২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৭ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

চিন সীমান্তে শহিদ জওয়ানদের পরিবারের জন্য নয়া উদ্যোগ কেন্দ্রের

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: March 10, 2018 9:02 am|    Updated: September 13, 2019 12:45 pm

Full pay pension for martyred jawans on India's border with China

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  চিন সীমান্তে কর্মরত কোনও সেনা জওয়ান শহিদ হলে, তাঁর পরিবারকে সম্পূর্ণ অবসর-ভাতা দেওয়া হবে। শুধু শহিদ হলেও দেওয়া হবে এমন নয়। কর্মরত অবস্থায় যদি কোনও সেনা জওয়ান আহতও হন, তাহলেও তাঁর পরিবার পেনশনের সুবিধা পাবে। ডোকলাম নিয়ে টানা আট মাস টানাপোড়েনের পর এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল।

[জাতীয় বীরকে অপমান, এবার নেতাজি মূর্তিতে রং মাখাল দুষ্কৃতীরা]

জানা গিয়েছে, সীমান্ত প্রহরায় সেনা জওয়ান শহিদ হলে তাঁর পরিবারকে ৩০ শতাংশ পেনশন দিত কেন্দ্র। এতদিন এই নিয়ম বলবৎ ছিল। তবে কিছু সেনা পরিবারের দাবির ভিত্তিতে ১০০ শতাংশ অবসর-ভাতা মঞ্জুরের বিষয়টি নিয়ে আলাপ আলোচনা শুরু হয়। তারই ভিত্তিতে এই নির্দেশিকা জারি হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে এই পেনশন পদ্ধতি চালু ছিল শুধুমাত্র ভারত-পাকিস্তান সীমান্তে কর্মরত সেনা জওয়ানের পরিবারের জন্য। এবার ভারত চিন সীমান্তে প্রহরারত জওয়ানদের জন্য একই বিধি ব্যবস্থা চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। শুধু সীমান্ত প্রহরায় কড়াকড়ি করতেই নয়, সেই সঙ্গে সেনা জওয়ানদের উদ্বুদ্ধ করাও কেন্দ্রের লক্ষ্য। তবে সেনা জওয়ানদের দাবি ছিল ২০১৭-র জুন থেকে এই পেনশন-ভাতা দিতে হবে। যদিও সেই দাবি বাতিল হয়েছে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে, চলতি মাসের সাত তারিখ থেকে নয়া পেনশন বিধি বলবৎ হয়েছে। এই তারিখের আগে পেনশন সংক্রান্ত যাবতীয় আবেদন গ্রাহ্য হবে না।

চিন ভারত সীমান্তের ডোকলাম এলাকা এখন বরফে ঢেকেছে। তীব্র শৈত্যপ্রবাহের কারণে দুই দেশের তরফেই সীমান্তের অস্থির এলাকা থেকে সেনা সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। তবে ভারতের তরফে শান্তি বজায় রাখা হয়েছে। এরপরেও ডোকলাম নিয়ে সংশয় যাচ্ছে না প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের। এই প্রসঙ্গে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ বলেছেন, সংশ্লিষ্ট এলাকায় চিনের তরফে নানা রকম নির্মাণ কার্যাবলী শুরু হয়েছে। খুব সম্প্রতি প্রতিরক্ষা বাজেট বাড়িয়েছে চিন। যা ভারত-সহ অন্যান্য দেশের পক্ষেও বেশ চিন্তার।

[জঙ্গি-যোগের তদন্তে নামজাদা মাদ্রাসায় NIA হানা, লাগাতার ৮ ঘণ্টা তল্লাশি]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে