৩ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

ঋণের দায়! বিষ হাতে সেলফি তোলার পরই আত্মঘাতী ভোপালের এক পরিবারের ৫ সদস্য

Published by: Kishore Ghosh |    Posted: November 28, 2021 8:18 pm|    Updated: November 28, 2021 8:59 pm

family made suicide pact a day before taking poison | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইঁদুরের বিষ হাতে সেলফি, তারপরেই আত্মহত্যা করল একই পরিবারের ৫ সদস্য। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) ভোপালে (Bhopal)। মাথায় ছিল ঋণের (Loan) বোঝা। সেই ঋণ শোধ করার জন্য মাত্রাতিরিক্ত চাপ দেওয়া হচ্ছিল পরিবারটিকে। উপায় না দেখেই আত্মহত্যা করে পরিবারটি (Suicide of a Family)।

বৃহস্পতিবার সকালে রীতিমতো পরিকল্পনা করে আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত নেয় পরিবারটি। প্রথমে পোষ্য দুই সারমেয়কে বিষ খাওয়ায় তাঁরা। এরপর নিজেরাও একে একে ইঁদুরের বিষ পান করেন। ঋণের দায়ে হেনস্থার জেরেই এই কাণ্ড ঘটান তাঁরা। জানা গিয়েছে, আগের রাতে সমস্ত পরিকল্পনা করেন তাঁরা। সেই মতোই আত্মহত্যার আগে সকলে মিলে একটি সেলফিও তোলেন।

খবর পেয়ে পরদিন সকালে ওই পরিবারের আত্মীয়রা ছুটে আসেন। শুক্রবার এই ঘটনায় ৪ জন মহিলাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এরপর শনিবারে একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। ওই ভিডিওয় সঞ্জীব যোশির (Sanjeeb Joshi) স্ত্রী অর্চনা (Archana) জানিয়েছেন, তাঁদের বসতবাড়িটি ছাড়াও ৩টি জমি রয়েছে। তাঁরা এই সম্পত্তি বেচে ঋণ (Loan)  শোধ করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তাদের সেই সময় দেওয়া হয়নি।

[আরও পড়ুন: বউ পেটানোয় ভুল কিছু নেই! মনে করেন দেশের ১৪ রাজ্যের ৩০ শতাংশ মহিলা]

ভাইরাল ভিডিওয় অর্চনা জানিয়েছেন, প্রথম ভেবেছিলেন তিনি ও স্বামী সঞ্জীব আত্মহত্যা করবেন। পরে চিন্তা করেন, তাঁদের অবর্তমানে ছেলে-মেয়েরা কী করবে! এরপরেই সকলে মিলে আত্মহত্যার পরিকল্পনা নেন। অর্চনা আরও জানান, তাঁরা ৫২ লাখ টাকার বাড়ি ২২ লাখ টাকায় বিক্রির জন্য সেল এগ্রিমেন্ট পর্যন্ত করে ফেলেছেন, কিন্তু তাদের বাড়ির সামনে এসে পাওনাদাররা ঝামেলা করছে।

[আরও পড়ুন: দীর্ঘ লড়াইয়ের স্বীকৃতি, Forbes প্রকাশিত দেশের প্রভাবশালী মহিলাদের তালিকায় ওড়িশার আশাকর্মী]

মৃত্যুর আগে বন্ধু ও আত্মীয়দের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে ১৩ পাতার সুইসাইড নোট, ভিডিও, সেলফি ও পাওনাদারদের নামে পিপলানি পুলিশ স্টেশনে (Piplani Police Station) করা অভিযোগপত্রটি শেয়ার করে পরিবারটি। বাড়ির দেওয়ালেও লেখে, “আমরা বিচার চাই, আমরা ভিতু নই, আমরা নিরুপায়।” দেওয়ালে লেখা ছিল অভিযুক্ত পাওনাদারদের নামও।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে