১ আশ্বিন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যাঁরা সমুদ্র ভালবাসেন, তাঁদের আদর্শ গন্তব্য গোয়া। সুন্দর সাজানো শহরে অন্তত একবার না ঘুরে এলে যেন জীবনটাই বৃথা। শুধু দেশের মানুষ কেন, এশহরের সৌন্দর্যে মোহিত বিদেশিরাও। তাই তো বছরের প্রায় সব সময়ই এখানে পর্যটকদের ভিড় লেগেই থাকে। আর এবার সেই ভিড়ের মাত্রা আরও খানিকটা বাড়লে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। কারণ পর্যটকদের জন্য দুর্দান্ত প্যাকেজ ঘোষণা করেছে আইআরসিটিসি।

যদি গোয়া ঘুরতে যাওয়ার পরিকল্পনা থাকে, তবে এই প্যাকেজ আপনার খরচ অনেকখানি কমিয়ে দেবে। আইআরসিটিসি নিয়ে এসেছে হপ অন হপ অফ গোয়া বাই বাস ট্যুর প্যাকেজ। যেখানে গোয়ার সমুদ্রসৈকতে ঘুরে বেড়ানোর জন্য আপনাকে খরচ করতে হবে মাত্র ৪০০ টাকা। বিশ্বাস না হলে আবার পড়ুন। আর ভাবুন, এমন সুযোগ কি হাতছাড়া করা ঠিক হবে?

[মনের ক্লান্তি মেটাতে স্বল্প খরচে সপ্তাহান্তে ঘুরে আসুন বিহারীনাথ]

গোয়া বললেই চোখের সামনে ভেসে ওঠে ঝাঁ-চকচকে সমুদ্রসৈকত, নীল আকাশ এবং সবুজে ঘেরা রাস্তাঘাট। দেশের যে কোনও প্রান্ত থেকে পৌঁছে যান মনোরম গোয়ায়। আর সেখানে গিয়ে আইআরসিটিসি-র এই প্যাকেজটি বুক করে ফেলুন। কী কী থাকছে এই ট্যুর প্যাকেজে? আগুয়াদা ফোর্ট, ক্যান্ডোলিম বিচ, সেন্ট অ্যান্টনি চ্যাপেল, সেন্ট অ্যালেক্স চার্চ, কালাংগুট বিচ, বাগা বিচ, আঞ্জুনা বিচ, চাপোরা ফোর্ট এবং ভাগাতোর বিচ, ডোনা পাওলা, গোয়া সায়েন্স মিউজিয়াম, মিনামার বিচ, কলা অ্যাকাডেমি, ভগবান মহাবীর উদ্যান, পাঞ্জিম মার্কেট, ক্যাসিনো পয়েন্ট, রিভার বোট ক্রুজ এবং ওল্ড গোয়া, সেন্ট ক্যাথেড্রাল, সেন্ট ক্যাথেরিন চ্যাপেল, আর্ক অফ ভাইসরয়, এএসআই মিউজিয়াম, মল দে গোয়া এবং সালিগাওঁ চার্চে ঘোরানো হবে বাসে। তবে ঘুরতে যাওয়ার অনন্ত চারদিন আগে বুকিং করে ফেলতে হবে।

goa

এবার জেনে নিন, বুকিংয়ের পদ্ধতি।
১. আইআরসিটিসি পোর্টালের পাশাপাশি অফলাইনেও বুকিং করা যাবে।
২. পাপ্রল হলিডেস-এ চারদিন আগেই বুক করা যাত্রীদের তালিকা পৌঁছে যাবে।
৩. সেই তালিকাতেই যাত্রীদের নাম ও বিস্তারিত তথ্য থাকবে। সঙ্গে জানানো হবে, কোন কোন জায়গা থেকে বাসে উঠতে পারবেন তাঁরা।
৪. যে ই-মেলের মাধ্যমে বুকিং নিশ্চিত হবে, যাত্রীর কাছে সেই ই-মেল থাকা আবশ্যক।

আরও কয়েকটা বিষয় জেনে রাখা জরুরি।
১. সকাল ন’টা থেকে সন্ধে ছ’টার মধ্যে ভ্রমণ করতে পারবেন।
২. যাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য সিটের সঙ্গে রয়েছে বেল্ট।
৩. প্রত্যেকটি বাসে থাকছে এলইডি টিভি। পাশাপাশি কোথায় কোথায় যাচ্ছেন, তার ধারাভাষ্যও শোনা যাবে বাসে।
৪. মোট ২৪ টি জায়গা ঘুরবে বাসটি।
৫. যাত্রী সাহায্যের জন্য একজন ব্যক্তি প্রতিটি বাসেই থাকবেন।
৬. মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে একাধিক ভাষায় শোনা যাবে সফরের ধারাভাষ্য।
৭. এক-একটি জায়গায় ঘণ্টাখানেক কাটানো যাবে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং