BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ২৭ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘আবার অন্য মামলায় ফাঁসাতে পারে’, জেল থেকে মুক্তি পেয়েই নতুন আশঙ্কা কাফিল খানের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: September 2, 2020 11:27 am|    Updated: September 2, 2020 11:27 am

Dr Kafeel Khan says UP government could frame him in another case

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অনেক টানাপোড়েনের পর জেল থেকে ছাড়া পেয়েছেন। কিন্তু তারপরও নিশ্চিন্ত হতে পারছেন না উত্তরপ্রদেশের বিতর্কিত চিকিৎসক ডাঃ কাফিল খান (Kafeel Khan)। তাঁর আশঙ্কা যোগী সরকার আবার অন্য কোনও মামলায় তাঁকে ফাঁসিয়ে দিতে পারে। গতকাল মাঝরাতে মথুরার জেল থেকে ছাড়া পেয়েছেন তিনি। ছাড়া পেয়েই ফের উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে (Yogi Adityanath) তোপ দেগেছেন কাফিল। তাঁর সাফ কথা, উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী রাজধর্ম পালন করছেন না। তিনি অবোধ বালকের মতো আচরণ করছেন।

এলাহাবাদ হাই কোর্টের (Allahabad High Court ) নির্দেশে মঙ্গলবার মধ্যরাতে কাফিল খানকে মথুরার জেল থেকে ছাড়া হয়। গতকাল সকালেই এলাহাবাদ হাই কোর্ট জানায়, কাফিলকে আটক রাখা সম্পূর্ণ অবৈধ। তাঁর মন্তব্যে ঘৃণা বা বিদ্বেষ ছড়ানোর মতো কোনও শব্দ ছিল না। আদালত বলেছে, কাফিল খানের বক্তব্য থেকে জেলাশাসক বাছাই করা কয়েকটি লাইন বা অনুচ্ছেদ নিয়ে আপত্তি জানিয়েছিলেন। জেলাশাসকের অভিপ্রায় সঠিক ছিল না। এলাহাবাদ হাই কোর্টের এই নির্দেশ সকাল ১১ টার মধ্যে মথুরা জেলে পৌঁছে গেলেও, তাঁকে ছাড়তে গড়িমসি করা হয় বলে অভিযোগ তুলেছেন কাফিলের পরিবার। এমনকী গতকাল তিনি ছাড়া না পেলে জেল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে আদালতের নির্দেশ অমান্যের মামলা করারও হুমকি দিয়েছিলেন তিনি। শেষপর্যন্ত মধ্যরাতে ছাড়া হয় কাফিলকে।

[আরও পড়ুন: সংসদেও প্রশ্ন করার অধিকার হারাচ্ছে বিরোধীরা! বাদল অধিবেশনে বাদ ‘কোশ্চেন আওয়ার’]

জেল থেকে মুক্তি পেয়ে তিনি বলেন,”আমি আমার শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছে কৃতজ্ঞ। সরকার আমাকে মুক্তি দিতে চায়নি। কিন্তু হাজার হাজার মানুষের প্রার্থনায় মুক্তি পেয়েছি আমি। রামায়ণে বাল্মীকি বলেছেন, রাজার উচিত সবসময় রাজধর্ম পালন করা। কিন্তু উত্তরপ্রদেশে সেটা হচ্ছে না। এখানকার মুখ্যমন্ত্রী অবোধ বালকের মতো আচরণ করছেন।” কাফিল জানিয়েছেন, এরপর তিনি কাজ করতে চান, অসম এবং বিহারের বন্যা কবলিতদের জন্য। কিন্তু তাঁর আগে যোগী সরকার তাঁকে অন্য কোনও মামলায় ফাঁসিয়ে দিতে পারে বলে আশঙ্কা বিতর্কিত চিকিৎসকের।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে