৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  শুক্রবার ২৪ মে ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ দেশের রায় LIVE রাজ্যের ফলাফল LIVE বিধানসভা নির্বাচনের রায় মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রথমবার আঘাত পেয়েছিলেন বাবার কাছ থেকে৷ তার মদতেই ধর্ষণের শিকারও হতে হয়েছিল তরুণীকে৷ ভেবেছিলেন রুখে দাঁড়াবেন৷ সুবিচারের আশায় পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছিলেন৷ কিন্তু লাভ হয়নি৷ সুবিচার তো দূরস্ত, পরিবর্তে পুলিশ অভিযোগও জমা নেয়নি তাঁর৷ এই পরিস্থিতিতে মানসিক অবসাদ যেন গ্রাস করেছিল তরুণীকে৷ তাই গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন তিনি৷ গুরুতর জখম অবস্থায় আপাতত দিল্লির এক বেসরকারি হাসপাতালে চলছে যমে-মানুষে লড়াই৷

[ আরও পড়ুন: ‘১৯৮৮-তেই ব্যবহার করেছি ডিজিটাল ক্যামেরা’, মোদির মন্তব্যে হাসির রোল]

জীবনের কুড়িটা বসন্ত পেরিয়েছেন তরুণী৷ বয়সের গণ্ডি ১৮ পেরোতে না পেরোতেই বিয়ে হয়ে যায়৷ যাঁর হাত ধরে শ্বশুরবাড়িতে গিয়েছিলেন, সেই স্বামীও মারা গিয়েছেন কয়েকদিন আগেই৷ সদ্য বিধবা ওই তরুণীকে শ্বশুরবাড়ির লোকেরাও আর গুরুত্ব দেয়নি৷ তাই ঠাঁই নিয়েছিলেন বাপের বাড়িতে৷ ভেবেছিলেন রাজকন্যার মতো না হোক, অন্ন-বস্ত্রের সংস্থান হয়তো করবেন বাবা৷ কিন্তু নাহ! ভাগ্যদেবী প্রসন্ন না হলে যে কত কিছুই হতে পারে, তা নিজের জীবন দিয়ে বুঝলেন ওই তরুণী৷ স্বামীহারা মেয়েকে গঞ্জনা দিতেন বাবা৷ সেটা মানিয়ে নিয়েছিলেন৷ কিন্তু তরুণীর দাবি, একদিন জানতে পারেন বাবা এবং কাকিমা বিক্রি করে দিয়েছেন তাঁকে৷ বিনিময়ে ১০ হাজার টাকা নিয়েছেন বাবা৷ তাঁর আরও অভিযোগ, এই সুযোগে ওই ক্রেতা এবং তার এক বন্ধু মিলে একাধিকবার ধর্ষণ করে তরুণীকে৷ শুধু তাই নয়, রীতিমতো শারীরিক সম্পর্ক তৈরি করে টাকা উপার্জনের জন্যও নির্যাতিতাকে চাপ দেওয়া হত বলেও অভিযোগ৷

[ আরও পড়ুন: ‘দেবী’ থেকে ‘মা’, দুই কন্যার জননী হলেন লৌহমানবী ইরম শর্মিলা]

একসময় শারীরিক অত্যাচার অসহ্য হয়ে ওঠে তাঁর৷ পুলিশের দ্বারস্থ হন নির্যাতিতা৷ তবে অভিযোগ, পুলিশ আধিকারিকরা তাঁর অভিযোগ জমা নিতে অস্বীকার করেন৷ এরপর বাধ্য হয়ে দিল্লির মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন স্বাতী মালিওয়াল এবং উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের কাছে চিঠিও পাঠান তিনি৷ চিঠি পাওয়ার পরই ঘটনায় নড়েচড়ে বসেন স্বাতী৷ তবে মানসিক অবসাদে ইতিমধ্যেই গায়ে আগুন লাগিয়ে দেন তরুণী৷ শরীরের প্রায় ৮০ শতাংশই পুড়ে গিয়েছে তাঁর৷ আপাতত দিল্লির বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি নির্যাতিতা৷ এদিকে, মহিলা কমিশনের তৎপরতায় এই ঘটনায় মোট ১৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করতে বাধ্য হয়েছে পুলিশ৷ তবে এখনও কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি যোগীর রাজ্যের ঊর্দিধারীরা৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং