BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লাদেন নিধনের প্রসঙ্গ তুলে পাকিস্তানকে হুঁশিয়ারি অরুণ জেটলির

Published by: Tanujit Das |    Posted: February 27, 2019 5:50 pm|    Updated: February 27, 2019 6:40 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মার্কিন নেভি সিল পারলে, ভারত কেন নয়? পাকিস্তানের অ্যাবোটাবাদে ঢুকে লাদেনকে খতম করেছে মার্কিন নেভি সিল৷ তবে পাকিস্তানের মাটিকে মুক্ত চারণভূমি বানিয়ে ফেলা জঙ্গি হাফিজ সইদ, মাসুদ আজহারকে কেন খতম করতে পারবে না ভারতীয় বায়ুসেনা৷ বুধবার সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে পাকিস্তানকে এমনই হুঁশিয়ারি দিলেন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি৷ আসলে তিনি বুঝিয়ে দিলেন পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ঢুকে সন্ত্রাসবাদকে শেষ করতে পারলে, প্রয়োজনে সেদেশের মাটিতে বেড়ে ওঠা সন্ত্রাসবাদের রক্তবীজের ঝাড়কে উপড়ে ফেলার ক্ষমতা রাখে ভারত৷

[বায়ুসেনার টার্গেট ছিল জইশ ও লস্করের সদর দপ্তর! প্রকাশ্যে চাঞ্চল্যকর তথ্য]

এদিন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বলেন, ‘‘আমার মনে পড়ছে সেদিনের কথা, যেদিন অ্যাবোটাবাদে ঢুকে লাদেনকে খতম করে মার্কিন নেভি সিল৷ তাহলে ভারত নয় কেন? আগে এটা ভাবনার বিষয় হলেও, আজকের দিনে দাঁড়িয়ে একাজ সম্ভব৷’’ মঙ্গলবার ভোররাতে পাক অধিকৃত কাশ্মীরের বালাকোট, চাকোটি এবং মুজাফ্ফরাবাদে অভিযান চালিয়ে জইশ-ই-মহম্মদ, হিজবুল মুজাহিদিন এবং লস্কর-ই-তইবার যৌথ জঙ্গি প্রশিক্ষণ শিবির গুঁড়িয়ে দেয় ভারতীয় বায়ুসেনা। ধ্বংস করে দেওয়া হয় তিনটি জঙ্গি ক্যাম্প৷ খতম হয় ৩৫০ জঙ্গি৷ জানা গিয়েছে, ভারতীয় বায়ুসেনা যে অঞ্চলে হামলা চালিয়েছে সেখান থেকে অ্যাবোটাবাদে লাদেনের বাংলোর দূরত্ব প্রায় ৬০ কিলোমিটার৷ এবং এই বাংলোর কাছেই রয়েছে পাক সেনার মিলিটারি অ্যাকাডেমি৷

[২০০৮ সালে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করতে দেয়নি ইউপিএ সরকার, মন্তব্য প্রাক্তন বায়ুসেনা প্রধানের]

ভারতীয় সেনার প্রত্যাঘাতের পর মঙ্গলবার রাত থেকেই আরও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে পাকিস্তান৷ উপত্যকার কামালকোট, উরি, রাজৌরি-সহ ১২-১৫টি জায়গায় ভারতীয় সেনা ছাউনি লক্ষ্য করে মিসাইল, মর্টার হামলা করে পাক সেনারা৷ যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন করে নিয়ন্ত্রণ রেখায় পাক সেনার হামলার পালটা জবাব দিয়েছে ভারতীয় সেনা৷ উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে পাকিস্তানের পাঁচটি সেনা ছাউনি৷ এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত পাঁচ জন ভারতীয় সেনা জখম হন৷ বুধবার ভারতীয় বায়ুসীমায় প্রবেশ করে পাকিস্তানি যুদ্ধবিমান। পালটা উড়ান ভরে ভারতীয় বিমান। ওই সংঘর্ষে এই ভারতীয় পাইলটের নিখোঁজ হওয়ার কথা স্বীকার করে নিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। সাংবাদিকদের সামনে বিবৃতি দিয়ে বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র রবীশ কুমার জানিয়েছেন, একটি F-16 পাক যুদ্ধবিমান ধ্বংস করা হয়েছে। তবে দুর্ভাগ্যজনকভাবে লড়াইয়ে নষ্ট হয়েছে বায়ুসেনার একটি MIG-21 বাইসন বিমান। বিমানটির চালক ‘মিসিং ইন অ্যাকশন’ বা লড়াইয়ের পর থেকেই নিখোঁজ।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement