২৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৫  শনিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৫  শনিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুপ্রিম কোর্টের রায়ে এখন আর মোবাইল বা ব্যাংক অ্যাকাউন্টের আধার সংযোগ বাধ্যতামূলক নয়। স্বাভাবিকভাবে অনেকটাই গুরুত্ব হারিয়েছে আধার কার্ড। তাছাড়া, আধার কার্ডের নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছে সুপ্রিম কোর্ট। তাই গ্রাহকদের তথ্য ইউআইডিএআই-এর কাছে কতটা সুরক্ষিত তা নিয়ে সন্দিহান অনেকে। বায়োমেট্রিক, ব্যাংক অ্যাকাউন্টের তথ্যের মতো গুরুত্বপূর্ণ নথি যাদের আধার কার্ডের সঙ্গে সংযুক্ত আছে, তাদের চিন্তাটা একটু বেশি। এবার এই দুশ্চিন্তা থেকে মুক্তির পথ আনতে চলেছে কেন্দ্র।

[লোকসভায় বিজেপির প্রার্থী হচ্ছেন মাধুরী! জোর জল্পনা রাজনৈতিক মহলে]

এবার থেকে গ্রাহক চাইলে নিজের আধার তথ্য ডেটাবেস থেকে মুছে ফেলতে পারবেন। সংশোধন হতে পারে আধার আইন। কেন্দ্রের কাছে খসড়া প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। আধার তথ্য চুরি, জালিয়াতি আটকাতে এই ভাবনা। আপনি আধারে ঠিক কতটা তথ্য দেবেন নাকি আদৌ দেবেন না সেই সব সিদ্ধান্ত এখন আপনি নিজেই নিতে পারবেন। কোনও তথ্য দেওয়াই বাধ্যতামূলক থাকবে না। সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম ‘দ্য হিন্দু’-তে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ইউআইডিএআই এই সংক্রান্ত একটি খসড়া প্রস্তাব পাঠিয়েছে কেন্দ্রের কাছে। সেই প্রস্তাবে ‘Opt Out’ অপশন যুক্ত করার কথা বলা হয়েছে। সেই অপশনের মাধ্যমে একজন নাগরিক নিজের বায়োমেট্রিক তথ্য মুছে ফেলতে পারবেন। ফলে গোপনীয়তার অধিকার ভঙ্গের দায় আর পুরোপুরি আধার কর্তৃপক্ষের উপর থাকবে না।

[বাবরি ধ্বংসের বর্ষপূর্তিতে কড়া নিরাপত্তা অযোধ্যায়]

যদিও, এই আইন চালু হলে আধারের যৌক্তিকতা নিয়েই প্রশ্ন উঠে যেতে পারে। তাছাড়া যেসব সরকারি প্রকল্পে এখনও আধার সংযোগ বাধ্যতামূলক, সেই প্রকল্পগুলির ক্ষেত্রে সমস্যায় পড়তে হতে পারে গ্রাহকদের। এখনও প্যান কার্ড, ইনকাম ট্যাক্স, আইটি রিটার্ন ফাইলের মতো বিষয়ে আধার কার্ড বাধ্যতামূলক। তাছাড়া কেন্দ্রের বেশ কিছু জনকল্যাণমুখী প্রকল্পেও আধার বাধ্যতামূলক। পুরো পরিকল্পনাটি অবশ্য এখনও প্রাথমিক স্তরে। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, লোকসভার আগে আধার নিয়ে সাধারণ মানুষের অসন্তোষ কমাতেই এই ভাবনা কেন্দ্রের।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং