BREAKING NEWS

১৯  আষাঢ়  ১৪২৯  সোমবার ৪ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর আশ্বাসই সার, গত ৬ বছরে সর্বনিম্ন দেশের আর্থিক বৃদ্ধির হার

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: November 29, 2019 9:58 pm|    Updated: November 29, 2019 9:59 pm

Gross Domestic Product growth falls to 4.5% in Q2 of 2019-20

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কয়েকমাস ধরেই অর্থনৈতিক বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করছিলেন দেশের অর্থনীতির হাল নিয়ে। যেভাবে আর্থিক মন্দার ফলে দেশের বিভিন্ন সংস্থার ঝাঁপ বন্ধ হচ্ছিল তা আতঙ্কিত করেছিল তাঁদের। যদিও বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ সংসদে দাঁড়িয়ে দাবি করেছিলেন, এই পরিস্থিতিকে কখনই আর্থিক মন্দা বলা যায় না। বরং আর্থিক বৃদ্ধির হার প্রত্যাশা অনুযায়ী হচ্ছে না বলা যেতে পারে। কিন্তু, ঠিক তার পরের দিন শুক্রবারই প্রকাশিত হল এই অর্থবর্ষের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের সরকারি পরিসংখ্যান। যা দেখিয়ে দিয়েছে যে অর্থ মন্ত্রকের নীতি নির্ধারকরা অর্থনীতির হাল ফেরানোর জন্য যে পরিকল্পনা নিয়েছিলেন। তাতে কোনও লাভই হয়নি। গত দেড় বছর ধরে যেভাবে আর্থিক বৃদ্ধির হার নিম্নমুখী হয়েছে। এবারও সেই ট্র্যাডিশন বজায় রইল। গত ছবছরের মধ্যে সব থেকে নিচে নেমে পৌঁছল ৪.৫ শতাংশে।

[আরও পড়ুন: আর্থিক মন্দার জের! সাফাই কর্মীর চাকরির জন্য আবেদন ৭ হাজার ইঞ্জিনিয়ারের]

যদিও বিপুল জনাদেশ পেয়ে দ্বিতীয় বারের জন্য ইনিংসে শুরু করার সময় অন্য স্বপ্ন দেখিয়েছিল কেন্দ্রের শাসকদল। খুব তাড়াতাড়ি ভারত তিন ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারের অর্থনীতিতে পরিণত হবে বলেও দাবি করা হয়েছিল। এমনকী আগামী কয়েক বছরের মধ্যে তা পাঁচ ট্রিলিয়ন ডলারে পৌঁছবে বলেও আশাপ্রকাশ করা হয়েছিল। কিন্তু, বাস্তবে দেখা যাচ্ছে ঠিক তার উলটো ছবি। প্রথম ত্রৈমাসিকে পাঁচ শতাংশ আর্থিক বৃদ্ধি হয়েছিল। যা গত ছবছরের মধ্যে সর্বনিম্ন ছিল। কিন্তু, শুক্রবার দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের রিপোর্ট প্রকাশ পেতে সেটাও বেশি হয়ে গেল। বিশেষজ্ঞ ও বিরোধীদের আশঙ্কা সত্যি করে ৪.৫ শতাংশে পৌঁছল দেশের আর্থিক বৃদ্ধির হার। এর আগে ২০১২-১৩ অর্থবর্ষে এর থেকে কম ৪.৩ শতাংশে পৌঁছে ছিল জিডিপি বৃদ্ধির হার। কিন্তু, এর নিচে কোনওদিন যায়নি। কিন্তু, এবার পুরনো সেসব রেকর্ড ভেঙে গেল। তৈরি হল অর্থনীতির অধঃপতনের নতুন ইতিহাস!

[আরও পড়ুন: পুলিশকে ফোন না করে বোনকে কেন? হায়দরাবাদে ধর্ষণ ও খুনের ঘটনায় নির্যাতিতাকেই দুষলেন মন্ত্রী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে