১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘গুপকার ডিক্লেরেশনের জোটসঙ্গী কংগ্রেস, একসঙ্গেই লড়ব’, গুঞ্জন উড়িয়ে দাবি ফারুক আবদুল্লার

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: November 9, 2020 11:46 am|    Updated: November 9, 2020 11:51 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জম্মু-কাশ্মীরের (Jammu & Kashmir) বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক নেতৃত্বের তৈরি ‘গুপকার ডিক্লেরেশন’-এর সঙ্গী কি কংগ্রেসও? দ্বিধাদ্বন্দ্বে ভরা এই প্রশ্নের উত্তর নিয়ে যখন কানাকানি চলছে, তখন নয়া জোটের প্রেসিডেন্ট তথা ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ফারুক আবদুল্লা (Farooq Abdullah) দাবি করলেন, কংগ্রেস তাঁদের সঙ্গেই আছে, থাকবেও। একসঙ্গে হাতে হাত ধরে স্থানীয় নির্বাচনে লড়াই করবে। তাঁর সঙ্গে দেখা করে এমনই আশ্বাস নাকি দিয়েছেন জম্মু-কাশ্মীরের কংগ্রেস জি এ মীর। যদিও কংগ্রেসের কোনও শীর্ষ নেতৃত্বের তরফে ফারুক আবদুল্লার দাবির সমর্থনে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। 

গত মাসে জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী, পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতি (Mahbooba Mufti)  বন্দিশিবির থেকে ছাড়া পাওয়ার পর ৩৭০ ধারা ফেরাতে চেয়ে জোটবদ্ধ হয়েছিল একদা যুযুধান ফারুক আবদুল্লা, মুফতি। তৈরি হয়েছিল ‘পিপলস অ্যালায়েন্স ফর গুপকার ডিক্লেরেশন’ (PAGD)। রাজনৈতিকভাবে ভূস্বর্গে অপ্রাসঙ্গিক হয়ে পড়লেও ওই জোটে নাম লেখায় সিপিএমও। তবে ইতস্তত করছিল কংগ্রেস। এই জোটের প্রধান মুখ ফারুক আবদুল্লা এবং মেহবুবা মুফতি হওয়ায় ‘ভারত বিরোধী’ মঞ্চ হিসেবে দেখেছিলেন ওয়াকিবহাল মহলের একাংশ।

[আরও পড়ুন: ভোটের ফল বেরলেই বিধায়ক কেনাবেচার আশঙ্কা, দুই শীর্ষ নেতাকে বিহারে পাঠাল কংগ্রেস]

শনিবার কংগ্রেস জানিয়েছিল যে স্থানীয় নির্বাচনে কংগ্রেস অবশ্যই লড়বে, প্রার্থী দেবে। এরপরই প্রশ্ন ওঠে কংগ্রেস কি আলাদা লড়াই করবে?ওই দিনই আবার প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি জি এ মীর ফারুক আবদুল্লার বাড়ি যাওয়ার পর গুঞ্জন জোরদার হয়। তবে কি গুপকার জোটে নাম লেখাচ্ছে কংগ্রেস? সেই প্রশ্নের জবাবই স্পষ্ট করে দিলেন ফারুক আবদুল্লা। তাঁর কথায়, ”কেন ওরা আলাদা থাকবে? এ নিয়ে ভুল ধারণার কোনও জায়গা নেই। কংগ্রেস এই জোটের একটা শরিক এবং আমরা একসঙ্গে DDC (District development council) নির্বাচনে লড়ব।” ফারুক আবদুল্লার আরও দাবি, ”শনিবার এবং রবিবারের মধ্যে ফারাক আছে। শনিবার কংগ্রেস একরকম ঘোষণা করেছিল, রবিবার মীর সাহেব আমার সঙ্গে দেখা করেছেন। আমাকে উনি বলেছেন যে নির্বাচনে একসঙ্গেই লড়বেন।”

[আরও পড়ুন: অজানা ব্যক্তির নির্দেশে বাবার ফোনে অ্যাপ ডাউনলোড ছেলের, গায়েব ৯ লক্ষ টাকা]

যদিও ফারুক আবদুল্লার এহেন মন্তব্যের পর সরাসরি তা উড়িয়ে না দিয়ে কংগ্রেসের মুখপাত্র রবীন্দ্র শর্মা জানিয়েছেন, সৌজন্য সাক্ষাৎ করতেই আবদুল্লার বাড়ি গিয়েছিলেন মীর। এ নিয়ে আনুষ্ঠানিক কোনও বিবৃতি দেওয়া হয়নি দলের পক্ষ থেকে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement