BREAKING NEWS

০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২২ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বিজেপিকে ভোট না দেওয়ার আবেদন ১০০ পরিচালকের!

Published by: Bishakha Pal |    Posted: March 30, 2019 8:22 pm|    Updated: March 30, 2019 8:22 pm

Filmmakers of South urge public not to vote for BJP

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সাধারণত ভোটের আগে এক দল অন্য দলকে ভোট না দেওয়ার কথা বলে। এই নিয়ে বাগবিতণ্ডাও চলে প্রচুর। কিন্তু স্বয়ং বুদ্ধিজীবীরা আসরে নেমে একটি নির্দিষ্ট দলকে ভোট না দে্ওয়ার কথা বলছে, এমন সচরাচর ঘটে না। এক ঘটেছিল ২০০৯ সালে লোকসভা নির্বাচনের সময়, আর ঘটল এবার। সেবার রেডিওতে মহাশ্বেতা দেবী রাজ্যবাসীকে অনুরোধ করেছিলেন যেন সিপিএমকে ভোট না দেওয়া হয়। আর এবার লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে ভোট না দেওয়ার আবেদন জানালেন ১০০-রও বেশি চিত্রপরিচালক। তাঁদের স্লোগান- ‘গণতন্ত্র বাঁচাও’ (Save the democracy)।

এই ১০০ জন চিত্রপরিচালকের তালিকায় রযেছেন মালয়ালম পরিচালক আসিক আবু, ভেত্রিমারন, রঞ্জিত, সানাল শশীধরন, বীণা পাল, লীনা মণিমেখলাই ও মধুপালের মতো ব্যক্তিত্ব। জনগণের কাছে তাঁদের আবেদন, এবারের নির্বাচনে তারা যেন এমন একটি সরকার নির্বাচন করে, যারা দেশের সংবিধানকে শ্রদ্ধা করবে। সমস্ত রকম সেন্সরশিপ থেকে যেন অব্যাহতি পাওয়া যায় আর বাক স্বাধীনতা যাতে লঙ্ঘন না হয়। দেশের সাংস্কৃতিক ও ভৌগলিক অখণ্ডতা বজায় রাখতে এই নির্বাচন অত্যন্ত জরুরি। তাই প্রত্যেকের কাছে তাঁদের আবেদন, ভোট যেন জনগণ দেন বুঝেশুনে।

[ আরও পড়ুন: নেটদুনিয়ায় ‘বক্সিবাবু’ ব়্যাপ নিয়ে নিন্দার ঝড়, কী বললেন অনির্বাণ ভট্টাচার্য? ]

তাঁরা আরও জানিয়েছেন, গণপিটুনি, দলিত ও মুসলিমদের অধিকার খর্ব করা, সেনার প্রতি ‘আদিখ্যেতা’ এই সবই করছে এই সরকার। এর থেকে উদ্ধার পাওয়ার এটাই শেষ সুযোগ। দেশাত্মবোধকে ট্রাম্প কার্ড করে ভোট ব্যাংকে নিজেদের পাল্লা ভারী করতে চাইছে বিজেপি। এরপরই নাম না করে গৌরী লঙ্কেশের কথা বলেন তাঁরা। জানান, এই সরকারের রাজত্বকালে একাধিক সাংবাদিক প্রাণ হারিয়েছেন। কারণ তাঁরা সত্য উদঘাটনের সাহস দেখিয়েছিলেন। এছাড়া এই সরকারের আমলে অর্থনীতিও মুখ থুবড়ে পড়েছে। শুধু কয়েকজন ব্যবসায়ীর পকেট ভারী হয়েছে মাত্র। দেশের কোনও উপকার হয়নি। নিজেদের ফেসবুক পেজ ‘আর্টিস্ট ইউনিট ইন্ডিয়া’-এ তাঁরা বলেছেন, ‘ফিল্ম ফ্র্যাটারনিটি ফর ডেমোক্রেসি’ নামে হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে তাঁরা আলোচনা করে তবেই এই সিদ্ধান্তে এসেছেন।

কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে এই তালিকায় কোনও বলিউড তারকাদের নাম নেই। অথচ বলিউড যে এই সরকারের উপর খুশি, তা কিন্তু নয়। ‘সেক্সি দুর্গা’ ছবির পরিচালক শশীধরন বলেছেন, “চুপ করে থাকার সময় পেরিয়ে গিয়েছে। এবার মুখ খোলার সময় এসেছে।” বিশাল ভরদ্বাজ বলেছেন, ‘পদ্মাবত’-এর সঙ্গে কী হল! আগেও যে কথা কাটাকাটি, লড়াই হত না তা নয়। কিন্তু সেসব হত আদর্শভিত্তিক। আর এখন ব্যক্তিগতভাবে আক্রমণ করা হয়। কর্ণি সেনা বনশালিকে যেভাবে আক্রমণ করেছিল, সেই কথা তুলে ধরেন বিশাল ভরদ্বাজ। নাসিরুদ্দিন শাহ বলেন, এরা নিজেদের হাতে আইন তুলে নিয়েছে। ইতিমধ্যেই দেশ দেখেছে এক পুলিশ অফিসারের থেকে গোহত্যা এদের কাছে বেশি প্রাধান্য পায়। অথচ বলিউডের কেউ সর্বসমক্ষে একথা বলতে এগিয়ে আসেননি।

এপ্রসঙ্গে শশীধরন বলেন, কেউ হয়তো সামনে আসতে চাইছে না। কিন্তু ২০১৪ সালে লোকসভা নির্বাচনের আগে অনেক বলিউড সেলিব্রিটিই বিজেপিকে ভোট না দেওয়ার পক্ষে আওয়াজ তুলেছিলেন। তাঁদের মধ্যে ছিলেন ইমতিয়াজ আলি, নন্দিতা দাশ, বিশাল ভরদ্বাজ, গোবিন্দ নিহলানি, জোয়া আখতার, কবীর খান, মহেশ ভাট, শুভা মুদগল ও আদিতি রাও হায়দারি ছিলেন তাঁদের মধ্যে অন্যতম। কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে এবছর বলিউড চুপ। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকে বিজেপিকে ভোট না দেওয়ার কথা বলছেন বলে দাবি শশীধরনের।

[ আরও পড়ুন: জল্পনার অবসান, বড়পর্দায় ফের জুটি বাঁধছেন রণবীর-দীপিকা ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে