BREAKING NEWS

১১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  সোমবার ২৮ নভেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্রীকে গণধর্ষণ করে পুড়িয়ে খুন

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 17, 2016 1:07 pm|    Updated: December 17, 2016 1:07 pm

Engineering student gangraped, burnt to death

প্রতীকী ছবি।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিল্লির পর এবার রাঁচি৷

এক তরুণীকে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে মারল দুষ্কৃতীরা৷ নারী নির্যাতন রুখতে তৈরি হওয়া কঠোর আইন পরিস্থিতির যে কোনও বদল আনতে পারেনি সে কথা আরও একবার প্রমাণিত হল৷ ২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর রাতে চলন্ত গাড়িতে গণধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন নির্ভয়া৷ হত্যাও করা হয় তাঁকে৷ বৃহস্পতিবার রাতে দিল্লির রাজপথে ফের ধর্ষণের শিকার হন এক তরুণী৷ তাও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের স্টিকার লাগানো গাড়িতে! এবার শনিবার সকালেই রাঁচির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল৷

বছরকুড়ির এই তরুণী জয়া ভারতীর বাস ঝাড়খণ্ডের বরকাখানায়৷ রাঁচিতে এসেছিলেন পড়াশোনার জন্য৷ কিন্তু বদলে জুটল শারীরিক নির্যাতন৷ একটি বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে পড়তেন তিনি৷ বসতি এলাকা! একাই ঘর ভাড়া নিয়ে থাকতেন৷ শনিবার সকালে তাঁর ঘর থেকে ধোঁয়া বেরোতে দেখে প্রতিবেশীদের সন্দেহ হয়৷ তাঁরাই পুলিশে খবর দেন৷ প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান, এই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে পুড়িয়ে মারা হয়েছে৷ রাঁচির ডিএসপি (সদর) বিকাশ শ্রীবাস্তব বলেন, এই ছাত্রীকে খুনের পিছনে একাধিক দুষ্কৃতীর যোগ রয়েছে৷ ময়নাতদন্তের জন্য তাঁর দেহ পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি৷ জয়ার বান্ধবীরা জানিয়েছেন, অত্যন্ত মেধাবী ছাত্রী ছিল সে৷ জয়ার বাবা জানান, তাঁর মেয়ে পড়াশোনায় অত্যন্ত ভাল ছিল৷ বি টেকের তৃতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন তিনি৷ জয়ার অস্বাভাবিক মৃত্যুকে ঘিরে নানা ধোঁয়াশা তৈরি হয়েছে৷ তাঁর বন্ধুরা ঘটনাস্থলে বিক্ষোভ দেখান৷ পরিস্থিতি সামলাতে পুলিশকে লাঠিচার্জ করতে হয়৷

চার বছর আগে ১৬ ডিসেম্বর চলন্ত বাসে ছয় ধর্ষকের পৈশাচিক অত্যাচারের শিকার হয়েছিলেন নির্ভয়া৷ ঘটনার ১৩ দিন পরে মারা যান তিনি৷ বিক্ষোভের আগুন জ্বলে ওঠে দেশজুড়ে৷ তৈরি হয় নির্ভয়া আইন৷ কিন্তু ১৬ ডিসেম্বর রাতের রাঁচির ঘটনা আবারও প্রমাণ করে দিল৷ আইনের পরিবর্তন দেশের সামগ্রিক পরিস্থিতিতে এতটুকুও বদল ঘটাতে পারেনি৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে