রো সম্প্রসারণের পর প্রতিটি স্টেশনের নাম দেওয়া হয় বিখ্যাত ব্যক্তিদের নাম। শহিদ ক্ষুদিরাম, কবি সুভাষ, কবি নজরুল, মাস্টারদা সূর্য সেনের নামে নাম রাখা হয় স্টেশনগুলির। তখনই টালিগঞ্জের নাম বদলে করা হয় মহানায়ক উত্তমকুমার স্টেশন। এবার সেই তালিকায় শামিল হল দেশের রাজধানীও। দিল্লি সরকারের তরফে মঙ্গলবার এই ঘোষণা করা হয়েছে। জানানো হয়েছে, এবার থেকে প্রগতি ময়দান মেট্রো স্টেশনের নাম হবে সুপ্রিম কোর্ট মেট্রো স্টেশন। জনগণের সুবিধার্থেই এমন সিদ্ধান্ত বলে খবর। মঙ্গলবার একটি সাংবাদিক সম্মেলনে দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া জানিয়েছেন, আগামী একমাসের মধ্যে মেট্রোর সমস্ত অডিও পালটে দেওয়া হবে।

[ আরও পড়ুন: ২০২০-তে জিডিপি বৃদ্ধির হার ৫ শতাংশ ছুঁতে হিমশিম খাবে দেশ, আশঙ্কা মার্কিন অর্থনীতিবিদের ]

তবে শুধু যে প্রগতি ময়দান মেট্রো স্টেশনের নাম বদলাচ্ছে, এমন নয়। দিল্লির আউটার রিং রোডের মকবরা চকেরও নাম বদলাচ্ছে। এই জায়গার নাম হচ্ছে শহিদ ক্যাপ্টেন বিক্রম বাত্রা চক। উপমুখ্যমন্ত্রী মণীশ সিসোদিয়া সাংবাদিক সম্মেলনেই জানিয়েছেন, কারগিল যুদ্ধে শহিদ হয়েছিলেন ক্যাপ্টেন বিক্রম বাত্রা। তাঁর স্মরণেই এই জায়গা ও এখানকার ফ্লাইওভারের নাম রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নামকরণ কমিটি। এছাড়াও দিল্লির বেশ কয়েকটি জায়গার নাম বদলেছে। এর মধ্যে রয়েছে বদরপুর-মেহরলি রোডও। এই রাস্তার নাম রাখা হয়েছে আচার্য শ্রী মহাপ্রজ্ঞা মার্গ।

সম্প্রতি, দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারি বাজপেয়ীর নামে মানালি-লে রোটাং পাসের নতুন টানেলের নামকরণ হয়েছে। নতুন এই টানেলের নাম রাখা হয়েছে ‘অটল টানেল’। ৮.৮ কিলোমিটারের এই টানেল ৩০০০ মিটার উচ্চতায় সবথেকে বড় টানেল। এই টানেল মানালি ও লে’র মধ্যে ৪৬ কিলোমিটারের দূরত্ব কমিয়ে দেবে এবং পরিবহণের ক্ষেত্রে অনেক অর্থ সঞ্চয় হবে।

[ আরও পড়ুন: নতুন বছরের শুরুতে প্রধানমন্ত্রীর টুইট বার্তায় কাজের খতিয়ান, সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোল ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement