৩০ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  দেশজুড়ে ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা বন্ধের দাবিতে এবং ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি তুলে সাম্প্রদায়িক উসকানিমূলক বার্তার প্রতিবাদে গত মঙ্গলবারই বিশিষ্ট পরিচালক শ্যাম বেনেগাল, অপর্ণা সেন, অনুরাগ কাশ্যপ থেকে মণিরত্নম-সহ সরব হয়েছিলেন ৪৯ বিদ্বজ্জন৷ ‘জয় শ্রীরাম’ থেকে গণপিটুনি, যাবতীয় অসহিষ্ণুতামূলক বিষয় উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দপ্তরে চিঠি পাঠিয়েছেন তাঁরা।  যার জন্য শাসকদলের রোষানলেও পড়েছেন তাঁরা। এরপর প্রধানমন্ত্রীর সমর্থনে পালটা চিঠি দিয়েছেন ৬১ জনের এক বিশিষ্ট দলও। যেই তালিকায় নাম রয়েছে কঙ্গনা রানাউত, প্রসূন যোশিদের মতো ব্যক্তিত্বদেরও। মোদিপন্থীদের ওই পালটা চিঠির মোক্ষম জবাবও দিয়েছেন অপর্ণা সেন এবং সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। এবার সেই বিতর্কের আগুনেই আরও একবার ঘি পড়ল। মামলা দায়ের হল অপর্ণা, সৌমিত্রদের বিরুদ্ধে। প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দেওয়া ওই ৪৯ জনের বিরুদ্ধে ‘দেশদ্রোহিতার’ অভিযোগ এনে মামলা দায়ের হল বিহার আদালতে।

[আরও পড়ুন: ‘এত ভয়, দু’টো প্রাণনাশের হুমকি চলে এল?’ মোদিপন্থীদের কটাক্ষ অপর্ণা-সৌমিত্রর]

দেশের ৪৯ বিদ্বজ্জনকে ‘দেশদ্রোহী’ আখ্যা দিয়ে ওই মামলাটি দায়ের করেন সুধীর কুমার ওঁঝা নামে এক ব্যক্তি। যিনি পেশায় একজন আইনজীবী। সুধীর কুমারের অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উন্নয়নে ব্যাঘাত ঘটানো এবং দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন ওই বিদ্বজ্জনেরা। তাঁদের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতা, ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত, দেশের অখণ্ডতা ক্ষুণ্ণ করা-সহ একাধিক অভিযোগে ভারতীয় দণ্ডবিধির বিভিন্ন ধারায় মামলা করেছেন ওই আইনজীবী। পাশাপাশি তিনি এই মামলায় সাক্ষী হিসেবে কঙ্গনা রানাউত, মধুর ভাণ্ডারকর, বিবেক অগ্নিহোত্রীদের নামও উল্লেখ করা হয়েছে। মামলার শুনানি হবে আগামী ৩ আগস্ট।

[আরও পড়ুন: ‘সরকারের সুবিধামতো বিল পাশ হচ্ছে’, আরটিআই নিয়ে মোদিকে কটাক্ষ অনুরাগের]

উল্লেখ্য, ‘ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা’ নিয়ে পাঠানো চিঠির পালটা দিতেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সমর্থনে শুক্রবার চিঠি পেশ করেছিলেন সরকারপন্থী ৬২ জন বিদ্বজ্জন৷ চিঠিতে স্বাক্ষর করেছেন অভিনেত্রী পার্নো মিত্র, কাঞ্চনা মৈত্র, পরিচালক মিলন ভৌমিক, অভিনেতা বিশ্বজিৎ চট্টোপাধ্যায়, পরিচালক মধুর ভাণ্ডারকর, বিবেক অগ্নিহোত্রী, লেখক ও গীতিকার প্রসূন যোশী, নৃত্যশিল্পী সোনাল মানসিং, পণ্ডিত বিশ্বমোহন ভট্টর-মতো ৬১ জন বিশিষ্ট ব্যক্তিরা।  মোদিপন্থী বিদ্বজ্জনরা তাঁদের চিঠিতে অনুরাগ-অপর্ণা-শ্যাম বেনেগালদের রীতিমতো তুলোধনা করেছেন। ক্ষান্ত থাকেননি অপর্না, অনুরাগ, কঙ্কনা সেনশর্মা। গতকালই মোদিপন্থী কঙ্গনা, প্রসূন, পার্নোদের পালটা চিঠির কড়া সমালোচনা করে অপর্ণা সেন বলেছিলেন, “মাত্র ৪৯ জন লোক চিঠি দিল, আর তাতেই দু’- দুটো প্রাণনাশের হুমকি চলে এল? এত ভয়! “ইতিমধ্যেই কৌশিক সেনকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে। হুমকি পেয়েছেন অনুরাগ কাশ্যপও। হাসি পাচ্ছে আমার। তার মানে কোথাও গিয়ে ওদের আঁতে ঘা লেগেছে নিশ্চয়।” 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং