BREAKING NEWS

১৫  আষাঢ়  ১৪২৯  শুক্রবার ১ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মুসলিম হওয়ায় অন্তঃসত্ত্বাকে ভরতিতে ‘না’, অ্যাম্বুল্যান্সে প্রসবের পরই মৃত্যু সদ্যোজাতের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 5, 2020 9:36 am|    Updated: April 5, 2020 9:36 am

Doctor refuses to admit pregnant woman because she's Muslim

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্রেফ মুসলিম হওয়ায় অন্তঃসত্ত্বা মহিলাকে ফিরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠল রাজস্থানের একটি সরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে। অন্য হাসপাতালে যাওয়ার পথে অ্যাম্বুল্যান্সে সন্তান প্রসব করেন ওই মহিলা। কিন্তু বাঁচানো যায়নি সদ্যোজাতকে। ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসতেই নিন্দার ঝড় উঠেছে।

ওই মহিলার স্বামী ইরফান খান জানিয়েছেন, প্রথমে স্ত্রীকে তিনি নিয়ে গিয়েছিলেন সিকরির একটি হাসপাতালে। সেখান থেকে তাঁদের ভরতপুর মহিলা হাসপাতালে যেতে বলা হয়। অভিযোগ, সেখানে যাওয়ার পর তাঁরা মুসলিম বুঝতে পেরেই ডাক্তাররা ইরফানকে বলেন তাঁর স্ত্রীকে জয়পুরের হাসপাতালে নিয়ে যেতে। কোনও উপায় না দেখে অ্যাম্বুল্যান্সে স্ত্রীকে নিয়ে জয়পুরের উদ্দেশ্যে রওনা হন ওই ব্যক্তি। কিন্তু তাতেও শেষ রক্ষা হয়নি। যাওয়ার পথে অ্যাম্বুল্যান্সেই সন্তান প্রসব করেন ওই বধূ। গাড়িতেই মৃত্যু হয় সদ্যোজাতের। এরপরই সন্তানের মৃত্যুর জন্য প্রশাসনকেই কাঠগড়ায় তোলেন ইরফান। 

[আরও পড়ুন: করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ৮ এপ্রিল সর্বদল বৈঠকের ডাক প্রধানমন্ত্রীর]

অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ার কারণেই ওই বধূকে জয়পুরে পাঠানো হয়েছিল বলে জানিয়েছেন ভরপুর মহিলা হাসপাতালের প্রিন্সিপাল। যদিও এর পিছনে অন্য কোনও কারণ ছিল কি না তা জানা নেই বলেই দাবি তাঁর। পাশাপাশি বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাসও দিয়েছেন তিনি। এই ঘটনায় রাজস্থান সরকারের অন্দরে শুরু হয়েছে চাপানউতোর। ভরতপুরের বিধায়ক রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী, তাঁর এলাকায় এই ঘটনায় কটাক্ষের শিকার হতে হচ্ছে তাঁকে। অন্যদিকে, ভরতপুরের ওই হাসপাতালের ডাক্তারদের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন এআইএমআইএম নেতা আসাদউদ্দিন ওয়েইসি (Asaduddin Owaisi)। মুসলিমদের সঙ্গে এই আচরণ পরিবর্তন করতে অবিলম্বে প্রশাসনের পদক্ষেপ নেওয়া উচিত বলেও দাবি তাঁর।

 

[আরও পড়ুন: করোনাকে কুপোকাত করার ভুয়ো বিজ্ঞাপন! কেন্দ্রের নজরে দুই সংস্থা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে