BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বদলে গেল মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের নাম, ছাড়পত্র দিল মন্ত্রিসভা

Published by: Paramita Paul |    Posted: July 29, 2020 3:57 pm|    Updated: July 30, 2020 2:17 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মোদি জমানায় ফের নাম বদল। বুধবার থেকে মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের (MHRD) নাম বদলে গেল। এই মন্ত্রকের নয়া নাম শিক্ষা মন্ত্রক (Education Ministry)। যদিও ৩৫ বছর আগে এটিই ছিল মন্ত্রকের নাম। এদিন মন্ত্রকের নতুন নামে ছাড়পত্র দিয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা। তবে এ নিয়ে এখনও সরকারি বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়নি। 

স্বাধীনতার পর থেকেই শিক্ষা মন্ত্রক নামেই পরিচিত ছিল এটি। কিন্তু  ১৯৮৫ সালে রাজীব গান্ধীর (Rajiv Gandhi) আমলে এই মন্ত্রকের নাম মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক (Human Resource Development Ministry) রাখা হয়।  সূত্রের খবর, নয়া জাতীয় শিক্ষানীতির (National Education Policy) অঙ্গ হিসেবেই এই মন্ত্রকের নাম বদল করা হল। এদিনেক ক্যাবিনেট বৈঠকে নয়া জাতীয় শিক্ষানীতিও ছাড়পত্র পায়।ইতিহাস বলছে ইসরোর প্রাক্তন প্রধান কে কস্তুরিরঙ্গনের নেতৃত্বে তৈরি জাতীয় শিক্ষানীতির খসড়াতে এই নাম বদলের সুপারিশ করা হয়েছে। এমনকী, আরএসএসের (RSS) একাধিক শাখাও চেয়েছিল এই মন্ত্রকের নাম পরিবর্তন করতে। শেষপর্যন্ত তাঁদের দাবি মানল সরকার। অভিযোগ ছিল, তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীকে ভুল বুঝিয়ে এই মন্ত্রকের নাম মানবসম্পদ উন্নয়ন রাখা হয়েছিল। সেই সুপারিশেই সায় দিল কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা।

[আরও পড়ুন : এই মুহূর্তে রাজ্যগুলির প্রাপ্য জিএসটির টাকা মেটাতে পারবে না কেন্দ্র! ইঙ্গিত অর্থসচিবের]

এদিকে এদিনের বৈঠকে ছাড়প্তর পেয়েছে নয়া জাতীয় শিক্ষানীতি (National Education Policy)। যা ১৯৮৬ ও ১৯৯২ সালের জাতীয় শিক্ষানীতির বদলে কার্যকর হবে। ইতিমধ্যে এই শিক্ষানীতি নিয়ে বিতর্ক দানা বেঁধেছে। বিরোধীদের দাবি, নয়া শিক্ষানীতিতে আরএসএস-র ভাবনা-চিন্তার প্রতিফলন থাকবে। যা দেশের যুব প্রজন্মকে ভুলপথে চালনা করবে। শুধু তাই নয়, বিজ্ঞানের বদলে ধর্মশিক্ষায় বেশি জোর দেবে। তবে সূত্রের খবর, নয়া শিক্ষানীতিতে একস্ট্রা কারিকুলাম অ্যাক্টিভিটি বলে কিছুই থাকবে না। বদলে মিউজিক, খেলধুলা , হাতের কাজ সবই শিক্ষার মূল অংশ করে তোলা হবে। 

[আরও পড়ুন : ৩৭০ ধারা বিলোপের হাতেগরম ফল, কাশ্মীরে সন্ত্রাস কমেছে ৩৬ শতাংশ, দাবি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement