২৭ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  শনিবার ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক : দ্বিতীয় মোদি সরকারের আমলে দেশের অর্থনীতির অবস্থা ঠিক কেমন, তা ইতিমধ্যেই টের পেয়ে গিয়েছেন আমজনতা। যখনতখন মূল্যবৃদ্ধির কোপ পড়ছে তাঁদেরই ঘাড়ে। এবার রেলযাত্রায়ও চাপ বাড়ল সাধারণ মানুষের। রেলে চায়ের দাম এক ধাক্কায় বাড়ল পাঁচ টাকা, সঙ্গে সমস্ত খাবারের দামও বাড়ছে। এমন খবরই মিলছে রেল সূত্রে।

রেলওয়ে বোর্ডের ট্যুরিজম ও কেটারিং বিভাগের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে চা-সহ রেলের সমস্ত খাদ্যের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে। মূল্যবৃদ্ধি হতে চলেছে রাজধানী, শতাব্দী ও দুরন্তের মতো এক্সপ্রেস ট্রেনগুলিতে পরিবেশিত পানীয় ও খাবারের। শুধু দ্রুতগতির ট্রেনেই নয়, দাম বাড়ছে অন্যান্য দূরপাল্লার ট্রেনের খাবারেরও। সংশোধিত মূল্য তালিকা অনুযায়ী রাজধানী, শতাব্দী ও দুরন্ত এক্সপ্রেসের স্লিপার শ্রেণির যাত্রীদের এক কাপ চায়ের জন্য এবার থেকে খরচ করতে হবে ১৫ টাকা। একটি ১০ টাকার নোট দিয়েই  যিনি আরামে চা পান করতে পারতেন, এবার তাঁকে গ্যাঁট থেকে আরও পাঁচটি টাকা বাড়তি খরচ করতে হবে। বাতানুকূল দ্বিতীয় শ্রেণির ক্ষেত্রে খরচ স্বাভাবিকভাবেই আরও বাড়ছে। ২০ টাকা খরচ করলে, তবেই মিলবে চা।

[আরও পড়ুন :লজ্জা! জেএনইউ ক্যাম্পাসে ভাঙল বিবেকানন্দের মূর্তি, লেখা হল অশ্লীল কথা ]

মধ্যাহ্নভোজ ও নৈশভোজের জন্য স্লিপার শ্রেণির যাত্রীদের মিলের খরচ করতে হবে ১২০ টাকা। আগে এই মিলের দাম ছিল ৮০ টাকা। হিসাব অনুযায়ী ৪০ টাকা বেড়েছে মিলের দাম। বিকেলের চা ও স্ন্যাক্স কিনলে খরচ পড়বে ৫০ টাকা। আগে যা মিলত ২০ টাকা খরচ করেই। বিকেলের চায়ের দাম এতটা বাড়ানো হচ্ছে কেন? রেল সূত্রে খবর, বিকেলের চায়ের সঙ্গে যে স্ন্যাক্স দেওয়া হয় সেটাই বিকেলের চায়ের দামকে এতটা বাড়িয়ে দিয়েছে। কী কী দেওয়া হয় ওই স্ন্যাক্সে? রেল জানিয়েছে, ওই প্যাকেজে দেওয়া হয় বাদাম, জলখাবার ও মিষ্টি। রেল বোর্ডের তরফে আরও জানানো হয়েছে, খাদ্য তালিকায় থাকছে নিরামিষ, ডিম ও চিকেন বিরিয়ানি। দাম যথাক্রমে ৮০,৯০ ও ১১০ টাকা। ১৩০ টাকায় মিলবে চিকেন মিলও।

[আরও পড়ুন : বাতাসে বিষ, বিশুদ্ধ অক্সিজেন নিতে ‘অক্সি বার’ই ভরসা দিল্লিবাসীর]

আগামী ১৫ দিনের মধ্যে টিকিটের সঙ্গে এই সংশোধিত খাদ্যমূল্য প্রযুক্ত করা হবে বলে জানা গিয়েছে। তবে নয়া মূল্য কার্যকর হবে ১২০ দিন পরে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং